বৈশ্বিক পণ্য পরিবহন সেবায় এগিয়েছে বাংলাদেশ

টিআই-অ্যাজিলিটির প্রতিবেদন

  ইকবাল হোসেন ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

আন্তর্জাতিক বাজার থেকে পণ্য পরিবহন (লজিস্টিক) সেবা প্রদানে এগিয়েছে বাংলাদেশ। বিশ্বের উদীয়মান (ইমারজিং) অর্থনীতির ৫০টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান ২৩তম। আর স্কোর ১০-এর মধ্যে পাঁচ দশমিক ১৫। গত বছরের তুলনায় লজিস্টিক সেবায় চার ধাপ এগিয়েছে বাংলাদেশ। পাশাপাশি স্কোর বেড়েছে দশমিক ২১।

‘অ্যাজিলিটি ইমারজিং মার্কেটস লজিস্টিকস ইনডেক্স ২০১৮’ শীর্ষক সম্প্রতি প্রকাশিত প্রতিবেদনে এ তথ্য তুলে ধরা হয়েছে। এটি যৌথভাবে প্রণয়ন করেছে যুক্তরাজ্যের ট্রান্সপোর্ট ইন্টেলিজেন্স (টিআই) ও অস্ট্রেলিয়ার অ্যাজিলিটি। উল্লেখ্য, অ্যাজিলিটি বিশ্বের খ্যাতনামা লজিস্টিক সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠানের মধ্যে অন্যতম শীর্ষ প্রতিষ্ঠান। আর ট্রান্সপোর্ট ইন্টেলিজেন্স লজিস্টিক-বিষয়ক খ্যাতনামা গবেষণা প্রতিষ্ঠান। প্রতি বছর প্রতিবেদনটি যৌথভাবে প্রকাশ করে আসছে টিআই-অ্যাজিলিটি।

প্রতিবেদনটির তথ্য অনুযায়ী, উদীয়মান (ইমারজিং) অর্থনীতির দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশ দ্রুত উন্নতি করছে। এতে সেরা ১০ উত্থানের (মুভার্স আপ) তালিকায় তৃতীয় স্থানে উঠে এসেছে বাংলাদেশ। পেছনে ফেলেছে উদীয়মান অর্থনীতির বেশকিছু দেশকে। যদিও এ খাতে বাংলাদেশের আরও উন্নতির সুযোগ রয়েছে বলে মন্তব্য করা হয়েছে প্রতিবেদনে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, লজিস্টিক সেবায় দ্রুত উন্নতি করছে এমন তালিকায় শীর্ষে অবস্থান মিসরের, যদিও সার্বিকভাবে দেশটির অবস্থান ১৪। শীর্ষ উত্থানের (মুভার্স আপ) তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে কাতার, তৃতীয় বাংলাদেশ, চতুর্থ পাকিস্তান ও পঞ্চম থাইল্যান্ড। এর পর রয়েছে যথাক্রমে ইথিওপিয়া, ইরান, ভিয়েতনাম, চীন ও পেরু। প্রতিবেদনটি তৈরির ক্ষেত্রে উদীয়মান দেশগুলোর লজিস্টিক সেবা, উড়োজাহাজে পণ্য পরিবহন, শিপিং লাইন এবং ফ্রেইট ফরোয়ার্ডিং প্রতিষ্ঠানগুলোর সক্ষমতা বিবেচনা করা হয়েছে। কমপক্ষে ২৫০ কর্মী রয়েছে এমন লজিস্টিক সেবা প্রদানকারী কোম্পানিগুলোর মতামতের ভিত্তিতে প্রতিবেদনটি প্রণয়ন করা হয়েছে। লজিস্টিক সেবার ক্ষেত্রে বাংলাদেশ অন্যতম ছোট অর্থনীতির দেশ বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে। দেশটির যোগাযোগ সক্ষমতা, জাহাজীকরণ, আকাশ ও সড়কপথে যোগাযোগ অবকাঠামোর স্কোর অনেক কম। পাশাপাশি কাস্টমসের ক্ষেত্রেও বেশকিছু সমস্যা রয়েছে। ফলে লজিস্টিক সেবায় দেশটি অনেক কম আকর্ষণীয়। এক্ষেত্রে উদীয়মান দেশগুলোর মধ্যে লজিস্টিক সেবায় সবচেয়ে কম আকর্ষণীয় দেশগুলোর মধ্যে রয়েছে বাংলাদেশ। এদিকে লজিস্টিক সেবায় অবনমনের (মুভার্স ডাউন) দিক থেকে শীর্ষে রয়েছে ভেনিজুয়েলা। এরপর রয়েছে নাইজেরিয়া, ব্রাজিল, কাজাখস্থান ও দক্ষিণ আফ্রিকা। এ তালিকায় ছয় থেকে ১০-এ রয়েছে যথাক্রমে সৌদি আরব, কম্বোডিয়া, কুয়েত, শ্রীলঙ্কা ও অ্যাঙ্গোলা। উল্লেখ্য, লজিস্টিক সেবা একটি দেশের অর্থনীতির জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। এটি এমন একটি অপরিহার্য সেবা, যা আমদানি-রফতানির জন্য একটি দেশের ভেতর পণ্য পরিবহন, গুদামজাতকরণ, মালামাল জাহাজীকরণ, মোড়কীকরণ, নিরাপত্তা, বর্ডার ক্লিয়ারেন্স এবং পেমেন্ট ব্যবস্থার সমন্বয়ে গড়ে ওঠে। এই সেবা সরকারি ও বেসরকারি এজেন্ট দ্বারা পরিচালিত হয়। প্রতিযোগিতাপূর্ণ বিশ্ব লজিস্টিক নেটওয়ার্ক আন্তর্জাতিক বাণিজ্যের মেরুদণ্ড হিসেবে বিবেচিত হয়। কারণ যে দেশের লজিস্টিক সেবার মান যত ভালো, সেই দেশে ব্যবসার খরচ তত কম। সে দেশের অর্থনীতিও তত দ্রুত উন্নতি করছে। প্রতিবেদন অনুযায়ী, লজিস্টিক সেবায় সার্বিকভাবে শীর্ষে আছে চীন, যার স্কোর আট। দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে ভারত, স্কোর সাত দশমিক ১২। সাত দশমিক শূন্য এক পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় সংযুক্ত আরব আমিরাত, ছয় দশমিক ৬৩ পয়েন্ট নিয়ে চতুর্থ মালয়েশিয়া ও ছয় দশমিক ৫০ পয়েন্ট নিয়ে পঞ্চম ইন্দোনেশিয়া।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

E-mail: [email protected], [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter