এবার টিকটক বন্ধের কথা ভাবছে যুক্তরাষ্ট্রও
jugantor
এবার টিকটক বন্ধের কথা ভাবছে যুক্তরাষ্ট্রও

  আইটি ডেস্ক  

০৯ জুলাই ২০২০, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

সবচেয়ে জনপ্রিয় ভিডিও তৈরির অ্যাপ টিকটকসহ ৫৯টি চীনা অ্যাপ ভারতে বন্ধ করে দেয়ার পরের সপ্তাহে মার্কিন মুলুকেও এ অ্যাপটি বন্ধের কথা ভাবছে সেখানের প্রশাসন।

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও জানিয়েছেন দেশটিতে টিকটকসহ চীনা বেশ কিছু অ্যাপ বন্ধ করে দেয়ার কথা।

সোমবার মাইক পম্পেও বলেন, তারা চীনা সামাজিক মাধ্যম অ্যাপ যার মধ্যে টিকটকও থাকছে এমন কিছু অ্যাপ নিষিদ্ধ করতে যাচাই-বাছাই করছে। ফক্স নিউজের সঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে পম্পেও জানিয়েছেন, তারা বিষয়টিকে খুব গুরুতর হিসেবে নিয়েই সামনের দিকে এগোচ্ছেন। দেশটিতে টিকটক বন্ধ করা হবে কিনা- এমন এক প্রশ্নের উত্তরে পম্পেও বলেন, আমরা কোনো নির্দিষ্ট অ্যাপ বন্ধ করতে চাই না। যেসব অ্যাপ সুরক্ষা ও গোপনীয়তার নীতিমালা ভঙ্গ করবে সেগুলো বন্ধ করতে চাই। সেখানে টিকটক যে রয়েছে- এটি বলা যায়। পম্পেও এমন কথা বলার পর টিকটক দেশটিতে এক বিবৃতি দিয়ে জানিয়েছে, টিকটকের প্রধান নির্বাহী আমেরিকান এমনকি সে দেশে নিরাপত্তা, সুরক্ষা এবং গোপনীয়তা রক্ষার কাজে শতাধিক আমেরিকান প্রকৌশলী কাজ করছেন। তারা এটিকে অবশ্যই নিরাপদ হিসেবেই সবার সামনে তুলে ধরেছেন। এছাড়াও হংকংয়ে নতুন নিরাপত্তা আইন জারির পর কয়েকদিনের মধ্যেই টিকটক সেখান থেকে বিদায় হচ্ছে বলেও খবর বেরিয়েছে।

এবার টিকটক বন্ধের কথা ভাবছে যুক্তরাষ্ট্রও

 আইটি ডেস্ক 
০৯ জুলাই ২০২০, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

সবচেয়ে জনপ্রিয় ভিডিও তৈরির অ্যাপ টিকটকসহ ৫৯টি চীনা অ্যাপ ভারতে বন্ধ করে দেয়ার পরের সপ্তাহে মার্কিন মুলুকেও এ অ্যাপটি বন্ধের কথা ভাবছে সেখানের প্রশাসন।

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও জানিয়েছেন দেশটিতে টিকটকসহ চীনা বেশ কিছু অ্যাপ বন্ধ করে দেয়ার কথা।

সোমবার মাইক পম্পেও বলেন, তারা চীনা সামাজিক মাধ্যম অ্যাপ যার মধ্যে টিকটকও থাকছে এমন কিছু অ্যাপ নিষিদ্ধ করতে যাচাই-বাছাই করছে। ফক্স নিউজের সঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে পম্পেও জানিয়েছেন, তারা বিষয়টিকে খুব গুরুতর হিসেবে নিয়েই সামনের দিকে এগোচ্ছেন। দেশটিতে টিকটক বন্ধ করা হবে কিনা- এমন এক প্রশ্নের উত্তরে পম্পেও বলেন, আমরা কোনো নির্দিষ্ট অ্যাপ বন্ধ করতে চাই না। যেসব অ্যাপ সুরক্ষা ও গোপনীয়তার নীতিমালা ভঙ্গ করবে সেগুলো বন্ধ করতে চাই। সেখানে টিকটক যে রয়েছে- এটি বলা যায়। পম্পেও এমন কথা বলার পর টিকটক দেশটিতে এক বিবৃতি দিয়ে জানিয়েছে, টিকটকের প্রধান নির্বাহী আমেরিকান এমনকি সে দেশে নিরাপত্তা, সুরক্ষা এবং গোপনীয়তা রক্ষার কাজে শতাধিক আমেরিকান প্রকৌশলী কাজ করছেন। তারা এটিকে অবশ্যই নিরাপদ হিসেবেই সবার সামনে তুলে ধরেছেন। এছাড়াও হংকংয়ে নতুন নিরাপত্তা আইন জারির পর কয়েকদিনের মধ্যেই টিকটক সেখান থেকে বিদায় হচ্ছে বলেও খবর বেরিয়েছে।