সামনে এগিয়ে যাওয়ার জন্য প্রয়োজন বিজ্ঞানচর্চা

  সাইফ আহমাদ ১২ মে ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

সামনে এগিয়ে যাওয়ার জন্য প্রয়োজন বিজ্ঞানচর্চা

‘একটি জাতির সামনে এগিয়ে যাওয়ার জন্য সবচেয়ে বড় প্রয়োজন হচ্ছে বিজ্ঞানচর্চা। ড. ওয়াজেদ মিয়া বিজ্ঞানচর্চার ক্ষেত্রে পথ দেখিয়ে গেছেন বলে মন্তব্য করেছেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার।

বৃহস্পতিবার ৯ মে, রাজধানীর আগারগাঁওয়ের আইসিটি টাওয়ারে বিসিসির মিলনায়তনে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের উদ্যোগে আয়োজিত পরমাণু বিজ্ঞানী ড. এম ওয়াজেদ মিয়ার ১০ম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী এ মন্তব্য করেন।

মন্ত্রী বলেন, আজকে আমরা যখন ডিজিটাল বাংলাদেশের কথা বলি, চতুর্থ বিপ্লবের কথা বলি, তখন কিন্তু বিজ্ঞানচর্চার বিষয়টি সামনে চলে আসে।’ ড. ওয়াজেদ মিয়া বিজ্ঞানচর্চার ক্ষেত্রে পথ দেখিয়ে গেছেন।

‘আশা করি, আমাদের নতুন প্রজন্ম থেকে ড. ওয়াজেদ মিয়াকে অনুসরণ করার মতো আমরা অনেক সন্তান পাব, যারা বিজ্ঞানচর্চা করবে, পৃথিবীর ডিজিটাল রূপান্তরে বলিষ্ঠ ভূমিকা রাখবে।’

মোস্তাফা জব্বার আরও বলেছেন, ‘ড. ওয়াজেদ মিয়া শ্রেষ্ঠতম বিজ্ঞানী হওয়া সত্ত্বেও বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে স্বাধীন সত্তা এবং এ দেশটি অর্জনের ক্ষেত্রে তার অবদান ছিল অসাধারণ ও অপরিসীম। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বর্তমানে দেশের উন্নয়ন ও সমৃদ্ধির যে সোপান তৈরি করেছেন, এর প্রেরণাদাতা ছিলেন ড. ওয়াজেদ মিয়া।’

মন্ত্রী তার বক্তব্যে আরও বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর স্বামী হয়েও ওয়াজেদ মিয়া সাধারণ মানুষের মতো জীবনযাপন করেছেন। বঙ্গবন্ধুর জামাতা হিসেবে বস্তুতপক্ষে যে পরিমাণ বা যেভাবে বিভিন্ন জায়গায় উপস্থিতি থাকা প্রয়োজন ছিল, তা তিনি সচেতনভাবে এড়িয়ে গেছেন।’

আলোচনা সভায় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন।

প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, ‘ড. ওয়াজেদ মিয়া দেশবরেণ্য বিজ্ঞানীই ছিলেন না, তিনি ছিলেন নির্লোভ, নিরহঙ্কারী, সাহসী দেশপ্রেমিক, রাজনীতিবিদ ও দায়িত্বশীল স্বামী। ওয়াজেদ মিয়া ছিলেন তীক্ষè মেধাবী ছাত্র। ছাত্রলীগ মনোনীত প্রার্থী হিসেবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফজলুল হক হলের ছাত্র সংসদের সহ-সভাপতি নির্বাচিত হয়েছিলেন।’

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সচিব এনএম জিয়াউল আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদফতরের মহাপরিচালক এবিএম আরশাদ হোসেন, বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের নির্বাহী পরিচালক পার্থপ্রতিম দেব, বাংলাদেশ পরমাণু শক্তি কমিশনের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. এএফএম মিজানুর রহমানসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×