যেভাবে এলো গরিলা গ্লাস

  আইটি ডেস্ক ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

বর্তমানে মধ্যম শ্রেণী থেকে শুরু করে ফ্ল্যাগশিপ পর্যন্ত প্রায় সব স্মার্টফোনেই দেখা যায় কর্নিং গরিলা গ্লাসের ব্যবহার। কোথা থেকে এলো এ গ্লাস, তারই কিছুটা ইতিহাস তুলে ধরা হয়েছে মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনবিসির প্রতিবেদনে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কেনটাকির হ্যারোডসবার্গে অবস্থিত কর্নিংয়ের পুরনো কাচ কারখানা। পঞ্চাশের দশকে চশমার জন্য কাচ বানাতো প্রতিষ্ঠানটি। পরবর্তী সময়ে ব্যবসা বদলে আশির দশকে এলসিডি গ্লাস প্যানেল বানানো শুরু করে প্রতিষ্ঠানটি।

এরপর ২০০৭ সালে প্রথম আইফোন উন্মোচনের ছয় মাস আগে কর্নিং প্রধানকে ফোন করেন সেসময়কার অ্যাপল প্রধান স্টিভ জবস। জবস কর্নিং প্রধানকে বলেন, আইফোনের জন্য এমন কাচ বানাতে যা সহজে ভাঙবে না এবং দাগ পড়বে না। অ্যাপল প্রধানের কথা মতোই দ্রুত গরিলা গ্লাস বানায় কর্নিং। ফলে কারখানাটিও পুরোপুরি নতুনভাবে সাজানো হয়। এর আগে সাধারণত প্লাস্টিক দিয়ে স্মার্টফোন ঢাকা হতো। ১৮৭৯ সালে এডিসন বাল্বের কাচও তৈরি করেছিল কর্নিং। এখন অ্যাপল, স্যামসাং, এলজি, সনি হুয়াওয়েসহ অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের তৈরি বিশ্বের প্রায় ছয়শ’ কোটি স্মার্টফোন, ট্যাবলেট, পর্দা ও পরিধেয় ডিভাইসে ব্যবহার করা হয়েছে প্রতিষ্ঠানের তৈরি গরিলা গ্লাস। গরিলা গ্লাসের জন্য অবশ্য কর্নিংকে প্রাপ্য স্বীকৃতিও দিয়েছিলেন স্টিভ জবস।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×