বেজোসকে মহাকাশ থেকে ফেরত চান না ১৮ হাজার স্বাক্ষরদাতা
jugantor
বেজোসকে মহাকাশ থেকে ফেরত চান না ১৮ হাজার স্বাক্ষরদাতা

  আইটি ডেস্ক  

২২ জুন ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

চাঁদে মানুষের পা রাখার ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষ্যে মহাকাশ ভ্রমণের ঘোষণা দিয়েছেন অ্যামাজনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা জেফ বেজোস। মহাকাশে বেজোসের যাওয়া নিয়ে কারও আপত্তি না থাকলেও তাকে পৃথিবীতে ফিরতে দিতে আপত্তি রয়েছে অনেকের। বেজোসকে যাতে মহাকাশ থেকে আর পৃথিবীতে ফিরতে না দেওয়া হয়, সেজন্য ১৮ হাজারেরও বেশি ইন্টারনেট ব্যবহারকারী স্বাক্ষর করেছেন এক পিটিশনে!

জানা গেছে, আগামী মাসের ২০ তারিখে উড্ডয়নের পর প্রায় ৪৭ মাইল ওপরে গিয়ে বুস্টার থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যাবে রকেটের যাত্রীবাহী অংশটি। এরপর নভোচারীরা আসন থেকে নিজেদের মুক্ত করতে পারবেন। সে সময় ৩ মিনিট ভরশূন্য থাকবেন তারা। এরপর পৃথিবীর দিকে ফিরতি পথে যাত্রা শুরু হবে। বেজোস যাতে ফিরে আসে সেজন্য হোসে অর্টিজ নামের ব্যক্তির করা ওই অনলাইন পিটিশনের নাম ‘পিটিশন টু নট অ্যালাউ জেফ বেজোস রি-এন্ট্রি টু আর্থ’। চেঞ্জ ডট অর্গের ওই পিটিশনে স্বাক্ষর করেছেন ১৮ হাজার ১১৪ জন। পিটিশনে বলা হচ্ছে, ‘মানবজাতির ভাগ্য আপনার হাতে।’

পিটিশনে বেজোসকে সুপারম্যান সিরিজের ভিলেন লেক্স লুথার বলা হয়েছে। এ প্রসঙ্গে লেখা রয়েছে, ‘জেফ বেজোস আসলে লেক্স লুথার, যিনি একটি অসম্ভব সফল অনলাইন রিটেইল স্টোরের তথাকথিত মালিকের বেশে লুকিয়ে রয়েছেন। আদতে তিনি একজন অশুভ ক্ষমতাশালী যে কিনা বিশ্বে আধিপত্য বিস্তার করতে চাইছেন।’ ‘আমরা অনেকদিন ধরেই জানি যে জেফ এপস্টিন এবং নাইটস টেম্পলারদের সঙ্গে কাজ করছেন, গোটা বিশ্বের নিয়ন্ত্রণ পেতে ফ্রি মেসনদের সঙ্গেও কাজ করছেন তিনি। ফ্ল্যাট আর্থ ধারণা অস্বীকারীদের সঙ্গেও তিনি হাত মিলিয়েছেন; এটিই সে উপায় যার মাধ্যমে তাকে বায়মুণ্ডলের বাইরে যেতে দেবে তারা। এ সময়টিতে আমাদের সরকার নীরব থেকে গোটা ব্যাপারটি হতে দেবে।’-লেখা রয়েছে পিটিশনে।

অন্যদিকে, পিটিশনাররা লিখেছেন, ‘৫জি মাইক্রোচিপ সচল করে বড় মাপে তারা বিশ্ব দখল করার আগে এটিই হয়তো আমাদের শেষ সুযোগ।’ রকেটকে যাতে পৃথিবীতে ফিরতে না দেওয়া হয়, সেজন্য পিটিশন নির্মাতা হোসে অর্টিজ ব্লু অরিজিনকে অনুরোধ করেছেন। মজার বিষয় হচ্ছে, ব্লু অরিজিনও বেজোসেরই প্রতিষ্ঠিত মহাকাশযানবিষয়ক প্রতিষ্ঠান।

বেজোসকে মহাকাশ থেকে ফেরত চান না ১৮ হাজার স্বাক্ষরদাতা

 আইটি ডেস্ক 
২২ জুন ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

চাঁদে মানুষের পা রাখার ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষ্যে মহাকাশ ভ্রমণের ঘোষণা দিয়েছেন অ্যামাজনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা জেফ বেজোস। মহাকাশে বেজোসের যাওয়া নিয়ে কারও আপত্তি না থাকলেও তাকে পৃথিবীতে ফিরতে দিতে আপত্তি রয়েছে অনেকের। বেজোসকে যাতে মহাকাশ থেকে আর পৃথিবীতে ফিরতে না দেওয়া হয়, সেজন্য ১৮ হাজারেরও বেশি ইন্টারনেট ব্যবহারকারী স্বাক্ষর করেছেন এক পিটিশনে!

জানা গেছে, আগামী মাসের ২০ তারিখে উড্ডয়নের পর প্রায় ৪৭ মাইল ওপরে গিয়ে বুস্টার থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যাবে রকেটের যাত্রীবাহী অংশটি। এরপর নভোচারীরা আসন থেকে নিজেদের মুক্ত করতে পারবেন। সে সময় ৩ মিনিট ভরশূন্য থাকবেন তারা। এরপর পৃথিবীর দিকে ফিরতি পথে যাত্রা শুরু হবে। বেজোস যাতে ফিরে আসে সেজন্য হোসে অর্টিজ নামের ব্যক্তির করা ওই অনলাইন পিটিশনের নাম ‘পিটিশন টু নট অ্যালাউ জেফ বেজোস রি-এন্ট্রি টু আর্থ’। চেঞ্জ ডট অর্গের ওই পিটিশনে স্বাক্ষর করেছেন ১৮ হাজার ১১৪ জন। পিটিশনে বলা হচ্ছে, ‘মানবজাতির ভাগ্য আপনার হাতে।’

পিটিশনে বেজোসকে সুপারম্যান সিরিজের ভিলেন লেক্স লুথার বলা হয়েছে। এ প্রসঙ্গে লেখা রয়েছে, ‘জেফ বেজোস আসলে লেক্স লুথার, যিনি একটি অসম্ভব সফল অনলাইন রিটেইল স্টোরের তথাকথিত মালিকের বেশে লুকিয়ে রয়েছেন। আদতে তিনি একজন অশুভ ক্ষমতাশালী যে কিনা বিশ্বে আধিপত্য বিস্তার করতে চাইছেন।’ ‘আমরা অনেকদিন ধরেই জানি যে জেফ এপস্টিন এবং নাইটস টেম্পলারদের সঙ্গে কাজ করছেন, গোটা বিশ্বের নিয়ন্ত্রণ পেতে ফ্রি মেসনদের সঙ্গেও কাজ করছেন তিনি। ফ্ল্যাট আর্থ ধারণা অস্বীকারীদের সঙ্গেও তিনি হাত মিলিয়েছেন; এটিই সে উপায় যার মাধ্যমে তাকে বায়মুণ্ডলের বাইরে যেতে দেবে তারা। এ সময়টিতে আমাদের সরকার নীরব থেকে গোটা ব্যাপারটি হতে দেবে।’-লেখা রয়েছে পিটিশনে।

অন্যদিকে, পিটিশনাররা লিখেছেন, ‘৫জি মাইক্রোচিপ সচল করে বড় মাপে তারা বিশ্ব দখল করার আগে এটিই হয়তো আমাদের শেষ সুযোগ।’ রকেটকে যাতে পৃথিবীতে ফিরতে না দেওয়া হয়, সেজন্য পিটিশন নির্মাতা হোসে অর্টিজ ব্লু অরিজিনকে অনুরোধ করেছেন। মজার বিষয় হচ্ছে, ব্লু অরিজিনও বেজোসেরই প্রতিষ্ঠিত মহাকাশযানবিষয়ক প্রতিষ্ঠান।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন