স্টার্টআপদের সহায়তা করবে জুম
jugantor
স্টার্টআপদের সহায়তা করবে জুম

  আইটি ডেস্ক  

২১ এপ্রিল ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

বিশ্বব্যাপী বহুল জনপ্রিয় ভিডিও কনফারেন্স অ্যাপ জুম এবার স্টার্টআপদের জন্য দশ কোটি ডলারের নতুন তহবিল তৈরি করেছে। তবে এ তহবিল পেতে স্টার্টআপ প্রতিষ্ঠানগুলোকে জুমের প্রযুক্তি অ্যাপ ব্যবহার করতে হবে। সম্প্রতি জুমের প্রধান অর্থ কর্মকর্তা কেলি স্টেকেলবার্গ জানিয়েছেন, যারা ‘জুম অ্যাপস’ তৈরি করছেন তাদের প্রতিষ্ঠানে বিশেষ এ তহবিল থেকে বিনিয়োগ করা হবে। এ অর্থের পরিমাণ হতে পারে দুই লাখ ৫০ হাজার ডলার থেকে শুরু করে ২৫ লাখ ডলার পর্যন্ত। যে অ্যাপগুলো প্রতিষ্ঠানের ভিডিও কনফারেন্সিং সফটওয়্যারে নতুন ফিচার হিসাবে যোগ করা যাবে তারাই এ বিনিয়োগের জন্য বিবেচিত হতে পারে। স্টেকেলবার্গ জানিয়েছেন, এটি প্রাথমিক পর্যায়ে ডেভেলপারদের পেছনে বিনিয়োগ করতে সহায়তা করবে এবং শুরুর দিকেই বাজার আকর্ষণ করতে দেবে। জুমের হিসাবের খাতা থেকেই এ তহবিল পরিচালিত হবে, একক ব্যবসায়িক মূলধন স্বত্বা হিসাবে নয়। ফলে বিনিয়োগ করা প্রতিষ্ঠানের বোর্ডেও বসবে না জুম। মহামারির এ সময়ে শুধু জুম নয়, প্রতিদ্বন্দ্বী ভিডিও কনফারেন্সিং সেবা নিয়ে মাঠে নেমেছে মাইক্রোসফট ও সিসকোর মতো বড় প্রতিষ্ঠান-ও। মাইক্রোসফটের ভিডিও কনফারেন্সিং সেবার নাম ‘টিমস’, অন্যদিকে সিসকো সিস্টেম ইনকর্পোরেটেডের সেবার নাম ওয়েবেক্স।

স্টার্টআপদের সহায়তা করবে জুম

 আইটি ডেস্ক 
২১ এপ্রিল ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

বিশ্বব্যাপী বহুল জনপ্রিয় ভিডিও কনফারেন্স অ্যাপ জুম এবার স্টার্টআপদের জন্য দশ কোটি ডলারের নতুন তহবিল তৈরি করেছে। তবে এ তহবিল পেতে স্টার্টআপ প্রতিষ্ঠানগুলোকে জুমের প্রযুক্তি অ্যাপ ব্যবহার করতে হবে। সম্প্রতি জুমের প্রধান অর্থ কর্মকর্তা কেলি স্টেকেলবার্গ জানিয়েছেন, যারা ‘জুম অ্যাপস’ তৈরি করছেন তাদের প্রতিষ্ঠানে বিশেষ এ তহবিল থেকে বিনিয়োগ করা হবে। এ অর্থের পরিমাণ হতে পারে দুই লাখ ৫০ হাজার ডলার থেকে শুরু করে ২৫ লাখ ডলার পর্যন্ত। যে অ্যাপগুলো প্রতিষ্ঠানের ভিডিও কনফারেন্সিং সফটওয়্যারে নতুন ফিচার হিসাবে যোগ করা যাবে তারাই এ বিনিয়োগের জন্য বিবেচিত হতে পারে। স্টেকেলবার্গ জানিয়েছেন, এটি প্রাথমিক পর্যায়ে ডেভেলপারদের পেছনে বিনিয়োগ করতে সহায়তা করবে এবং শুরুর দিকেই বাজার আকর্ষণ করতে দেবে। জুমের হিসাবের খাতা থেকেই এ তহবিল পরিচালিত হবে, একক ব্যবসায়িক মূলধন স্বত্বা হিসাবে নয়। ফলে বিনিয়োগ করা প্রতিষ্ঠানের বোর্ডেও বসবে না জুম। মহামারির এ সময়ে শুধু জুম নয়, প্রতিদ্বন্দ্বী ভিডিও কনফারেন্সিং সেবা নিয়ে মাঠে নেমেছে মাইক্রোসফট ও সিসকোর মতো বড় প্রতিষ্ঠান-ও। মাইক্রোসফটের ভিডিও কনফারেন্সিং সেবার নাম ‘টিমস’, অন্যদিকে সিসকো সিস্টেম ইনকর্পোরেটেডের সেবার নাম ওয়েবেক্স।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন