যেভাবে কাজ করবে ‘করোনা টিকার অ্যাপ’
jugantor
যেভাবে কাজ করবে ‘করোনা টিকার অ্যাপ’
দেশে মহামারি করোনাভাইরাসের টিকা দেওয়ার কার্যক্রম সঠিকভাবে পরিচালনা করার জন্য একটি অ্যাপ্লিকেশন তৈরি করছে সরকার। করোনাভাইরাসের টিকা নিতে হলে এ অ্যাপে নিজেদের তথ্য দিয়ে তালিকাভুক্ত করতে হবে। কীভাবে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে এবং করোনার টিকা নিবন্ধনের অ্যাপটি কীভাবে কাজ করবে, এর বিস্তারিত লিখেছেন-

  ফয়সাল আহমাদ  

২১ জানুয়ারি ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

মোবাইল ফোনে অ্যাপটি ডাউনলোড করে প্রত্যেক ব্যক্তি নিজে থেকেই রেজিস্ট্রেশন করতে পারবেন। অ্যাপটা সবার জন্যই উন্মুক্ত থাকবে। যারা টিকা পাওয়ার ক্ষেত্রে অগ্রাধিকার পাবেন, তাদেরও রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। সেখান থেকে সরকার টিকাগ্রহীতার সম্পর্কে যেমন সব তথ্য পাবেন, তেমনি যারা টিকা নেবেন, তারাও পরবর্তী আপডেট সম্পর্কে জানতে পারবেন।

যেভাবে নিবন্ধন হবে

মোবাইল ফোনে ডাউনলোডের পর ফোন নম্বর ও এনআইডি নম্বর দিয়ে ব্যবহারকারীরা অ্যাপে নিজেরা নিবন্ধন করবেন। অ্যাপে নিবন্ধন করার সময় নাম, জন্মতারিখ, এনআইডি নম্বর, অন্য কোনো শারীরিক জটিলতা আছে কি না এবং পেশা প্রভৃতির বিস্তারিত তথ্য দিতে হবে। তবে কারা আগে টিকা পাবেন, সেই অগ্রাধিকারের তালিকাটি প্রতিষ্ঠান ও সংগঠন থেকেও সংগ্রহ করা হবে।

প্রত্যেক ব্যক্তি করোনাভাইরাসের দুটি করে ডোজ পাবেন। তাদের প্রথম ও দ্বিতীয় ডোজের বিস্তারিতও অ্যাপের মাধ্যমে জানা যাবে।

প্রান্তিক জনগোষ্ঠী, যাদের প্রযুক্তিগত দুর্বলতা রয়েছে, তাদের সহায়তা করার জন্য ইউনিয়ন পরিষদ ও জনপ্রতিনিধিদেরও এর সঙ্গে সম্পৃক্ত করা হতে পারে বলে জানা গেছে।

কোথায় পাওয়া যাবে অ্যাপ

অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারীরা গুগল প্লে-স্টোরে এবং অ্যাপলের অ্যাপস্টোরেই এ অ্যাপটি পাবেন। স্মার্টফোনে অ্যাপটি ডাউনলোড করে নিতে হবে। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের এমআইএস, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এ-টু-আই ও তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের এ অ্যাপটি তৈরির কাজ প্রায় শেষের পথে। এখন চলছে শেষ মুহূর্তের মডিফিকেশন বা রূপান্তরের কাজ।

টিকা দেওয়ার কার্যক্রম শুরুর অন্তত দু’সপ্তাহ আগে অ্যাপটি সবার জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়ার পরিকল্পনা করছেন কর্মকর্তারা। নিবন্ধিত ব্যক্তিদের তালিকা অনুযায়ী কবে, কখন ও কাকে টিকা দেওয়া হবে, কোথায় ও কোন সময় তারা টিকা পাবেন-সবকিছু খুদে বার্তার মাধ্যমে জানিয়ে দেওয়া হবে। সেই অনুযায়ী নির্ধারিত কেন্দ্রে হাজির হয়ে টিকা নেওয়া যাবে।

