ক্যান্সার চিকিৎসায় ‘এআই’ সেবার অনুমোদন জটিলতা কাটেনি

  যুগান্তর ডেস্ক    ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ক্যান্সার চিকিৎসায় আইবিএমের ‘আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স’ সেবা ওয়াটসন ফর অনকোলজি বাংলাদেশে আসার পর প্রায় আট মাস হয়ে গেলেও অনুমোদন জটিলতা কাটেনি। চিকিৎসকদের কেউ কেউ বলছেন, নতুন এ প্রযুক্তি রোগীর তথ্য বিশ্লেষণ এবং সিদ্ধান্ত গ্রহণে ডাক্তারদের কাজে আসতে পারে। কিন্তু স্বাস্থ্য অধিদফতর বলছে, ওয়াটসন ফর অনকোলজি বাংলাদেশে কতটা কার্যকর হবে, তা পরীক্ষিত নয় এবং তা অনুমোদনও পায়নি। ওয়াটসন ফর অনকোলজি কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা বা আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্সভিত্তিক একটি ওয়েব অ্যাপ্লিকেশন, যার কাজ হল তথ্য বিশ্লেষণ করে ক্যান্সার রোগীর জন্য সঠিক চিকিৎসা পদ্ধতি নির্ণয় ও সিদ্ধান্ত গ্রহণে চিকিৎসককে সহায়তা করা। ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস মেশিনস (আইবিএম) ক্যান্সারের চিকিৎসায় ওয়াটসন সিস্টেমের উন্নয়ন ঘটানোর পর যুক্তরাষ্ট্রের স্লোয়ান কেটারিং ক্যান্সার সেন্টারের সঙ্গে চুক্তি করে। ক্যান্সারের চিকিৎসায় বিশ্বখ্যাত ওই প্রতিষ্ঠানের অনকোলজিস্টদের বিশ্লেষণ ও চিকিৎসা পদ্ধতির তথ্য ব্যবহার করে ওয়াটসনকে রোগীদের রিপোর্ট বুঝতে ও চিকিৎসার পরিকল্পনা তৈরিতে ‘প্রশিক্ষিত’ করে তোলা হয়। আইবিএমের দাবি, ওয়াটসন এখন ১৩ ধরনের ক্যান্সারের চিকিৎসায় ‘প্রশিক্ষিত’। বিশ্বের ১৫৫টি হাসপাতাল ও স্বাস্থ্য প্রতিষ্ঠান ওয়াটসনকে তাদের কাজের সঙ্গে যুক্ত করে নিয়েছে। তবে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে এ প্রযুক্তি নিয়ে রয়েছে মিশ্র প্রতিক্রিয়া। যুগান্তকারী পরিবর্তন ঘটানোর অঙ্গীকার নিয়ে এসে শুরুতে অনেক বেশি আলোচনায় থাকলেও ওয়াটসন নিয়ে উচ্ছ্বাস পরে আর ততটা থাকেনি। অনকোলজিস্টদের এডুকেশনাল পোর্টাল অনকোলজিপ্রো ওয়াটসনকে ক্যান্সারের চিকিৎসা পদ্ধতি নির্ধারণের ক্ষেত্রে ‘খুবই সহায়ক’ বলে মূল্যায়ন করেছে। আবার দক্ষিণ কোরিয়ার ফুড অ্যান্ড ড্রাগ সেইফটি বিভাগ গত বছর বলেছে, ওয়াটসন যেভাবে কাজ করে তাতে একে ‘মেডিকেল ডিভাইস’ বলা চলে না। গত বছর জুনে প্রথমবারের মতো বাংলাদেশের দুটি বেসরকারি হাসপাতালে ওয়াটসন ফর অনকোলজি সেবা চালুর ঘোষণা দিয়ে একটি সংবাদ বিজ্ঞপ্তি দেয় আইবিএম। ঢাকায় তাদের এজেন্ট রাইট সলিউশন্স লিমিটেডের মাধ্যমে বাংলাদেশ স্পেশালাইজড হসপিটাল ও আহসানিয়া মিশন ক্যান্সার হাসপাতাল ওয়াটসনের সেবা নেয়ার জন্য চুক্তিবদ্ধ হয়। কিন্তু স্বাস্থ্য অধিদফতরের হাসপাতাল ও ক্লিনিক বিভাগের পরিচালক ডা. কাজী জাহাঙ্গীর হোসেন বলছেন, বাংলাদেশের কোনো চিকিৎসাসেবা প্রতিষ্ঠানে ওয়াটসন ব্যবহারের চুক্তির বিষয়ে তিনি অবগত নন। এ বিষয়ে জানতে চাইলে রাইট সলিউশন্সের সিইও রিদওয়ান মুস্তাফিজ বলেন, তারা বাংলাদেশে ওয়াটসন ফর অনকোলজি সেবা পরিচালনায় অনুমতির জন্য সরকারের কাছে আবেদন করেছেন। তবে এখনও অনুমোদন মেলেনি। রিদওয়ান মুস্তাফিজ বলেন, বাংলাদেশে প্রতি এক হাজার ক্যান্সার রোগীর বিপরীতে ডাক্তার আছেন মাত্র একজন। সব মিলিয়ে ক্যান্সার বিশেষজ্ঞ আছেন দেড়শ’ জনের মতো। তাদের ৯৫ শতাংশ রেডিয়েশন অনকোলজির চিকিৎসায় প্রশিক্ষিত। মেডিকেল অনকোলজির ডাক্তার মাত্র ৫ শতাংশ। ‘আমাদের ডাক্তাররা অভিজ্ঞ হলেও বেশিরভাগই কাজ করেন ট্রায়াল অ্যান্ড-এর পদ্ধতিতে; তাই প্রত্যাশিত ফল আসে না। ওয়াটসন ফর অনকোলজি সুনির্দিষ্টভাবে রোগীর জন্য ট্রিটমেন্ট প্ল্যান নিয়ে আসে।’

-সাইফুল আহমাদ

 

 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
.