নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ

বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশের সাস্ট ‘অলিক’

  সাইফ আহমাদ ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় মহাকাশ সংস্থা নাসার উদ্যোগে আয়োজিত ‘নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ’-এর বৈশ্বিক পর্যায়ে অংশ নিয়ে প্রথমবারের মতো চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করেছে শাবির দল সাস্ট অলিক। বিশ্বের ৭৯টি দেশের বাছাইকৃত ২ হাজার ৭২৯টি দলের সঙ্গে লড়াই করে চ্যাম্পিয়ন হয় দলটি। বেস্ট ইউজ অব ডাটা ক্যাটাগরিতে তাদের প্রজেক্ট ‘লুনার ভিআর’ প্রতিযোগিতায় বিজয়ী হয়। ‘লুনার ভিআর’ প্রজেক্টটি মূলত একটি ভার্চুয়াল রিয়েলিটি অ্যাপ্লিকেশন যার মাধ্যমে ব্যবহারকারী চাঁদে ভ্রমণের অভিজ্ঞতা পাবেন। এবারের নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ এ বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্বকারী দল সাস্ট অলিকের সদস্যরা হলেন- সাব্বির হাসান, আবু সাবিক মাহদি, বিশ্বপ্রিয় চক্রবর্তী, কাজী মাইনুল ইসলাম, এসএম রাফি আদনান।

এ বছর নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জের সেরা প্রকল্প খুঁজে বের করতে বিশ্বের প্রায় দুই শতাধিক শহরে প্রতিযোগিতার আয়োজন করে নাসা। প্রায় ২ হাজারেরও বেশি প্রকল্পের মধ্যে মাত্র ৮টি প্রকল্পকে বেছে নেয়া হয় নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জের আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতায়। এর আগে পিপলস চয়েজ অ্যাওয়ার্ডে শীর্ষ দশে একাধিকবার জায়গা করে নিয়েছিল বাংলাদেশ। তবে মূল প্রতিযোগিতায় এবারই প্রথম চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করে বাংলাদেশ। নাসার সরবরাহ করা বিভিন্ন রিসোর্স থেকে থ্রিডি মডেল ও তথ্য সংগ্রহ করে, নাসা অ্যাপোলো ১১ মিশনের ল্যান্ডিং এরিয়া ভ্রমণ, চাঁদ থেকে সূর্যগ্রহণ দেখা এবং চাঁদকে একটি স্যাটেলাইটের মাধ্যমে আবর্তন করা- এ তিনটি ভিন্ন পরিবেশকে ভার্চুয়ালভাবে তৈরি করেছে টিম অলিক।

সাস্ট অলিকের সদস্য সাব্বির হাসান জানান, শিক্ষা ক্ষেত্রে ভার্চুয়াল রিয়েলিটি অ্যাপ খুব কার্যকর হবে বলে আমি মনে করি। এ রকম অনেক কিছু আছে যা আমরা শুধু বইয়ে পড়ি কিন্তু বাস্তবে দেখতে পাই না। কিন্তু ভার্চুয়াল রিয়েলিটির মাধ্যমে বাস্তব অভিজ্ঞতা নিয়ে অনেক কিছু শেখা সম্ভব। আশা করি বাংলাদেশের শিক্ষা ক্ষেত্রে ভিআর-এর মাধ্যমে নতুন দিগন্ত উন্মোচিত হবে। এছাড়াও প্রতিযোগিতায় ‘বেস্ট ইউজ অব হার্ডওয়ার’ ক্যাটাগরিতে শীর্ষ দশে জায়গা করে নিয়েছে ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের দল ‘প্ল্যানেট কিট’। বাংলাদেশ থেকে গত অক্টোবরে প্রায় দুই হাজারেরও বেশি প্রকল্প থেকে ৪০টি প্রকল্প জাতীয় পর্যায়ে হ্যাকাথনে অংশ নেয়। সেখান থেকে আটটি দলকে চূড়ান্ত পর্যায়ের জন্য মনোনয়ন দেয়া হয় যারা চূড়ান্ত পর্বে অংশ নেয়। আর গত ডিসেম্বরেই জানা যায়, ছয় ক্যাটাগরিতে শীর্ষ ২৫ দলের মধ্যে জায়গা করে নিয়েছে ‘টিম অলিক’।

প্রজেক্ট ‘লুনার ভিআর’ ভার্চুয়াল রিয়ালিটি অ্যাপলিকেশন সম্পর্কে বিস্তারিত এ লিঙ্কে (https://2018.spaceappschallenge.org/challenges/universe-beauty-and-wonder/virtual-space-exploration/teams/olik/project)।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×