ফেসবুক ছাড়ছেন প্রধান প্রযুক্তি কর্মকর্তা
jugantor
ফেসবুক ছাড়ছেন প্রধান প্রযুক্তি কর্মকর্তা

  আইটি ডেস্ক  

২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

ফেসবুক ছাড়ছেন প্রধান প্রযুক্তি কর্মকর্তা

বিশ্বব্যাপী জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের ইতিহাসের আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ অধ্যায়ের সমাপ্তি হতে যাচ্ছে। দীর্ঘ ১৩ বছর দায়িত্ব পালনের পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমটি ছেড়ে যাচ্ছে প্রধান প্রযুক্তি কর্মকর্তা (সিটিও) মাইক স্কোয়েপফার।

২০০৮ সালে ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসাবে ফেসবুকে যোগ দেন স্কোয়েপফার। এরপর ২০১৩ সালে তিনি সিটিও হিসেবে দায়িত্ব নেন।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে স্কোয়েপফার জানিয়েছেন, আগামী বছরের কোনো এক সময়ে তিনি ফেসবুকের প্রথম সিনিয়র ফেলো হিসাবে অস্থায়ী পদ পেতে যাচ্ছেন। তিনি মূলত পরিবার ও জনহিতকর কাজে বেশি সময় দেওয়ার জন্য এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বলে উল্লেখ করেছেন।

প্রতিষ্ঠানটির বর্তমান হার্ডওয়্যার বিভাগের প্রধান অ্যান্ড্রেও বোসওর্থ ধারাবাহিকভাবে স্কোয়েপফারের স্থলাভিষিক্ত হবেন।

ফেসবুকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মার্ক জুকারবার্গ বলেছেন, স্কোয়েপফার খুবই গুরুত্বপূর্ণ

দায়িত্ব পালন করেছেন এবং খুবই ঘনিষ্ঠ বন্ধু।

ফেসবুক ছাড়ছেন প্রধান প্রযুক্তি কর্মকর্তা

 আইটি ডেস্ক 
২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ
ফেসবুক ছাড়ছেন প্রধান প্রযুক্তি কর্মকর্তা
ফাইল ছবি

বিশ্বব্যাপী জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের ইতিহাসের আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ অধ্যায়ের সমাপ্তি হতে যাচ্ছে। দীর্ঘ ১৩ বছর দায়িত্ব পালনের পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমটি ছেড়ে যাচ্ছে প্রধান প্রযুক্তি কর্মকর্তা (সিটিও) মাইক স্কোয়েপফার।

২০০৮ সালে ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসাবে ফেসবুকে যোগ দেন স্কোয়েপফার। এরপর ২০১৩ সালে তিনি সিটিও হিসেবে দায়িত্ব নেন।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে স্কোয়েপফার জানিয়েছেন, আগামী বছরের কোনো এক সময়ে তিনি ফেসবুকের প্রথম সিনিয়র ফেলো হিসাবে অস্থায়ী পদ পেতে যাচ্ছেন। তিনি মূলত পরিবার ও জনহিতকর কাজে বেশি সময় দেওয়ার জন্য এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বলে উল্লেখ করেছেন।

প্রতিষ্ঠানটির বর্তমান হার্ডওয়্যার বিভাগের প্রধান অ্যান্ড্রেও বোসওর্থ ধারাবাহিকভাবে স্কোয়েপফারের স্থলাভিষিক্ত হবেন।

ফেসবুকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মার্ক জুকারবার্গ বলেছেন, স্কোয়েপফার খুবই গুরুত্বপূর্ণ

দায়িত্ব পালন করেছেন এবং খুবই ঘনিষ্ঠ বন্ধু।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন