অর্থনীতি নিয়ে আইএমএফের উদ্বেগ
jugantor
মোদি আত্মবিশ্বাসী
অর্থনীতি নিয়ে আইএমএফের উদ্বেগ

  যুগান্তর ডেস্ক  

১৭ অক্টোবর ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

করোনার একের পর এক ধাক্কা কাটিয়ে ভারতসহ পুরো বিশ্ব যখন অর্থনীতির পুনরুজ্জীবনের আশায় রয়েছে, সেই সময় ভারত নিয়ে সংশয়ের বার্তা দিল আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল (আইএমএফ)। অতিমারির বিরূপ প্রভাব বহাল থাকা এবং চড়া মূল্যবৃদ্ধির হার সেই পথে সংশয় বাড়াচ্ছে বলেই সংস্থাটি জানিয়েছে। একই সঙ্গে আইএমএফ স্পষ্ট বলেছে, অতিমারি আর্থিক বৈষম্য ও দারিদ্র্য বেড়েছে। তবে আন্তর্জাতিক আর্থিক সংস্থাটির এ হুঁশিয়রির মুখে দাঁড়িয়েও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং তার অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন ফের দাবি করেছেন, ভারতের অর্থনীতি দ্রুত ঘুরে দাঁড়াচ্ছে। তারা বলেছেন, কঠিন সময়ের মোকাবিলা করে ভারত বিশ্বের দ্রুততম আর্থিক বৃদ্ধির দেশ হওয়ার পথেও আবার পা রেখেছে। উদাহরণ হিসাবে এপ্রিল-জুনে উচ্চ প্রবৃদ্ধির (২০.১ শতাংশ) পরিসংখ্যান তুলে ধরছেন নির্মলা। বিরোধীরা অবশ্য আগেই প্রশ্ন তুলেছে, গত বছর ওই সময় প্রায় ২৪ শতাংশ সঙ্কোচনের নিচু ভিতের তুলনায় এবারের উচ্চ প্রবৃদ্ধি আশাব্যঞ্জক নয়। আইএমএফ তাদের বার্ষিক সম্মেলনের শেষে অতিমারির মোকাবিলায় টিকা প্রয়োগের নিরিখে উন্নত ও দরিদ্র দেশগুলোর মধ্যে বিস্তর ফারাকের প্রশ্নেও অর্থনীতির পুনরুজ্জীবনের গতি নিয়ে সংশয়ী। তাদের দাবি, ভাইরাসের নতুন নতুন ধরন অনিশ্চয়তা ও ঝুঁকি বাড়িয়েছে। বাড়িয়েছে দারিদ্র্য ও আর্থিক বৈষম্য।

মোদি আত্মবিশ্বাসী

অর্থনীতি নিয়ে আইএমএফের উদ্বেগ

 যুগান্তর ডেস্ক 
১৭ অক্টোবর ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

করোনার একের পর এক ধাক্কা কাটিয়ে ভারতসহ পুরো বিশ্ব যখন অর্থনীতির পুনরুজ্জীবনের আশায় রয়েছে, সেই সময় ভারত নিয়ে সংশয়ের বার্তা দিল আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল (আইএমএফ)। অতিমারির বিরূপ প্রভাব বহাল থাকা এবং চড়া মূল্যবৃদ্ধির হার সেই পথে সংশয় বাড়াচ্ছে বলেই সংস্থাটি জানিয়েছে। একই সঙ্গে আইএমএফ স্পষ্ট বলেছে, অতিমারি আর্থিক বৈষম্য ও দারিদ্র্য বেড়েছে। তবে আন্তর্জাতিক আর্থিক সংস্থাটির এ হুঁশিয়রির মুখে দাঁড়িয়েও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং তার অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন ফের দাবি করেছেন, ভারতের অর্থনীতি দ্রুত ঘুরে দাঁড়াচ্ছে। তারা বলেছেন, কঠিন সময়ের মোকাবিলা করে ভারত বিশ্বের দ্রুততম আর্থিক বৃদ্ধির দেশ হওয়ার পথেও আবার পা রেখেছে। উদাহরণ হিসাবে এপ্রিল-জুনে উচ্চ প্রবৃদ্ধির (২০.১ শতাংশ) পরিসংখ্যান তুলে ধরছেন নির্মলা। বিরোধীরা অবশ্য আগেই প্রশ্ন তুলেছে, গত বছর ওই সময় প্রায় ২৪ শতাংশ সঙ্কোচনের নিচু ভিতের তুলনায় এবারের উচ্চ প্রবৃদ্ধি আশাব্যঞ্জক নয়। আইএমএফ তাদের বার্ষিক সম্মেলনের শেষে অতিমারির মোকাবিলায় টিকা প্রয়োগের নিরিখে উন্নত ও দরিদ্র দেশগুলোর মধ্যে বিস্তর ফারাকের প্রশ্নেও অর্থনীতির পুনরুজ্জীবনের গতি নিয়ে সংশয়ী। তাদের দাবি, ভাইরাসের নতুন নতুন ধরন অনিশ্চয়তা ও ঝুঁকি বাড়িয়েছে। বাড়িয়েছে দারিদ্র্য ও আর্থিক বৈষম্য।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন