সঞ্চয়পত্র বিক্রি ৯০ হাজার কোটি টাকা

  যুগান্তর রিপোর্ট ২২ আগস্ট ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

সঞ্চয়পত্র

সঞ্চয়পত্র বিক্রি ৯০ হাজার কোটি টাকা ছাড়িয়েছে। এই অঙ্ক আগের বছরের চেয়ে প্রায় ১৫ শতাংশ বেশি। জাতীয় সঞ্চয় অধিদফতরের সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, গত ২০১৮-১৯ অর্থবছরে সব মিলিয়ে ৯০ হাজার ২৮০ কোটি টাকার সঞ্চয়পত্র বিক্রি হয়েছে।

এর মধ্যে আগে বিক্রি হওয়া সঞ্চয়পত্রের মেয়াদ পূর্তির কারণে আসল এবং সুদ পরিশোধ করা হয়েছে ৪০ হাজার ৩৪১ কোটি টাকা। সে হিসাবে নিট বিক্রির পরিমাণ ৪৯ হাজার ৯৩৯ কোটি ৪৮ লাখ টাকা। আগে বিক্রি হওয়া সঞ্চয়পত্রের সুদ-আসল পরিশোধের পর যা অবশিষ্ট থাকে, তাকে বলা হয় নিট বিক্রি। ওই অর্থ সরকারের কোষাগারে জমা থাকে এবং সরকার তা রাষ্ট্রীয় কর্মসূচি বাস্তবায়নে কাজে লাগায়।

বিনিময়ে সঞ্চয়পত্রের গ্রাহকদের প্রতি মাসে সুদ দিতে হয়। এ কারণে অর্থনীতির পরিভাষায় সঞ্চয়পত্রের নিট বিক্রিকে সরকারের ‘ঋণ’ বা ‘ধার’ হিসেবে গণ্য করা হয়। সঞ্চয়পত্রকে সরকার প্রতিবছরই বাজেটের ঘাটতি অর্থায়ন পূরণের অন্যতম উপায় হিসেবে বিবেচনা করে। গত ২০১৮-১৯ অর্থবছরে সঞ্চয়পত্র বিক্রি থেকে ২৬ হাজার ১৯৭ কোটি টাকা ঋণ নেয়ার লক্ষ্য থাকলেও বিক্রি বেড়ে যাওয়ায় পরে তা বাড়িয়ে ৪৫ হাজার কোটি টাকা করা হয়। কিন্তু অর্থবছর শেষে দেখা যায়, সেই ধার প্রায় ৫০ হাজার কোটি টাকায় গিয়ে ঠেকেছে। ২০১৯-২০ অর্থবছরের বাজেটে সঞ্চয়পত্র থেকে ২৭ হাজার কোটি টাকা ঋণ নেয়ার লক্ষ্য ধরেছে সরকার। এবার সঞ্চয়পত্র থেকে ঋণের লক্ষ্য কম ধরা হয়েছে। তবে ব্যাংক থেকে ধার করার লক্ষ্যমাত্রা বেশ বাড়ানো হয়েছে। ২০১৮-১৯ অর্থবছরের ব্যাংক খাত থেকে সরকারের ঋণের লক্ষ্য ধরা হয়েছিল ৪২ হাজার ২৯ কোটি টাকা।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×