বাংলালিংক ইনোভেটর্সে সেরা ‘সিলভার লাইনিং’

  ফয়সাল আহমাদ ০৪ নভেম্বর ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

বাংলালিংক ইনোভেটর্সে সেরা ‘সিলভার লাইনিং’

যানবাহনের সার্বিক অবস্থা পর্যবেক্ষণ করার ডিজিটাল পরিকল্পনা উপস্থাপন করে বাংলালিংক ইনোভেটর্সে সেরা হয়েছে টিম সিলভার লাইনিং।

শনিবার ২ নভেম্বর রাজধানীর অভিজাত একটি হোটেলে উদ্ভাবনী তরুণদের জন্য আয়োজিত ডিজিটাল ব্যবসায়িক পরিকল্পনার প্রতিযোগিতা বাংলালিংক ইনোভেটর্সের তৃতীয় আসরের বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করা হয়।

ডিজিটাল সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান বাংলালিংক উদ্ভাবনী তরুণদের নতুন পরিকল্পনা, নতুন উদ্যোগ ও নতুন সৃষ্টিতে উৎসাহ দিতে এ প্রতিযোগিতার আয়োজন করে আসছে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এবারের আসরের বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করেন জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী এমপি। শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী এমপি এ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।

এ ছাড়া আরও উপস্থিত ছিলেন বাংলালিংকের অ্যাক্টিং সিইও ও চিফ কর্পোরেট অ্যান্ড রেগুলেটরি অ্যাফেয়ার্স অফিসার তাইমুর রহমান, বাংলালিংকের চিফ হিউম্যান রিসোর্সেস অ্যান্ড অ্যাডমিনিস্ট্রেশন অফিসার মনজুলা মোরশেদ ও প্রতিষ্ঠানটির পরিচালনা পর্ষদের অন্য সদস্যরা।

বিজয়ী টিম সিলভার লাইনিংয়ের সদস্য ইরফান উদ্দিন যুগান্তরকে বলেন, আমাদের আইডিয়াটি এমন একটি ইকো সিস্টেম তৈরি করবে যেটির মাধ্যমে ঢাকা শহরের যানবাহনগুলোর বিশেষত বাসগুলোর ফিটনেস ট্র্যাক করা সম্ভব।

এর সঙ্গে ড্রাইভারদের সক্ষমতাও ট্র্যাক করতে পারবে। ওবিডি (অন-বোর্ড ডায়াগনস্টিকস) ডিভাইসটির মাধ্যমে ইঞ্জিন, চ্যাসিস ইত্যাদির মতো যানবাহনের বিভিন্ন অংশের পারফরম্যান্স ট্র্যাক করতে পারে এবং দ্রুতগতি পর্যবেক্ষণ করতে পারে যা সরাসরি ড্রাইভারের পারফরম্যান্সের সঙ্গে সম্পর্কিত। ডিভাইসটিতে একটি সিম কার্ড থাকবে যার মাধ্যমে যানবাহন এবং ড্রাইভারের পারফরম্যান্সের ডেটা তাৎক্ষণিকভাবে সার্ভারে প্রেরণ করা হবে যা কর্তৃপক্ষ পর্যবেক্ষণ করতে পারবে।

এতে ফিটনেস বিহীন গাড়িগুলো রাস্তা থেকে সরিয়ে আনা যাবে। শুধু এ বছরই সড়ক দুর্ঘটনার কারণে আমাদের দেশে কারণে ৭ হাজার ২২১ জন মারা গিয়েছিল। সুতরাং, আইডিয়াটির বাস্তবায়ন বাংলাদেশের পরিবহন খাতে একটি বৈপ্লবিক পরিবর্তন আনতে পারে এবং সড়ক দুর্ঘটনা অনেকাংশে কমে আসবে বলে।

দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে প্রায় ১৭ হাজার প্রতিযোগী এ প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে। বাছাই প্রক্রিয়ার মাধ্যমে সবচেয়ে উদ্ভাবনী প্রতিযোগীদের বেছে নেয়া হয়। এ প্রতিযোগীদের নিয়ে গঠিত মোট ৫টি দল গ্র্যান্ড ফিনালেতে তাদের ডিজিটাল ব্যবসায়িক পরিকল্পনা উপস্থাপন করে। উপস্থাপিত পরিকল্পনাগুলো মূল্যায়ন করে সেরা তিনটি দলকে নির্বাচিত করে বাংলালিংকের জুরি প্যানেল।

দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থান অর্জন করে টিম লাস্ট মিনিট ও টিম থ্রি অ্যান্ড অ্যা হাফ মেন। দল দুটি সমন্বিত বর্জ্য ব্যবস্থাপনা ও দৈনন্দিন জীবনে ব্যবহৃত দ্রব্য যাচাই ব্যবস্থার ওপর তাদের ডিজিটাল পরিকল্পনা উপস্থাপন করে।

বিজয়ী দল অ্যামস্টার্ডামে অবস্থিত বাংলালিংকের স্বত্বাধিকারী প্রতিষ্ঠান ভিওনের প্রধান কার্যালয় পরিদর্শন ও বাংলালিংকের ‘স্ট্র্যাটেজিক অ্যাসিস্টেন্ট প্রোগ্রামের অ্যাসেসমেন্ট সেন্টার’- এ যোগদানের সুযোগ। প্রথম ও দ্বিতীয় রানার্স আপ দলও এই প্রোগ্রামে যোগদানের সুযোগসহ পাবে আকর্ষণীয় পুরস্কার। এ ছাড়া সেরা ৫ দলের প্রত্যেক সদস্য বাংলালিংকের ‘অ্যাডভান্সড ইন্টার্নশিপ প্রোগ্রাম (এআইপি)’-এ সরাসরি যোগদান করার পাশাপাশি ‘লার্ন ফ্রম স্টার্টআপস’ ও ‘ক্যাম্পাস টু কর্পোরেট প্রোগ্রামস’-এ অংশগ্রহণ করতে পারবে।

বাংলালিংকের অ্যাক্টিং সিইও ও চিফ কর্পোরেট অ্যান্ড রেগুলেটরি অ্যাফেয়ার্স অফিসার তাইমুর রহমান বলেন, ‘টেকসই উন্নয়নের ক্ষেত্রে ডিজিটাল উদ্ভাবনকে এখন সারা বিশ্বে গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করা হচ্ছে। আমরা যদি এ তরুণদের প্রাথমিক পর্যায় থেকেই উদ্ভাবনী হতে উৎসাহ দিতে পারি, তাহলে উদ্ভাবনী উপায়ে বিভিন্ন চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করে দেশকে এগিয়ে নিতে তারা আরও বেশি সমর্থ হয়ে উঠবে। বাংলালিংক তরুণদের বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা প্রদানের মাধ্যমে ভবিষ্যতেও তাদের ক্ষমতায়নে ভূমিকা রাখবে।’ উল্লেখ্য ২০১৭ সালে প্রথমবারের মতো এ উদ্যোগ গ্রহণ করে বাংলালিংক।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×