বেসরকারি খাতে ঋণপ্রবাহ কমেছে

  যুগান্তর রিপোর্ট ০৩ জুন ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ক্রমাগতভাবে কমছে বেসরকারি খাতের ঋণ প্রবৃদ্ধি। বাংলাদেশ ব্যাংকের সর্বশেষ হিসাব অনুযায়ী, চলতি বছরের জানুয়ারিতে বেসরকারি খাতে ঋণ প্রবৃদ্ধি ছিল ১৩ দশমিক ২০ শতাংশ। এরপর ফেব্রুয়ারিতে তা কিছুটা কমে ১২ দশমিক ৫৪ শতাংশে নেমে আসে। মার্চে আরও কমে হয় ১২ দশমিক ৪২ শতাংশ এবং সর্বশেষ এপ্রিলে খাতটিতে ঋণ বিতরণ বেশ খানিকটা কমে ১২ দশমিক ০৭ শতাংশে দাঁড়িয়েছে। এটি মুদ্রানীতি অনুযায়ী এ খাতে ঋণ বিতরণের নির্ধারিত লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ৪ দশমিক ৪৩ শতাংশ কম। যা গত ৫৬ মাসের মধ্যেও সর্বনিম্ন। ছয় মাসে ঋণ বিতরণের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে ১৬ দশমিক ৫০ শতাংশ। বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য অনুযায়ী, এপ্রিলে বেসরকারি খাতে ঋণ বিতরণ হয়েছে ১২ দশমিক ০৭ শতাংশ। অথচ এক মাস আগেও এ প্রবৃদ্ধি ছিল ১২ দশমিক ৪২ শতাংশ। অর্থাৎ ধারাবাহিকভাবে এ প্রবৃদ্ধি নিম্নমুখী। বিশ্লেষকদের মতে, ব্যাংকিং খাতের চলমান তরল্য সংকটের কারণে এ সমস্যা তৈরি হয়েছে। এটা বেশি দিন চলতে থাকলে অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি কমে যাবে।

২০১৮-১৯ অর্থবছরের দ্বিতীয় মুদ্রানীতিতে বেসরকারি খাতের ঋণ প্রবৃদ্ধি নির্ধারণ করা হয়েছে ১৬ দশমিক ৫০ শতাংশ। কিন্তু ৪ মাস অতিক্রম হওয়ার পরেও কোনো মাসেই অর্জন হয়নি সেই লক্ষ্যমাত্রা। জানুয়ারি, ফেব্রুয়ারি, মার্চ ও এপ্রিলে বিতরণ হয়েছে লক্ষ্যমাত্রার অনেক নিচে। এমনকি গত দুই অর্থবছর ধরেই এ ঋণের অর্জন ছিল ১৬ থেকে ১৮ শতাংশের ভেতরে। অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ধরে রাখতে এ ঋণ আরও বাড়াতে হবে বলে মত অর্থনীতিবিদদের।

বর্তমান তারল্য সংকট এবং ঋণের উচ্চ সুদ হারের কারণে অনেক স্থানীয় ব্যবসায়ী বিদেশি ঋণদাতাদের কাছ থেকে ঋণ গ্রহণ করছে। কিন্তু এ ঋণ আমাদের দেশের অর্থনীতির জন্য ঝুঁকিপূর্ণ। একটি দেশের অর্থনীতি অদূর ভবিষ্যতে কোনো দিকে যেতে পারে তা নির্দেশ করে বেসরকারি খাতের সম্প্রসারণ। কারণ পরবর্তীতে এটা মোট দেশজ উৎপাদন বা জিডিপিতে যোগ হয়। তাই এ খাতের গুরুত্ব বিবেচনায় নিয়ে কার্যকরী উদ্যোগ নেয়া দরকার।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×