কাস্টমসে রাসায়নিক পরীক্ষায় নতুন যন্ত্র

প্রকাশ : ০৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

  যুগান্তর রিপোর্ট

এখন থেকে ইলেকট্রিক ডিভাইসের মাধ্যমে চট্টগ্রাম, বেনাপোল ও ঢাকা কাস্টম হাউসে রাসায়নিক পরীক্ষা করা হবে। ‘রামান স্পেকটোমিটার’ নামের এ যন্ত্রের সাহায্যে ৩০ সেকেন্ডের মাধ্যমে প্রায় ১২ হাজার রাসায়নিকের নমুনা পরীক্ষা করা যাবে। এতে ব্যবসায়ীদের হয়রানি কমবে।

জানা গেছে, কাস্টমস আধুনিকায়নের অংশ হিসেবে ওয়ার্ল্ড কাস্টমস অর্গানাইজেশনের (ডব্লিউসিও) সিকিউরিটি প্রজেক্ট এই ডিভাইস বাংলাদেশ সরকারকে অনুদান হিসেবে দিয়েছে।

প্রাথমিকভাবে বড় ৩টি কাস্টম হাউসে এটি ব্যবহার করা হবে। পরবর্তীকালে বাকি শুল্ক ভবন ও স্টেশনে দেয়া হবে। মঙ্গলবার জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া চট্টগ্রাম, বেনাপোল ও ঢাকা কাস্টমসের কমিশনারদের হাতে ডিভাইসটি তুলে দেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন কাস্টমসের সদস্য খন্দকার আমিনুর রহমান।

সূত্র জানায়, প্রায় দেড় কেজি ওজনের স্পেকটোমিটারটি মাত্র ৩০ সেকেন্ডের মধ্যে প্রায় ১২ হাজার কেমিক্যালের নমুনা তাৎক্ষণিক শনাক্ত করতে পারবে এবং নিখুঁতভাবে রিপোর্ট প্রদান করতে সক্ষম। ফলে মিথ্যা ঘোষণায় নিষিদ্ধ ও ক্ষতিকর কেমিক্যাল আমদানির প্রবণতা হ্রাস পাবে। এতে সরকারের রাজস্ব বাড়বে।

এনবিআরের ঊর্ধ্বতন এক কর্মকর্তা বলেন, ডিভাইসের মাধ্যমে স্বল্প সময়ে সঠিক রিপোর্ট পাওয়া যাবে। এতে সৎ ব্যবসায়ীরা উপকৃত হবেন। বর্তমানে অধিকাংশ ক্ষেত্রে রিপোর্ট পেতে সময়ক্ষেপণ ও এর সঠিকতা নিয়ে প্রশ্ন ওঠায় হয়রানি বাড়ে। অন্যদিকে রাষ্ট্রীয় নিরাপত্তায় ঝুঁকির বিষয়টি অধিকতর আমলে আসবে।