শেয়ারবাজারে ৩ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ উত্থান

  যুগান্তর রিপোর্ট ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

দরপতনের ধারা থেকে বেরিয়ে দেশের শেয়ারবাজারে রোববার বড় উত্থান হয়েছে। এদিন ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) প্রধান মূল্যসূচক ডিএসইএক্স বেড়েছে ১২৮ পয়েন্ট বা ২ শতাংশের বেশি। ২০১৫ সালের ২৫ মে এরপর এটিই সূচকটির সর্বোচ্চ উত্থান। অর্থাৎ প্রায় তিন বছরের মধ্যে ডিএসইএক্সের সর্বোচ্চ উত্থান হয়েছে। চীনের দুই শেয়ারবাজার ডিএসইর কৌশলগত বিনিয়োগকারী হওয়ার সংবাদ প্রকাশ পাওয়া এবং বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার দুর্নীতি মামলার রায় নিয়ে দেখা দেয়া আতঙ্ক কেটে যাওয়ার কারণে শেয়ারবাজারে এমন বড় উত্থান হয়েছে বলে মনে করছেন বাজার সংশ্লিষ্টরা। গত সপ্তাহেই সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশ পায় ডিএসইর কৌশলগত বিনিয়োগকারী হচ্ছে চীনের দুই শেয়ারবাজার। চীনের দু’টি শেয়ারবাজার কনসোর্টিয়াম করে ডিএসইর ২৫ শতাংশ শেয়ার কিনতে আগ্রহ প্রকাশ করেছে। এর পাশাপাশি তারা ডিএসইকে কারিগরি সহযোগিতা দেয়ারও প্রস্তাব দিয়েছে। এর অর্থ হল ডিএসইর ওপর চীনের শেয়ারবাজার কর্তৃপক্ষের আস্থা আছে। এটি দেশের শেয়ারবাজারের জন্য বিরাট সুসংবাদ। তার বড় ধরনের ইতিবাচক প্রভাব পড়েছে শেয়ারবাজারে। বাজার বিশ্লেষণে দেখা যায়, এদিন প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের পাশাপাশি অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জেও (সিএসই) মূল্যসূচকের উত্থান হয়েছে। উভয় বাজারে লেনদেন হওয়ার বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের দাম বেড়েছে। ডিএসইতে লেনদেন হওয়া ২৯৩টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের দাম বেড়েছে। বিপরীতে কমেছে মাত্র ২৭টির। আর অপরিবর্তিত রয়েছে ১৪টির দাম। বাজারটিতে ৪৫৫ কোটি ৪৫ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ৩০০ কোটি ৬৪ লাখ টাকার শেয়ার। দিনের লেনদেন শেষে ডিএসইর প্রধান মূল্যসূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের তুলনায় ১২৮ পয়েন্ট বেড়ে ৬ হাজার ৯৩ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। ২০১৫ সালের ২৫ মে’র পর একদিনে এটিই ডিএসইএক্সের সর্বোচ্চ উত্থান। ২০১৫ সালের ২৫ মে ডিএসইএক্স বেড়েছিল ১৩০ পয়েন্ট। অপর দু’টি মূল্যসূচকের মধ্যে ডিএসই-৩০ আগের দিনের তুলনায় দশমিক ৩০ পয়েন্ট বেড়ে ২ হাজার ২৫৫ পয়েন্টে অবস্থান করছে।

 

 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
.