যুক্তরাষ্ট্র, চীনসহ ৬৭ দেশের ঐতিহাসিক বাণিজ্য চুক্তি
jugantor
যুক্তরাষ্ট্র, চীনসহ ৬৭ দেশের ঐতিহাসিক বাণিজ্য চুক্তি

   

০৪ ডিসেম্বর ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, চীন, ইউরোপীয় ইউনিয়নসহ (ইইউ) ৬৭টি দেশ বৃহস্পতিবার বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থায় (ডব্লিউটিও) পরিষেবা বাণিজ্যের সুবিধার্থে একটি ঐতিহাসিক চুক্তিতে পৌঁছেছে। চার বছরের আলোচনার পর দেশগুলো এই চুক্তি সম্পন্ন করেছে।

চুক্তিতে স্বাক্ষরকারী দেশগুলো ডব্লিউটিও মোট সদস্যদের এক-তৃতীয়াংশ হলেও বিশ্ব বাণিজ্যের ৯০ শতাংশ তাদের দখলে। ডব্লিউটিও প্রধান এনগোজি ওকোনজো-ইওয়েলা চুক্তিটিকে ‘ঐতিহাসিক’ হিসাবে উল্লেখ করে স্বাগত জানিয়েছেন। তিনি বলেন, এ চুক্তির মাধ্যমে প্রতিবছর ১৫০ বিলিয়ন ডলারের মতো পরিষেবা বাণিজ্যের সঙ্গে যুক্ত খরচ কমবে।

ডব্লিউটিওর ১৬৪ সদস্যের মধ্যে বহুপাক্ষিক এই বাণিজ্য চুক্তি সম্পন্ন করতে দীর্ঘ সময় আলোচনা করে ব্যর্থ হয়েছে। অবশেষে অল্প সংখ্যক দেশ ক্রমবর্ধমানভাবে অভ্যন্তরীণ পরিষেবা নিয়ন্ত্রণসহ বিভিন্ন খাতে এগিয়ে যাওয়ার জন্য বহুপাক্ষিক আলোচনার মাধ্যমে চুক্তিটি সম্পন্ন করেছে।

ওয়াশিংটন একটি বিবৃতিতে বৃহস্পতিবারের চুক্তিকে স্বাগত জানিয়ে বলেছে, এটি বিস্তৃত ক্ষেত্রগুলোতে পেশাদার ও সংস্থাগুলোর পরিষেবা প্রদানের জন্য অনুমোদন পাওয়ার প্রক্রিয়া স্বচ্ছতা এবং ন্যায্যতাকে উন্নত করবে। এই উদ্যোগটি কয়েক বছরের মধ্যে প্রথম সফল বাণিজ্য পরিষেবা আলোচনার মাধ্যমে সম্পন্ন হয়েছে। কীভাবে ডব্লিউটিওর সদস্যরা স্পষ্টভাবে সংজ্ঞায়িত বাণিজ্য সমস্যাগুলো মোকাবিলায় ব্যবহারিক, সাধারণ জ্ঞানের পদক্ষেপ নিতে পারে, তার পথ দেখাবে। ইইউ বাণিজ্য কমিশনার ভালদিস ডোমব্রোভস্কিসও চুক্তিকে স্বাগত জানিয়ে এক টুইট বার্তায় বলেছেন, এটি পরিষেবা বাণিজ্যে লাল ফিতা কেটে দেবে। যুগান্তর ডেস্ক

যুক্তরাষ্ট্র, চীনসহ ৬৭ দেশের ঐতিহাসিক বাণিজ্য চুক্তি

  
০৪ ডিসেম্বর ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, চীন, ইউরোপীয় ইউনিয়নসহ (ইইউ) ৬৭টি দেশ বৃহস্পতিবার বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থায় (ডব্লিউটিও) পরিষেবা বাণিজ্যের সুবিধার্থে একটি ঐতিহাসিক চুক্তিতে পৌঁছেছে। চার বছরের আলোচনার পর দেশগুলো এই চুক্তি সম্পন্ন করেছে।

চুক্তিতে স্বাক্ষরকারী দেশগুলো ডব্লিউটিও মোট সদস্যদের এক-তৃতীয়াংশ হলেও বিশ্ব বাণিজ্যের ৯০ শতাংশ তাদের দখলে। ডব্লিউটিও প্রধান এনগোজি ওকোনজো-ইওয়েলা চুক্তিটিকে ‘ঐতিহাসিক’ হিসাবে উল্লেখ করে স্বাগত জানিয়েছেন। তিনি বলেন, এ চুক্তির মাধ্যমে প্রতিবছর ১৫০ বিলিয়ন ডলারের মতো পরিষেবা বাণিজ্যের সঙ্গে যুক্ত খরচ কমবে।

ডব্লিউটিওর ১৬৪ সদস্যের মধ্যে বহুপাক্ষিক এই বাণিজ্য চুক্তি সম্পন্ন করতে দীর্ঘ সময় আলোচনা করে ব্যর্থ হয়েছে। অবশেষে অল্প সংখ্যক দেশ ক্রমবর্ধমানভাবে অভ্যন্তরীণ পরিষেবা নিয়ন্ত্রণসহ বিভিন্ন খাতে এগিয়ে যাওয়ার জন্য বহুপাক্ষিক আলোচনার মাধ্যমে চুক্তিটি সম্পন্ন করেছে।

ওয়াশিংটন একটি বিবৃতিতে বৃহস্পতিবারের চুক্তিকে স্বাগত জানিয়ে বলেছে, এটি বিস্তৃত ক্ষেত্রগুলোতে পেশাদার ও সংস্থাগুলোর পরিষেবা প্রদানের জন্য অনুমোদন পাওয়ার প্রক্রিয়া স্বচ্ছতা এবং ন্যায্যতাকে উন্নত করবে। এই উদ্যোগটি কয়েক বছরের মধ্যে প্রথম সফল বাণিজ্য পরিষেবা আলোচনার মাধ্যমে সম্পন্ন হয়েছে। কীভাবে ডব্লিউটিওর সদস্যরা স্পষ্টভাবে সংজ্ঞায়িত বাণিজ্য সমস্যাগুলো মোকাবিলায় ব্যবহারিক, সাধারণ জ্ঞানের পদক্ষেপ নিতে পারে, তার পথ দেখাবে। ইইউ বাণিজ্য কমিশনার ভালদিস ডোমব্রোভস্কিসও চুক্তিকে স্বাগত জানিয়ে এক টুইট বার্তায় বলেছেন, এটি পরিষেবা বাণিজ্যে লাল ফিতা কেটে দেবে। যুগান্তর ডেস্ক

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন