সোফিয়ার চেয়েও দক্ষ রোবট ‘গ্রেস’
jugantor
বিশেষ
সোফিয়ার চেয়েও দক্ষ রোবট ‘গ্রেস’

  আইটি ডেস্ক  

১২ জুন ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

কয়েক বছর আগে বিশ্ব গণমাধ্যমের শিরোনামের বিষয়বস্তু ছিল রোবট-মানবী সোফিয়া। মূলত সোফিয়াকে সৌদি আরবের নাগরিকত্ব প্রদানের পরই এটি কোনো দেশের নাগরিকত্ব পাওয়া প্রথম রোবট হিসাবে আলোচিত হয়। এবার আরও অবাক হতে হবে ‘গ্রেস’কে দেখে। সোফিয়ার মালিকানা প্রতিষ্ঠান সেই হ্যানসন রোবটিক্স-ই এবার নিয়ে এসেছে ‘গ্রেস’কে। তার দক্ষতা সোফিয়ার চেয়েও বেশি। ইংলিশ, ম্যানডারিন এবং ক্যান্টোনিজ-এ তিন ভাষায় কথা বলতে পারে গ্রেস। এশিয়ার দেশ হংকংয়ে তৈরি বলে গ্রেসের চেহারাও একেবারে এশীয়দের আদলের। নীল পোশাক পরা গ্রেসকে প্রায় কাঁধ পর্যন্ত নামা বাদামি চুলে খুব স্মার্ট দেখায়।

করোনা সংকট শুরুর পর থেকে স্বাস্থ্যকর্মীরা নিরলস পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। মূলত তাদের সহায়তা করতেই হ্যানসন রোবটিক্স নিয়ে এসেছে গ্রেসকে। করোনাকালে বয়স্ক এবং যারা সংক্রমণের ঝুঁকি এড়াতে দীর্ঘদিন ধরে গৃহবন্দি, তাদের সঙ্গে কথা বলে স্বাস্থ্যসেবা দেবে গ্রেস। মানুষের সঙ্গে নির্দিষ্ট বিষয়ে অনায়াসে কথা বলতে পারে গ্রেস। এটি মূলত আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্সের ফল। তাছাড়া বুকে একটা থার্মাল ক্যামেরা ফিট করা আছে; এর মাধ্যমে গ্রেস রোগীর শরীরের তাপমাত্রা মাপতে পারেন। আগামী বছরের মধ্যে হংকং, চীন, জাপান এবং কোরিয়ায় এ ধরনের রোবট উৎপাদন পুরোদমে শুরু করা হবে।

বিশেষ

সোফিয়ার চেয়েও দক্ষ রোবট ‘গ্রেস’

 আইটি ডেস্ক 
১২ জুন ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

কয়েক বছর আগে বিশ্ব গণমাধ্যমের শিরোনামের বিষয়বস্তু ছিল রোবট-মানবী সোফিয়া। মূলত সোফিয়াকে সৌদি আরবের নাগরিকত্ব প্রদানের পরই এটি কোনো দেশের নাগরিকত্ব পাওয়া প্রথম রোবট হিসাবে আলোচিত হয়। এবার আরও অবাক হতে হবে ‘গ্রেস’কে দেখে। সোফিয়ার মালিকানা প্রতিষ্ঠান সেই হ্যানসন রোবটিক্স-ই এবার নিয়ে এসেছে ‘গ্রেস’কে। তার দক্ষতা সোফিয়ার চেয়েও বেশি। ইংলিশ, ম্যানডারিন এবং ক্যান্টোনিজ-এ তিন ভাষায় কথা বলতে পারে গ্রেস। এশিয়ার দেশ হংকংয়ে তৈরি বলে গ্রেসের চেহারাও একেবারে এশীয়দের আদলের। নীল পোশাক পরা গ্রেসকে প্রায় কাঁধ পর্যন্ত নামা বাদামি চুলে খুব স্মার্ট দেখায়।

করোনা সংকট শুরুর পর থেকে স্বাস্থ্যকর্মীরা নিরলস পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। মূলত তাদের সহায়তা করতেই হ্যানসন রোবটিক্স নিয়ে এসেছে গ্রেসকে। করোনাকালে বয়স্ক এবং যারা সংক্রমণের ঝুঁকি এড়াতে দীর্ঘদিন ধরে গৃহবন্দি, তাদের সঙ্গে কথা বলে স্বাস্থ্যসেবা দেবে গ্রেস। মানুষের সঙ্গে নির্দিষ্ট বিষয়ে অনায়াসে কথা বলতে পারে গ্রেস। এটি মূলত আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্সের ফল। তাছাড়া বুকে একটা থার্মাল ক্যামেরা ফিট করা আছে; এর মাধ্যমে গ্রেস রোগীর শরীরের তাপমাত্রা মাপতে পারেন। আগামী বছরের মধ্যে হংকং, চীন, জাপান এবং কোরিয়ায় এ ধরনের রোবট উৎপাদন পুরোদমে শুরু করা হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন