সরকারের সব সেবা স্মার্টফোনের মাধ্যমেই : মোস্তাফা জব্বার

  সাইফ আহমাদ ১২ জানুয়ারি ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার
বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে স্মার্টফোন ও ট্যাব মেলা উদ্বোধনকালে ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার

স্মার্টফোন নতুন জীবনযাত্রায় নিয়ে যাবে সবাইকে। খুব বেশি দেরি নয়, যখন সরকারের সব সেবা হবে স্মার্টফোন কেন্দ্রিক।

সরকার স্মার্টফোনের মাধ্যমে সরকারি সব সেবা জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দেয়ার উদ্যোগ নিয়েছে বলে জানিয়েছেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার।

১০ জানুয়ারি বিকালে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে স্মার্টফোন ও ট্যাব মেলা উদ্বোধনকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

মোস্তাফা জব্বার বলেন, ‘আমি আমার দ্বিতীয় মেয়াদের সময়কালের মধ্যেই ডাক, টেলিযোগাযোগ ডিজিটালাইজড করব। সরকারের সব ধরনের সেবা স্মার্টফোনের মাধ্যমে দেয়ার প্রচেষ্টা থাকবে। সরকার চায় ফোনের মাধ্যমে সরকারি সেবা ঘরে ঘরে পৌঁছে দিতে।’

আগামী কয়েক বছরের মধ্যে সরকার বেশ কিছু পদক্ষেপ নেবে। আর যেগুলোর প্রধান ধাপই হচ্ছে আইসিটি। ডাকঘর নিয়েও আমাদের চিন্তা আছে। সেগুলো ডিজিটাল করার। সে ক্ষেত্রে যারা কাজ করবে তাদের প্রশিক্ষণ দেয়া হবে এবং তাদের দিয়েই পরিচালনা করা হবে।

এসবের সবকিছুতেই ব্যবহার হবে স্মার্টফোন। প্রযুক্তির ব্যবহার যত বাড়বে স্মার্টফোনের ব্যবহারও তত বাড়বে। এ সময় তিনি আরও বলেন, চলার পথে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ডিভাইস স্মার্টফোন।

এই স্মার্টফোন আমরা শুধু আমদানি আর রফতানিতেই বিশ্বাসী নই, উৎপাদনেও বিশ্বাসী। বাংলাদেশ প্রতিদিন পরিবর্তন হচ্ছে আর তাতেই আমাদের এগিয়ে চলা। মন্ত্রী আরও জানান, ফোনের ইন্টারন্যাশনাল মোবাইল ইকুইপমেন্ট আইডেনটিটি (আইএমইআই) নম্বরের তথ্যভাণ্ডার তৈরি করছে সরকার।

ডিসেম্বরের মধ্যে এর সুবিধা পাওয়া যাবে। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আসার পর ইন্টারনেটের দাম কমেছে। ইন্টারনেটের দাম ছয় দফায় কমেছে। এখন এই দাম সহনীয় পর্যায়ে আছে।

জুনাইদ আহমেদ পলক আরও বলেন, এক সময় স্মার্টফোনের কথা চিন্তাই করা যেত না, তখন ফিচার ফোন ছিল; কিন্তু সময়ের পরিবর্তনে স্মার্টফোনের চাহিদা বেড়েছে।

বর্তমানে বছরে সাড়ে ৩ কোটি স্মার্টফোন আমদানি করা হচ্ছে দেশে। এ ছাড়া স্মার্টফোননির্ভর জীবনযাপন করছি আমরা। কেননা ঘুম থেকে ওঠার জন্যও আলার্ম ব্যবহার করছি স্মার্টফোনের।

আবার কোনো কিছু নোট নেয়ার জন্যও স্মার্টফোন ব্যবহার করছি। দেশে ৯ কোটির বেশি ইন্টারনেট ব্যবহারকারী এই সংখ্যা বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে বাড়ছে স্মার্টফোন ব্যবহারকারীও। প্রতিমন্ত্রী বলেন, আমরা আমাদের প্রথম স্যাটেলাইট বঙ্গবন্ধু-১ সফলভাবে উৎক্ষেপণ করেছি। বিটিভিসহ বেসরকারি আরও কিছু চ্যানেল রয়েছে যারা স্যাটেলাইট ব্যবহার করছে।

আমরা দ্বিতীয় স্যাটেলাইটও মহাকাশে উৎক্ষেপণের জন্য প্রস্তুতি গ্রহণ করেছি। অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন হুয়াওয়ে কনজুমার বিজনেস গ্রুপ বাংলাদেশের মার্কেটিং ডিরেক্টর ঈগল সং, স্যামসাং মোবাইল বাংলাদেশের জেনারেল ম্যানেজার বমিন কিম, ট্রানশান বাংলাদেশ লিমিটেডের সিইও রেজওয়ানুল হক, ভিভো বাংলাদেশের কান্ট্রি প্রজেক্ট ম্যানেজার মিস্টার অ্যাঙ্গাস, আমরা কোম্পানিজ এবং উই মোবাইলের চেয়ারম্যান সৈয়দ ফারুক আহমেদ, স্মার্ট টেকনোলজিস বিডি লিমিটেডের ডিরেক্টর সাকিব আরাফাত এবং এক্সপো মেকারের কৌশলগত পরিকল্পনাকারী মুহম্মদ খান।

এক্সপো মেকারের কৌশলগত পরিকল্পনাকারী মুহম্মদ খান জানান, প্রদর্শনী উপলক্ষে অংশগ্রহণকারী প্রতিষ্ঠানগুলো বিশেষ ছাড় ও উপহার দিচ্ছে। দর্শকরা প্রযুক্তির আধুনিক সব স্মার্ট ডিভাইস যাচাই-বাছাই করে দেখতে ও কিনতে পারছেন।

এ ছাড়া থাকবে অন্য অনেক আয়োজন। স্মার্টফোন ও ট্যাবলেট কম্পিউটার নিয়ে দেশে এক্সপো মেকারের আয়োজনে এটি একাদশ প্রদর্শনী। এবারের মেলায় বিশ্বখ্যাত সব ব্র্যান্ডের স্মার্টফোন ও ট্যাবলেট পাওয়া যাচ্ছে।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×