খুনিদের সঙ্গে ঐক্য জনগণ গ্রহণ করবে না

ওবায়দুল কাদের

  যুগান্তর রিপোর্ট ১২ অক্টোবর ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

খুনিদের সঙ্গে ঐক্য জনগণ গ্রহণ করবে না

একুশে আগস্টের গ্রেনেড হামলার ঘটনার মাস্টার মাইন্ড তারেক রহমানের নেতৃত্বাধীন বিএনপির সঙ্গে জাতীয় ঐক্য জনগণ গ্রহণ করবে না বলে মনে করেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

তিনি বলেন, আজকে যারা গণতন্ত্রের ভাষায় কথা বলেন, যারা আইনের শাসনের কথা বলেন, কথায় কথায় নৈতিকতার কথা বলেন, তারা খুনিদের সঙ্গে জাতীয় ঐক্য করবেন। ওই জাতীয় ঐক্য জনগণ কখনও বিশ্বাস করবে না, সমর্থন করবে না।

২১ আগস্টের মাস্টার মাইন্ড-প্ল্যানার যাবজ্জীবন কারাদণ্ডে দণ্ডিত। তিনি (তারেক রহমান) যে দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান, কোন নৈতিকতার বলে ড. কামাল হোসেন, সাবেক রাষ্ট্রপতি বদ্দরুদ্দোজা চৌধুরী এ খুনি দলের সঙ্গে তথাকথিত জাতীয় ঐক্য করছেন।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সটিটিউশনে (আইইবি) সড়ক ও জনপথ প্রকৌশলী সমিতির বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ওবায়দুল কাদের এ মন্তব্য করেন। তিনি বলেন, ১৫ আগস্ট ও ২১ আগস্টের ঘটনা একই ষড়যন্ত্রের ধারাবাহিকতা, একই সূত্রে গাঁথা। তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশের রাজনীতি কী দণ্ডিত, আত্মস্বীকৃত দুর্নীতিবাজদের হাতে ন্যস্ত হবে? এ জাতীয় ঐক্য জনগণ কোনোদিনও গ্রহণ করবে না।

রায় নিয়ে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুলের সমালোচনা করেন ওবায়দুল কাদের। তার (ফখরুল) কাছে প্রশ্ন রেখে তিনি বলেন, ২১ আগস্টের এ রায় কী ফরমায়েশি রায়? বাংলাদেশের কোনো একজন বিবেকবান মানুষ কী বলবেন এ রায় ফরমায়েশি। আমি (ওই হামলায় আক্রান্ত) এখনও নামাজের সেজদায় যেতে পারি না। চেয়ারে বসে নামাজ আদায় করি। আমাকে সারা জীবনের জন্য পঙ্গু করে দেয়া হয়েছে। আমি হুইল চেয়ারে চলাফেরা করি না। অনেকে হুইল চেয়ার ছাড়া চলাফেরা করতে পারেন না। আর ২৪ জনতো চলেই গেছেন। সন্ত্রাসবিরোধী সমাবেশে সন্ত্রাসের শিকার হয়েছিলাম। আপনারা (বিএনপি) ক্ষমতায়, হামলার আলামত নষ্ট হল কেমন করে? হামলাকারীদের প্রকাশ্য দিবালোকে পালিয়ে যাওয়ার সুযোগ দিল কেমন করে? বিচারপতি জয়নাল আবেদিন নেতৃত্বাধীন কমিটি রিপোর্ট দিয়েছিল প্রতিবেশী ভারতের গোয়েন্দা সংস্থা এ হামলা চালিয়েছিল। এটা কী সত্য? এটা কী কেউ মেনে নেবে। একজন ভবঘুরেকে রাস্তা থেকে ধরে এনে জজমিয়া নাটক সাজানো হয়েছিল- সেটা কী ফরমায়েশি রায়। আইভী রহমানসহ ২৪ জনের প্রাণ চলে গেছে- এটা কি ফরমায়েশি রায়? মুফতি হান্নান নিজেই বলেছে তারেক রহমানের নির্দেশ নিয়ে অপারেশন চালানো হয়, এটা কী ফরমায়েশি রায়? লুৎফুজ্জামান বাবর স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী ছিল, পূর্ণমন্ত্রী ছিলেন প্রধানমন্ত্রী (খালেদা জিয়া) নিজে, তিনি কী তা এড়াতে পারবেন, কীভাবে এড়াবেন। কী জবাব দেবেন।

সম্মেলনে প্রকৌশলীদের উদ্দেশে মন্ত্রী বলেন, যখন এক পশলা বৃষ্টিতে সড়ক নষ্ট হয়ে যায় এ লজ্জা কোথায় রাখব। যখন মানুষ বলে ৩ মাস, ৫ মাসে সড়কে যান চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে- এটা কী কর্ম বলা যাবে? এটা অপকর্ম। নিজেকে সৎ দাবি করে ওবায়দুল কাদের বলেন, প্রকৌশলীদের সমস্যা হলে আমি দেখব। রাজনৈতিক লোকদের টাকা দিয়ে প্রমোশন-ট্রান্সফারের তদবির করান কেন? তাদের ঘুষ দেন কেন? আমার সময়ে কেউ টাকা দিয়ে প্রধান প্রকৌশলী হতে পারেনি। কেউ পদোন্নতি-ট্রান্সফার পায়নি। কেউ আমাকে পার্সেন্টেজ দিয়েছেন, টাকা দিয়েছেন এটা প্রমাণ করতে পারলে মন্ত্রিত্ব ছেড়ে দেব। তিনি বলেন, নিজে সৎ থাকলাম, কিন্তু মন্ত্রণালয় অসৎ থাকলে আমার সততার দাম কী? সামনে নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার ১ মাসও সময় নেই। তফসিলের পর নির্বাচনকালীন সরকার রুটিন কাজ করবে।

প্রকৌশলী সমিতির ২৮তম বার্ষিক সম্মেলন উপলক্ষে রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সটিটিউশনে (আইইবি) এ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। এতে সমিতির সভাপতি প্রকৌশলী মো. সবুজ উদ্দিন খান তাদের বিভিন্ন দাবি-দাওয়া তুলে ধরে বলেন, অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী পদকে দ্বিতীয় ও তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলীর পদকে তৃতীয় গ্রেডে উন্নীত করা জরুরি হয়ে পড়েছে। তিনি বলেন, নিয়মিত পদোন্নতি হচ্ছে না। নতুন নিয়োগ প্রক্রিয়াও বিলম্বিত হচ্ছে। সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী মোহাম্মদ আবুল কালাম আজাদ প্রশাসনের ন্যায় সড়ক ও জনপথ বিভাগে সুপার নিউমারারি পদ সৃষ্টির দাবি জানান।

ঘটনাপ্রবাহ : বৃহত্তর জাতীয় ঐক্য

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
×