মুকেশ আম্বানির জোড়া অধিগ্রহণ
jugantor
মুকেশ আম্বানির জোড়া অধিগ্রহণ

   

১৬ অক্টোবর ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

একই দিনে অপ্রচলিত শক্তি খাতের দুই কোম্পানি অধিগ্রহণ করল মুকেশ আম্বানি। এতে তার সংস্থা খরচ করছে প্রায় ৮ হাজার ৬৪৫ কোটি রুপি। ঋণ কমাতে সৌর বিদ্যুৎ সংস্থা স্টারলিং অ্যান্ড উইলসন সোলারে নিজেদের ৪০ শতাংশ শেয়ার রিলায়্যান্স ইন্ডাস্ট্রিজকে বিক্রি করতে যাচ্ছে শাপুরজি পালোনজি (এমপি) গোষ্ঠী। একাধিক দফায় হতে যাওয়া লেনদেনের মোট অঙ্ক ২ হাজার ৮৪৫ কোটি রুপি। মাসখানেক আগে ইউরেকা ফোর্বসেও নিজেদের শেয়ার বিক্রি করেছে এসপি গোষ্ঠী। এ সংক্রান্ত ঘোষণার কয়েক ঘণ্টা আগে রিলায়্যান্স ইন্ডাস্ট্রিজ রোববার রাতে জানায়, নরওয়ের সৌর বিদ্যুৎ সংস্থা আরইসি সোলারকে অধিগ্রহণ করতে যাচ্ছে তাদের শাখা সংস্থা রিলায়্যান্স নিউ এনার্জি সোলার। এতে খরচ হচ্ছে ৭৭ দশমিক ১ কোটি ডলার বা ৫ হাজার ৮০০ কোটি রুপি। স্টারলিং শাপুরজি গোষ্ঠী এবং খুরশিদ ইয়াজদি দারুওয়ালা পরিবারের যৌথ উদ্যোগ। ফলে তার অংশীদারি বিক্রির জন্য বহুপাক্ষিক চুক্তি হয়েছে। আদানি পাওয়ারসহ বহু সংস্থাই স্টারলিংয়ের অংশীদারি কেনার দৌড়ে ছিল। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, জোড়া অধিগ্রহণের ফলে ২০৩০ সালের মধ্যে রিলায়্যান্স ইন্ডাস্ট্রিজের ১০০ গিগাওয়াট সৌর বিদ্যুৎ উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ছোঁয়া সহজ হবে। যুগান্তর ডেস্ক।

মুকেশ আম্বানির জোড়া অধিগ্রহণ

  
১৬ অক্টোবর ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

একই দিনে অপ্রচলিত শক্তি খাতের দুই কোম্পানি অধিগ্রহণ করল মুকেশ আম্বানি। এতে তার সংস্থা খরচ করছে প্রায় ৮ হাজার ৬৪৫ কোটি রুপি। ঋণ কমাতে সৌর বিদ্যুৎ সংস্থা স্টারলিং অ্যান্ড উইলসন সোলারে নিজেদের ৪০ শতাংশ শেয়ার রিলায়্যান্স ইন্ডাস্ট্রিজকে বিক্রি করতে যাচ্ছে শাপুরজি পালোনজি (এমপি) গোষ্ঠী। একাধিক দফায় হতে যাওয়া লেনদেনের মোট অঙ্ক ২ হাজার ৮৪৫ কোটি রুপি। মাসখানেক আগে ইউরেকা ফোর্বসেও নিজেদের শেয়ার বিক্রি করেছে এসপি গোষ্ঠী। এ সংক্রান্ত ঘোষণার কয়েক ঘণ্টা আগে রিলায়্যান্স ইন্ডাস্ট্রিজ রোববার রাতে জানায়, নরওয়ের সৌর বিদ্যুৎ সংস্থা আরইসি সোলারকে অধিগ্রহণ করতে যাচ্ছে তাদের শাখা সংস্থা রিলায়্যান্স নিউ এনার্জি সোলার। এতে খরচ হচ্ছে ৭৭ দশমিক ১ কোটি ডলার বা ৫ হাজার ৮০০ কোটি রুপি। স্টারলিং শাপুরজি গোষ্ঠী এবং খুরশিদ ইয়াজদি দারুওয়ালা পরিবারের যৌথ উদ্যোগ। ফলে তার অংশীদারি বিক্রির জন্য বহুপাক্ষিক চুক্তি হয়েছে। আদানি পাওয়ারসহ বহু সংস্থাই স্টারলিংয়ের অংশীদারি কেনার দৌড়ে ছিল। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, জোড়া অধিগ্রহণের ফলে ২০৩০ সালের মধ্যে রিলায়্যান্স ইন্ডাস্ট্রিজের ১০০ গিগাওয়াট সৌর বিদ্যুৎ উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ছোঁয়া সহজ হবে। যুগান্তর ডেস্ক।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন