৭৭ কোটি ই-মেইল, ২ কোটি পাসওয়ার্ড ফাঁস ফেসবুকের চেয়েও বড় তথ্য কেলেঙ্কারির শঙ্কা

  যুগান্তর ডেস্ক    ২১ জানুয়ারি ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

তথ্যপ্রযুক্তিরকেন্দ্রিক যোগাযোগ ব্যবস্থার এ যুগে সবকিছু হয় অনলাইনে। একসময়ের চিঠি আদান-প্রদান এখন ই-মেইলেই সেরে নিচ্ছেন বিশ্ববাসী। আর সেই ই-মেইল নিয়ে তৈরি হয়েছে আতঙ্ক। শোনা যাচ্ছে, বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের প্রায় ২ কোটি ১০ লাখ পাসওয়ার্ড ও ৭৭ কোটি ২৯ লাখ ই-মেইল অ্যাড্রেস ফাঁস হয়ে গেছে। এর ফলে হ্যাকারদের হাতে কমপক্ষে ২৭০ কোটি গোপন রেকর্ড পৌঁছে গেছে। তথ্য (ডাটা) গবেষক ট্রয় হান্ট সম্প্র্রতি বিষয়টি প্রথম নজরে আনে। এক ব্ল­গে এমনটাই উল্লেখ করেছে ট্রয় হান্ট। ‘কালেকশন #ওয়ান’ নামে একটি ‘ডাম্পিং গ্রাউন্ডে’ আবর্জনার মতো ওইসব ই-মেইল অ্যাড্রেস এবং পাসওয়ার্ড ফেলে দিয়েছিল। প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞরা বলছেন, যদি এটি সত্যি হয়ে থাকে, তবে ফেসবুক তথ্য কেলেঙ্কারির চেয়েও বড় হবে এই তথ্য-ফাঁস কেলেঙ্কারি। ‘হ্যাভ আই বিন পন্ড’ নামে একটি ওয়েবসাইট রয়েছে ট্রয় হান্টের। যেখানে কোনো মেইল অ্যাড্রেস এবং পাসওয়ার্ড পাঠানো হলে, তারা পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে বলে দেয়- কোনো সময় কেউ সেই গোপন পাসওয়ার্ড জেনে ফেলে তা দিয়ে সেই ই-মেইল অ্যাড্রেস খুলেছিল কিনা। কতবার খুলেছিল। কোথা কোথা থেকে হ্যাকার, স্প্যামাররা জেনে ফেলা গোপন পাসওয়ার্ড দিয়ে সেই ই-মেইল অ্যাড্রেসে ঢুকেছিল। কত তথ্যাদি তারা চুরি করেছিল।

ট্রয় হান্টই তার ব্লগে লিখেছেন, ২ কোটি ১০ লাখ পাসওয়ার্ড আর ৭৭ কোটি ইমেল অ্যাড্রেস ফাঁস হয়ে গেছে। ‘কালেকশন #ওয়ান’-এর ধারণক্ষমতা ৮৭ গিগাবাইট। এসব ডাটা ফাঁস হয়ে গিয়েছিল একটি ক্লাউড-বেসড শেয়ারিং ওয়েবসাইট ‘মেগা’র কাছে। মূলত ‘মেগা’ হচ্ছে হ্যাকারদের একটি সংগঠিত ফোরাম।

এদিকে ৭৭ কোটি ই-মেইল ফাঁস নিয়ে ভারতীয় প্রযুক্তিভিত্তিক গণমাধ্যম গেজেটস নাউ জানিয়েছে, সাম্প্রতিক সময়ের সবচেয়ে বড় হ্যাকিংয়ের ঘটনা এটি। এসব ই-মেইল চুরির মাধ্যমে গ্রাহকদের বিভিন্ন তথ্য হাতিয়ে নিতে পারে হ্যাকাররা। এ কারণে ই-মেইলের সঙ্গে সম্পর্কিত অন্যসব অ্যাকাউন্টও হুমকির মধ্যে রয়েছে। নিজের ই-মেইল অ্যাকাউন্ট হ্যাক হয়ে থাকলে হ্যাক হওয়া অ্যাকাউন্টটি সব জায়গা থেকে বাদ দিতে হবে। আপনার ই-মেইল অ্যাকাউন্টটি হ্যাক হয়েছে কিনা জানতে https://haveibeenpwned.com/ এই ঠিকানায় গিয়ে নিজের ই-মেইল অ্যাড্রেস দিয়ে ‘এন্টার’ বাটন চাপলে আপনার অ্যাকাউন্ট হ্যাক সম্পর্কিত সব তথ্য জানিয়ে দেবে।

-সাইফ আহমাদ

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×