যেভাবে কাজ করবে ‘করোনা টিকার অ্যাপ’

দেশে মহামারি করোনাভাইরাসের টিকা দেওয়ার কার্যক্রম সঠিকভাবে পরিচালনা করার জন্য একটি অ্যাপ্লিকেশন তৈরি করছে সরকার। করোনাভাইরাসের টিকা নিতে হলে এ অ্যাপে নিজেদের তথ্য দিয়ে তালিকাভুক্ত করতে হবে। কীভাবে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে এবং করোনার টিকা নিবন্ধনের অ্যাপটি কীভাবে কাজ করবে, এর বিস্তারিত লিখেছেন-
 ফয়সাল আহমাদ 
২১ জানুয়ারি ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

মোবাইল ফোনে অ্যাপটি ডাউনলোড করে প্রত্যেক ব্যক্তি নিজে থেকেই রেজিস্ট্রেশন করতে পারবেন। অ্যাপটা সবার জন্যই উন্মুক্ত থাকবে। যারা টিকা পাওয়ার ক্ষেত্রে অগ্রাধিকার পাবেন, তাদেরও রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। সেখান থেকে সরকার টিকাগ্রহীতার সম্পর্কে যেমন সব তথ্য পাবেন, তেমনি যারা টিকা নেবেন, তারাও পরবর্তী আপডেট সম্পর্কে জানতে পারবেন।

যেভাবে নিবন্ধন হবে

মোবাইল ফোনে ডাউনলোডের পর ফোন নম্বর ও এনআইডি নম্বর দিয়ে ব্যবহারকারীরা অ্যাপে নিজেরা নিবন্ধন করবেন। অ্যাপে নিবন্ধন করার সময় নাম, জন্মতারিখ, এনআইডি নম্বর, অন্য কোনো শারীরিক জটিলতা আছে কি না এবং পেশা প্রভৃতির বিস্তারিত তথ্য দিতে হবে। তবে কারা আগে টিকা পাবেন, সেই অগ্রাধিকারের তালিকাটি প্রতিষ্ঠান ও সংগঠন থেকেও সংগ্রহ করা হবে।

প্রত্যেক ব্যক্তি করোনাভাইরাসের দুটি করে ডোজ পাবেন। তাদের প্রথম ও দ্বিতীয় ডোজের বিস্তারিতও অ্যাপের মাধ্যমে জানা যাবে।

প্রান্তিক জনগোষ্ঠী, যাদের প্রযুক্তিগত দুর্বলতা রয়েছে, তাদের সহায়তা করার জন্য ইউনিয়ন পরিষদ ও জনপ্রতিনিধিদেরও এর সঙ্গে সম্পৃক্ত করা হতে পারে বলে জানা গেছে।

কোথায় পাওয়া যাবে অ্যাপ

অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারীরা গুগল প্লে-স্টোরে এবং অ্যাপলের অ্যাপস্টোরেই এ অ্যাপটি পাবেন। স্মার্টফোনে অ্যাপটি ডাউনলোড করে নিতে হবে। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের এমআইএস, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এ-টু-আই ও তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের এ অ্যাপটি তৈরির কাজ প্রায় শেষের পথে। এখন চলছে শেষ মুহূর্তের মডিফিকেশন বা রূপান্তরের কাজ।

টিকা দেওয়ার কার্যক্রম শুরুর অন্তত দু’সপ্তাহ আগে অ্যাপটি সবার জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়ার পরিকল্পনা করছেন কর্মকর্তারা। নিবন্ধিত ব্যক্তিদের তালিকা অনুযায়ী কবে, কখন ও কাকে টিকা দেওয়া হবে, কোথায় ও কোন সময় তারা টিকা পাবেন-সবকিছু খুদে বার্তার মাধ্যমে জানিয়ে দেওয়া হবে। সেই অনুযায়ী নির্ধারিত কেন্দ্রে হাজির হয়ে টিকা নেওয়া যাবে।