তৃতীয় সাবমেরিন ক্যাবলে যুক্ত হচ্ছে বাংলাদেশ

  আইটি ডেস্ক ০৩ জুন ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

বাংলাদেশকে তৃতীয় সাবমেরিন ক্যাবলের সঙ্গে যুক্ত করতে প্রস্তাব দিয়েছে সিঙ্গাপুরের দুই কোম্পানি। বাংলাদেশ সাবমেরিন ক্যাবল কোম্পানি লিমিটেডের (বিএসসিসিএল) কাছে যে দুটি প্রস্তাব এসেছে তার মধ্যে একটি প্রস্তাব দিয়েছে সিংটেল। তারা সি-মি-উই-৬ কনসোর্টিয়ামে যুক্ত হতে প্রস্তাব করেছে। বাংলাদেশ সিংটেলের আগের দুটি সাবমেরিন কেবলের অংশীদার সি-মি-উই-৫ এবং সি-মি-উই-৪। অপর প্রস্তাবটি দিয়েছে সিঙ্গাপুরের নতুন একটি কোম্পানি সিগমার (সিঙ্গাপুর-মিয়ানমার সাবমেরিন ক্যাবল কোম্পানি)। এ কনর্সোটিয়াম থেকে সাড়ে ছয় কোটি ডলার খরচে প্রাথমিকভাবে ১২ দশমিক ৪ টেরাবাইট পার সেকেন্ড গতির ব্যান্ডউইথ পাওয়া যাবে বলে জানিয়েছেন বিএসসিসিএলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মশিউর রহমান। অন্যদিকে সি-মি-উই-৬ এ যুক্ত হতে খরচ হবে ৭ কোটি ২০ কোটি ডলার। এ সংযোগ থেকে প্রাথমিকভাবে ব্যান্ডউইথ পাওয়া যাবে ৫ টেরাবাইট পার সেকেন্ড গতিতে। সিগমার কাজ শেষ হতে ২০২২ এবং সি-মি-উই-৬ এ যুক্ত হতে ২০২৩ সাল লাগবে বলে পৃথক প্রস্তাব দুটিতে উল্লেখ রয়েছে। বিএসসিসিএল এমডি বলেন, দুটি প্রস্তাবই সম্প্রতি এক বৈঠকে প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের সামনে উপস্থাপন করা হয়েছিল। তিনি তৃতীয় সাবমেরিন ক্যাবলে যুক্ত হওয়ার প্রয়োজনীয়তার বিষয়টি ইতিবাচকভাবে বিবেচনা করে একটি প্রস্তাব বাছাই করতে কমিটি গঠনের নির্দেশ দেন। বর্তমানে দেশে প্রায় ১৩শ’ জিবিপিএস ব্যান্ডউইথ ব্যবহার হয়, এর মধ্যে ৯০০ জিবিপিএসের সরবরাহ আসে সি-মি-উই-৫ ও সি-মি-উই-৪ থেকে। বাকিটা ভারত থেকে আমদানি করা হয়।

দেশে প্রতি বছর ডেটার ব্যবহার দ্বিগুণ হচ্ছে। নতুন ক্যাবলের সঙ্গে যুক্ত হতে না পারলে সামনের দিনে এটি নিয়ে জটিলতা দেখা দিতে পারে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: jugantor.mai[email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×