ডিজিটাল রূপান্তরের দৃষ্টান্ত তৈরি করেছে বাংলাদেশ

  সাইফ আহমাদ ২৪ এপ্রিল ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ডিজিটাল রূপান্তরের দৃষ্টান্ত তৈরি করেছে বাংলাদেশ

বাংলাদেশ তার জনগোষ্ঠীকে সঙ্গে নিয়ে ডিজিটাল রূপান্তরের দৃষ্টান্ত তৈরি করেছে বলে মন্তব্য করেছেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার।

সোমবার ২২ এপ্রিল ২০১৯ দু’দিনব্যাপী বিপিও সামিট বাংলাদেশ ২০১৯-এর সমাপনি অনুষ্ঠানে এ মন্তব্য করেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। জমজমাট আয়োজনের মধ্য দিয়ে রাজধানীর হোটেল সোনারগাঁওয়ে তথ্যপ্রযুক্তি খাতের দু’দিনব্যাপী বিপিও সামিট বাংলাদেশ ২০১৯-এর পর্দা নামল সোমবার রাতে।

সমাপনি অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তৃতায় ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার, বাংলাদেশের বিপুল জনগোষ্ঠীকে সঙ্গে নিয়ে আগামী দুই বছরে পৃথিবীকে পথ দেখানোর জায়গায় দাঁড়াতে পারবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

বিজনেস প্রসেস আউটসোর্সিং বা বিপিও খাতে ৪ হাজার ৮ শত কাজ আছে উল্লেখ করে টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার দূরদৃষ্টিসম্পন্ন ডিজিটাল বাংলাদেশ কর্মসূচি এবং প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের প্রচেষ্টার ফলে বিপিও’র মতো নব-প্রযুক্তি বিষয় দেশে আজ বিরাট মহিরূহে রূপ নিয়েছে।

মোস্তাফা জব্বার বলেন, ২০১২ সাল থেকে ইন্ডাস্ট্রিয়াল রিভিলিউশন ফোর আমরা শুনে আসছি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০০৮ সালের ১২ ডিসেম্বর ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে রূপকল্প ২০২১ ঘোষণা করেন। ইন্ডাস্ট্রিয়াল রিভিলিউশন ফোর বা ডিজিটাল বিপ্লব পৃথিবীতে বাংলাদেশই প্রথম ঘোষণা করেছে। এরই ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশ আজ তথ্যপ্রযুক্তি দুনিয়ায় মর্যাদার আসনে অধিষ্ঠিত হতে সক্ষম হয়েছে।

মন্ত্রী দেশের মোট জনসংখ্যার শতকরা ৬৫ ভাগ তরুণ জনগোষ্ঠীকে দক্ষ মানবসম্পদ হিসেবে গড়ে তোলার প্রয়োজনীয়তার ওপর গুরুত্বারোপ করে বলেন, আমাদের সন্তানদের ডিজিটালাইজড করতে সরকার অবকাঠামো ও দক্ষতা উন্নয়নে সর্বোচ্চ উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। সরকারের পাশাপাশি বেসরকারি ট্রেডবডিগুলো এ বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে। জাতিগতভাবে এ বিষয়ে আমাদের বড় অর্জন হয়েছে। ম

ন্ত্রী বিপত্তি খাতকে দেশের অত্যন্ত সম্ভাবনাময় খাত উল্লেখ করে বলেন, দেশে বিপিও খাতের বাজার অসাধারণ। তিনি তরুণ প্রজন্মের উদ্দেশে বলেন, বিপিও সেক্টরে কাজ করার জন্য কম্পিউটারের বিশেষজ্ঞ হওয়ার দরকার হয় না।

এখানে ময়েদেরে র্কমসংস্থান হচ্ছে উল্লেখযোগ্য হারে। রয়েছে নিরাপদ ও উপযুক্ত কাজের পরিবেশ। একজন মা যিনি ঘরে বসে কাজ করতে চাইছেন তাকেও বিপিও খাত পুরো সুযোগ দিতে পারে বলে উল্লেখ করেন মন্ত্রী। সেমিনারে বিটিআরসি চেয়ারম্যান মো. জহিরুল হক এবং রবির সিইও মাহতাবউদ্দিন আহমেদ এবং বাক্কো সভাপতি ওয়াহিদুর রহমান শরীফ বক্তৃতা করেন।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×