ঊর্ধ্বমুখী রেখে ঈদের ছুটিতে শেয়ারবাজার

  যুগান্তর রিপোর্ট ০৯ আগস্ট ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

শেয়ারবাজার

পবিত্র ঈদুল আজহার আগে শেষ কার্যদিবসে সূচকের উত্থানে শেষ হয়েছে দেশের দুই শেয়ারবাজারের লেনদেন। বৃহস্পতিবার লেনদেন শেষে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) প্রধান সূচক ডিএসইএক্স বেড়েছে ১৪ পয়েন্ট।

অন্যদিকে, চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সার্বিক সূচক (সিএএসপিআই) বেড়েছে ৪৪ পয়েন্ট।

ঈদুল আজহা উপলক্ষে ৯ থেকে ১৭ আগস্ট পর্যন্ত টানা ৯ দিন শেয়ারবাজারে লেনদেন বন্ধ থাকবে। ১২ আগস্ট ঈদুল আজহা পালিত হবে। এ কারণে সরকারিভাবে ১১, ১২ ও ১৩ আগস্ট অর্থাৎ রবি, সোম ও মঙ্গলবার ছুটি থাকবে।

এর আগের শুক্র ও শনিবার (৯ ও ১০ আগস্ট) দু’দিন সাপ্তাহিক ছুটি। আর ঈদের সাধারণ ছুটি শেষ হওয়ার পর ১৪ আগস্ট (বুধবার) অফিস খোলা।

তবে এদিন শেয়ারবাজারে লেনদেন না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ডিএসইর পর্ষদ। পরদিন ১৫ আগস্ট (বৃহস্পতিবার) জাতীয় শোক দিবসের ছুটি। শোক দিবসের ছুটির পর ১৬ ও ১৭ (শুক্র ও শনিবার) দু’দিন সাপ্তাহিক ছুটির কারণে শেয়ারবাজারে লেনদেন বন্ধ থাকবে। টানা ৯ দিন লেনদেন বন্ধ থাকার পর আগামী ১৮ আগস্ট শেয়ারবাজারে আবার লেনদেন শুরু হবে।

এদিন লেনদেন শেষে ডিএসইএক্স আগের কার্যদিবসের তুলনায় ১৪ পয়েন্ট বেড়ে ৫ হাজার ২০১ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। প্রধান মূল্যসূচকের মতো ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের অপর দুই মূল্যসূচকও ঊর্ধ্বমুখিতার দেখা পেয়েছে। এর মধ্যে ডিএসইর-৩০ সূচক দশমিক ৭৫ পয়েন্ট বেড়ে এক হাজার ৮৩৭ পয়েন্টে উঠে এসেছে। আর ডিএসই শরিয়াহ সূচক দুই পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে এক হাজার ১৯২ পয়েন্টে।

মূল্যসূচকের পাশাপাশি বেড়েছে বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম। ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেয়া ২২৮ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বেড়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে ৬৩টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৬১টির দাম।

এদিকে মূল্যসূচক ও বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের দাম বাড়লেও ডিএসইতে কমেছে লেনদেনের পরিমাণ। দিনভর বাজারে লেনদেন হয়েছে ৪১০ কোটি ৫৬ লাখ টাকা। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয় ৪৪৯ কোটি চার লাখ টাকা। সে হিসাবে লেনদেন বেড়েছে ৩৮ কোটি ৪৮ লাখ টাকা।

এদিন বাজারে টাকার পরিমাণে সব থেকে বেশি লেনদেন হয়েছে ইউনাইটেড পাওয়ার জেনারেশনের শেয়ার। কোম্পানিটির ২৭ কোটি ৩০ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। দ্বিতীয় স্থানে থাকা খুলনা পাওয়ার কোম্পানির ১৫ কোটি ৪৩ লাখ টাকার লেনদেন হয়েছে। ১০ কোটি ৪৬ লাখ টাকার লেনদেনের মাধ্যমে তৃতীয় স্থানে উঠে এসেছে জেএমআই সিরিঞ্জ।

এ ছাড়া লেনদেনের শীর্ষ ১০ কোম্পানির মধ্যে রয়েছে- গ্রামীণফোন, ফরচুন সুজ, বাংলাদেশ শিপিং কর্পোরেশন, মুন্নু সিরামিক, বঙ্গজ, বাংলাদেশ সাবমেরিন ক্যাবলস এবং স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস।

অন্যদিকে, চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ৪৪ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৫ হাজার ৮৯৬ পয়েন্টে। বাজারে লেনদেন হয়েছে ১৬ কোটি ৮১ লাখ টাকা। লেনদেনে অংশ নেয়া ২৫৭ প্রতিষ্ঠানের মধ্যে দাম বেড়েছে ১৪৪টির, কমেছে ৭৪টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৯টির।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×