ডিসিসিআইয়ের সেমিনার

চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের সুবিধা নিতে দক্ষতা বাড়াতে হবে

  যুগান্তর রিপোর্ট ২১ ডিসেম্বর ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

শিল্প বিপ্লব

চতুর্থ শিল্প বিপ্লবে রোবটিকস, ক্লাউড টেকনোলজি, ব্লকচেইন, থ্রিডি প্রিন্টিং, ন্যানোটেকনোলজি এবং বায়োটেকনোলজির মতো বিষয়গুলো অত্যন্ত গুরুত্ব পাবে। এ সময় একদিকে কর্মসংস্থানের সুযোগ সংকুচিত হবে, অন্যদিকে নতুন নতুন ক্ষেত্র উন্মোচিত হবে। এ শিল্প বিপ্লবের সুবিধা নিতে প্রাতিষ্ঠানিক সক্ষমতা ও মানবসম্পদের দক্ষতা বাড়ানোর বিকল্প নেই।

বৃহস্পতিবার ‘৪র্থ শিল্প বিপ্লব: বাংলাদেশের সুযোগ ও সম্ভাবনা’ শীর্ষক আলোচনা সভায় বক্তারা এসব কথা বলেন। ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (ডিসিসিআই) এবং বাংলাদেশ সেন্টার ফর ফোর্থ ইন্ডাস্ট্রিয়াল রেভলুশন (বিডিফোরআইআর) যৌথভাবে এ সভার আয়োজন করে। ডিসিসিআই সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত সভায় সংগঠনটির সভাপতি আবুল কাশেম খানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন পররাষ্ট্র সচিব শহীদুল হক।

স্বাগত বক্তব্যে আবুল কাশেম খান বলেন, ৪র্থ শিল্প বিপ্লব দেশের অর্থনীতি, ব্যবসা-বাণিজ্য, শিল্পকারখানা, পণ্য উৎপাদন ও বিপণনসহ সব ক্ষেত্রেই অভাবনীয় পরিবর্তন আনবে। বাংলাদেশকে এ বিপ্লবের সুবিধা আদয়ের জন্য এখনই প্রতিষ্ঠানের সক্ষমতা বাড়ানোর পাশাপাশি মানবসম্পদের দক্ষতা উন্নয়নে কার্যকর উদ্যোগ গ্রহণ করতে হবে। তিনি জানান, ৪র্থ শিল্প বিপ্লবের সময়কালে রোবটিকস, ক্লাউড টেকনোলজি, ব্লকচেইন, থ্রিডি প্রিন্টিং, ন্যানোটেকনোলজি এবং বায়োটেকনোলজির মতো বিষয়গুলো অত্যন্ত গুরুত্ব পাবে।

এসব প্রযুক্তির সঠিক ব্যবহার নিশ্চিত করতে তরুণ প্রজন্মকে তথ্য-প্রযুক্তি বিষয়ে দক্ষ করে গড়ে তুলতে হবে। সভায় মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বিডিফোরআইআরের সহসভাপতি সৈয়দ তামজিদ উর রহমান। তিনি বলেন, ইতিমধ্যে আমরা ৪র্থ শিল্প বিপ্লবের মধ্য দিয়ে যাচ্ছি। এ শিল্প বিপ্লবে অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি, কর্মসংস্থানের সুযোগ তৈরি, নতুন কর্মদক্ষতা উন্নয়ন এবং কর্মসংস্থানের প্রকৃতি জড়িত। নতুন প্রযুক্তির সঙ্গে তাল মেলানোর জন্য জনসচেতনতা বৃদ্ধি, প্রশিক্ষণের মাধ্যমে দক্ষতা উন্নয়ন এবং শিল্প ও শিক্ষার সমন্বয় আরও বাড়ানোর আহ্বান জানান তিনি।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে পররাষ্ট্র সচিব শহীদুল হক বলেন, ৪র্থ শিল্প বিপ্লব তরুণ প্রজন্মের জন্য নতুন দিগন্তের দ্বার উন্মোচন করেছে। এ বিপ্লবের কারণে একদিকে যেমন কর্মসংস্থানের সুযোগ সংকুচিত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। একই সঙ্গে কর্মসংস্থানের নতুন নতুন ক্ষেত্র উন্মোচনের সুযোগ সৃষ্টি হবে। সামনের দিনগুলোতে যারা নতুন প্রযুক্তি উদ্ভাবন করতে পারবে, তারাই পৃথিবীতে টিকে থাকতে পারবে এবং এ অবস্থায় আমাদেরকে অবশ্যই নতুন প্রযুক্তি উদ্ভাবনে আরও বেশি মনোযোগী হতে হবে।

সভায় উপস্থিত ছিলেন ডিসিসিআইয়ের ঊর্ধ্বতন সহসভাপতি কামরুল ইসলাম, সহসভাপতি রিয়াদ হোসেন, পরিচালক ইমরান আহমেদ, আলাউদ্দিন মালিক, এসএম জিল্লুর রহমান, ওয়াকার আহমেদ চৌধুরী প্রমুখ।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×