শেয়ারবাজারে হাজার কোটি টাকা লেনদেন

প্রকাশ : ১৬ জুলাই ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

  যুগান্তর রিপোর্ট

শেয়ারবাজারে লেনদেন বেড়েছে। রোববার দেশের দুই শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) এবং চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জ (সিএসই) মিলে ১ হাজার ৪ কোটি টাকা লেনদেন হয়েছে।

এর মধ্যে ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৯৫৫ কোটি টাকা এবং সিএসইতে ৪৯ কোটি টাকা। এছাড়া উভয় শেয়ারবাজারে এদিন বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ারের দাম কমেছে।

ফলে দিনশেষে কমেছে মূল্যসূচক ও বাজারমূলধন। এর মধ্যে ডিএসইর সূচক কমেছে ২২ পয়েন্ট এবং সিএসইর সূচক কমেছে ৬১ পয়েন্ট।

বিশ্লেষণে দেখা গেছে, ডিএসইতে রোববার ৩৩৯টি কোম্পানির ২১ কোটি ২৪ লাখ শেয়ার লেনদেন হয়েছে, যার মোট মূল্য ৯৫৫ কোটি ৩৯ লাখ টাকা।

এর মধ্যে দাম বেড়েছে ১০৯টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের, কমেছে ২০৭টি এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২৩টি কোম্পানির শেয়ারের দাম। ডিএসইর ব্রডসূচক আগের দিনের চেয়ে ২২ দশমিক ১৬ পয়েন্ট কমে ৫ হাজার ৩৩৬ দশমিক ৭৫ পয়েন্টে নেমে এসেছে।

ডিএসই-৩০ মূল্যসূচক ১১ দশমিক ৬১ পয়েন্ট কমে ১ হাজার ৮৯৫ দশমিক ১৬ পয়েন্টে নেমে এসেছে। ডিএসই শরিয়াহ সূচক ১ দশমিক ৫২ পয়েন্ট কমে ১ হাজার ২৬৫ দশমিক ৮৬ পয়েন্টে নেমে এসেছে। ডিএসইর বাজারমূলধন আগের দিনের চেয়ে কমে ৩ লাখ ৮৫ হাজার কোটি টাকায় নেমে এসেছে।

সিএসই : চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে রোববার ২৫৩টি প্রতিষ্ঠানের ১ কোটি ৩৬ লাখ শেয়ার লেনদেন হয়েছে, যার মোট মূল্য ৪৯ কোটি ৪৬ লাখ টাকা। এর মধ্যে দাম বেড়েছে ৯৪টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের, কমেছে ১৪৪টি এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ১৫টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের দাম।

সিএসইর সার্বিক মূল্যসূচক আগের দিনের চেয়ে ৬১ পয়েন্ট কমে ১৬ হাজার ৪৫২ পয়েন্টে নেমে এসেছে। সিএসই ৩০ মূল্যসূচক আগের দিনের চেয়ে ৮ পয়েন্ট বেড়ে ১৪ হাজার ৭১৮ পয়েন্টে নেমে এসেছে।

শীর্ষ ১০ কোম্পানি : রোববার ডিএসইতে যেসব প্রতিষ্ঠানের শেয়ার বেশি লেনদেন হয়েছে সেগুলো হল- বিবিএস ক্যাবলস, ইউনাইটেড পাওয়ার, এসকে ট্রিমস, ডরিন পাওয়ার, সিঙ্গার বিডি, প্যারামাউন্ট টেক্সটাইল, বসুন্ধরা পেপার মিলস, শাহজিবাজার পাওয়ার, খুলনা পাওয়ার এবং সায়হাম টেক্সটাইল।