শর্ত না মানলে যেসব ফিচার সীমিত করবে হোয়াটসঅ্যাপ
jugantor
শর্ত না মানলে যেসব ফিচার সীমিত করবে হোয়াটসঅ্যাপ

  আইটি ডেস্ক  

১১ মে ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

ফেসবুক মালিকানাধীন মেসেজিং প্ল্যাটফর্ম হোয়াটসঅ্যাপের নতুন প্রাইভেসি পলিসি না মানলেও অ্যাকাউন্ট বন্ধ হবে না। তবে এ শর্তে যারা রাজি হবেন না, তারা কয়েকটি ফিচার ব্যবহার করতে পারবেন না। সম্প্রতি এমনটাই জানিয়েছেন হোয়াটসঅ্যাপের মুখপাত্র। প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ১৫ মে’র মধ্যে হোয়াটসঅ্যাপ-এর গোপনীয়তার নতুন নীতি ও শর্তাবলী না মানলে ব্যবহারকারীদের অ্যাকাউন্ট ডিলিট হওয়ার চিন্তা আর নেই।

অ্যাকাউন্ট ডিলিট না হলেও ফিচার সীমিত হয়ে যাবে সেসব ব্যবহারকারীদের জন্য। তারা ভিডিও-অডিও কলে কথা বলতে পারলেও চ্যাট লিস্ট ব্যবহার করতে পারবেন না। হোয়াটসঅ্যাপের মুখপাত্র বলেন, ১৫ মে’র পর যারা পলিসি আপডেট করবেন না, তাদের অ্যাকাউন্ট ডিলিট করবে না কোম্পানি। আমরা পলিসি আপডেটের বিষয়ে আরও কয়েক সপ্তাহ গ্রাহকদের নোটিফিকেশন পাঠাব। পলিসি আপডেটের পর গ্রাহকদের আরও? সুবিধা হবে বলে জানিয়েছে হোয়াটসঅ্যাপ। এমনকি ফেসবুকের সঙ্গে তাদের ‘ইন্টিগ্রেশন’ কাজে আসবে।

যদিও প্রতিষ্ঠানের এ কথা বিশ্বাস করেননি অনেক গ্রাহক। তারা আশঙ্কা করেন, ফেসবুকের কাছে গ্রাহকদের তথ্য তুলে দেবে হোয়াটসঅ্যাপ। এর আগে চলতি বছরের জানুয়ারিতে হালনাগাদ নিয়মকানুন ও শর্ত ঘোষণা করে হোয়াটসঅ্যাপ। প্রথমে বলা হয়েছিল, হোয়াটসঅ্যাপের নতুন শর্ত ৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১-এর মধ্যে কার্যকর করবে। নতুন প্রাইভেসি পলিসির প্রকাশের পর অনেকেই এটি নিয়ে প্রশ্ন তোলেন। সেসময় অনেক ব্যবহারকারী হোয়াটসঅ্যাপ ছেড়ে অন্য অ্যাপ ব্যবহার শুরু করেন। তখন পরিস্থিতির সামাল দেয়ার জন্য ১৫ মে পর্যন্ত সময় পেছায়।

শর্ত না মানলে যেসব ফিচার সীমিত করবে হোয়াটসঅ্যাপ

 আইটি ডেস্ক 
১১ মে ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

ফেসবুক মালিকানাধীন মেসেজিং প্ল্যাটফর্ম হোয়াটসঅ্যাপের নতুন প্রাইভেসি পলিসি না মানলেও অ্যাকাউন্ট বন্ধ হবে না। তবে এ শর্তে যারা রাজি হবেন না, তারা কয়েকটি ফিচার ব্যবহার করতে পারবেন না। সম্প্রতি এমনটাই জানিয়েছেন হোয়াটসঅ্যাপের মুখপাত্র। প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ১৫ মে’র মধ্যে হোয়াটসঅ্যাপ-এর গোপনীয়তার নতুন নীতি ও শর্তাবলী না মানলে ব্যবহারকারীদের অ্যাকাউন্ট ডিলিট হওয়ার চিন্তা আর নেই।

অ্যাকাউন্ট ডিলিট না হলেও ফিচার সীমিত হয়ে যাবে সেসব ব্যবহারকারীদের জন্য। তারা ভিডিও-অডিও কলে কথা বলতে পারলেও চ্যাট লিস্ট ব্যবহার করতে পারবেন না। হোয়াটসঅ্যাপের মুখপাত্র বলেন, ১৫ মে’র পর যারা পলিসি আপডেট করবেন না, তাদের অ্যাকাউন্ট ডিলিট করবে না কোম্পানি। আমরা পলিসি আপডেটের বিষয়ে আরও কয়েক সপ্তাহ গ্রাহকদের নোটিফিকেশন পাঠাব। পলিসি আপডেটের পর গ্রাহকদের আরও? সুবিধা হবে বলে জানিয়েছে হোয়াটসঅ্যাপ। এমনকি ফেসবুকের সঙ্গে তাদের ‘ইন্টিগ্রেশন’ কাজে আসবে।

যদিও প্রতিষ্ঠানের এ কথা বিশ্বাস করেননি অনেক গ্রাহক। তারা আশঙ্কা করেন, ফেসবুকের কাছে গ্রাহকদের তথ্য তুলে দেবে হোয়াটসঅ্যাপ। এর আগে চলতি বছরের জানুয়ারিতে হালনাগাদ নিয়মকানুন ও শর্ত ঘোষণা করে হোয়াটসঅ্যাপ। প্রথমে বলা হয়েছিল, হোয়াটসঅ্যাপের নতুন শর্ত ৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১-এর মধ্যে কার্যকর করবে। নতুন প্রাইভেসি পলিসির প্রকাশের পর অনেকেই এটি নিয়ে প্রশ্ন তোলেন। সেসময় অনেক ব্যবহারকারী হোয়াটসঅ্যাপ ছেড়ে অন্য অ্যাপ ব্যবহার শুরু করেন। তখন পরিস্থিতির সামাল দেয়ার জন্য ১৫ মে পর্যন্ত সময় পেছায়।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন