অনলাইন লেনদেনের সীমা নির্ধারণ

  যুগান্তর রিপোর্ট ২৪ জুলাই ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

লেনদেন

ই-ওয়ালেট বা অনলাইনে লেনদেনের সীমা নির্ধারণ করে দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এখন থেকে এই সীমার বেশি লেনদেন করা যাবে না। অনলাইনে লেনদেনের মাধ্যমে ঝুঁকি এড়াতে এই পদক্ষেপ নিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

এ বিষয়ে মঙ্গলবার কেন্দ্রীয় ব্যাংক থেকে একটি সার্কুলার জারি করে ব্যাংকগুলোর প্রধান নির্বাহীদের কাঠে পাঠানো হয়েছে।

বিশেষ করে যেসব ব্যাংক পেমেন্ট সার্ভিস প্রোভাইডার হিসেবে কাজ করে সেসব ব্যাংকে এটি পাঠানো হয়েছে। ই-ওয়ালেট হচ্ছে অনলাইনে লেনেদেনের এক ধরনের অ্যাপস বা সফটওয়্যার। যে ব্যাংকের গ্রাহকের হিসাবের বিপরীতে যদি কোনো ডেবিট বা ক্রেডিট কার্ড থাকে তাহলে ওই কার্ডের মাধ্যমে ব্যাংকগুলোর ব্যবহৃত বিভিন্ন ধরনের অ্যাপসে হিসাব খুলে ই-ওয়ালেটের মাধ্যমে অনলাইনে লেনদেন করা যায়।

বর্তমানে বাংলাদেশ ব্যাংক চাচ্ছে নগদ লেনদেন কমাতে। এতে নগদ টাকার চাহিদা কমবে। জাল টাকার ঝুঁকি কমবে। এ কারণেই অনলাইনভিত্তিক লেনদেন উৎসাহিত করা হচ্ছে। ব্যক্তি ই-ওয়ালেটের হিসাবের মাধ্যমে লেনদেনের সর্বোচ্চ সীমার মধ্যে ব্যক্তি হিসেবে ৪ লাখ টাকা, জমার মধ্যে দৈনিক ১ লাখ টাকা এবং মাসিক ৪ লাখ টাকা।

ই-ওয়ালেট হিসাব হতে স্থানান্তর (ব্যাংক হিসাবে/পারসুন টু পারসন) দৈনিক ১ লাখ টাকা এবং মাসিক ৪ লাখ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। ব্যক্তি হিসেবের মাধ্যমে অন্যান্য লেনদেনের (পারসন টু পারসন, বিজনেস টু পারসন, বিজনেস টু বিজনেস) এবং অ-ব্যক্তি হিসাবের জন্য লেনদেনের এই ঊর্ধ্ব সীমা প্রযোজ্য হবে না।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×