শিগগির কাটছে না চিপ সংকট
jugantor
শিগগির কাটছে না চিপ সংকট

  আইটি ডেস্ক  

২৩ অক্টোবর ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

বৈশ্বিক প্রযুক্তি বাজারের চিপ সংকটের যে মহামারি আকার ধারণ করেছিল, তার কিছুটা উন্নতি হলেও এখনি সমাধান হচ্ছে না। এর থেকে শিগগির উত্তরণের কোনো সম্ভাবনা নেই বলে জানিয়েছেন ইনটেল প্রধান প্যাট্রিক গেলসিঙ্গার। অন্তত ২০২৩ সাল পর্যন্ত চিপ সংকট দীর্ঘায়িত হওয়ার আশঙ্কা করছেন তিনি। সম্প্রতি মার্কিন এক টেলিভিশন চ্যানেলে দেওয়া সাক্ষাৎকারে প্যাট্রিক বলেন, ‘এখনই আমরা সবচেয়ে খারাপ অবস্থায় আছি। আগামী বছরের প্রতি প্রান্তিকে ক্রমান্বয়ে অবস্থার উন্নতি হতে থাকবে। কিন্তু অন্তত ২০২৩-এর আগে চাহিদা ও সরবরাহের সামঞ্জস্য পাচ্ছি না আমরা।’ ইনটেল প্রধান চিপ সংকট থেকে উত্তরণে আরও সময় লাগবে বললেও, এ ক্ষেত্রে বাজারে ইনটেলের শীর্ষ প্রতিদ্বন্দ্বী এএমডি বেশ আশাবাদী বলে জানিয়েছে। অদূরভবিষ্যতে সরবরাহ ব্যবস্থায় ‘টানটান অবস্থা’ চললেও উৎপাদন ক্ষমতা বৃদ্ধির কারণে ‘২০২২ সালে পরিস্থিতির উন্নতি হবে’ বলে চলতি বছরের ‘কোড কনফারেন্সে’ মন্তব্য করেছিলেন এএমডির প্রধান নির্বাহী ড. লিসাসু। অন্য দিকে, ২০২২ সালে জিপিইউ উৎপাদন ও সরবরাহ ব্যবস্থা প্রসঙ্গে প্রায় একই আশার কথা জানিয়ে এনভিডিয়া বলেছে, ‘আগামী বছর অবস্থার উন্নতি হবে। তাৎক্ষণিকভাবে নয়, বরং নতুন কারখানাগুলোর বদৌলতে ধীরে ধীরে বর্তমান পরিস্থিতির উন্নতি হবে।’

শিগগির কাটছে না চিপ সংকট

 আইটি ডেস্ক 
২৩ অক্টোবর ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

বৈশ্বিক প্রযুক্তি বাজারের চিপ সংকটের যে মহামারি আকার ধারণ করেছিল, তার কিছুটা উন্নতি হলেও এখনি সমাধান হচ্ছে না। এর থেকে শিগগির উত্তরণের কোনো সম্ভাবনা নেই বলে জানিয়েছেন ইনটেল প্রধান প্যাট্রিক গেলসিঙ্গার। অন্তত ২০২৩ সাল পর্যন্ত চিপ সংকট দীর্ঘায়িত হওয়ার আশঙ্কা করছেন তিনি। সম্প্রতি মার্কিন এক টেলিভিশন চ্যানেলে দেওয়া সাক্ষাৎকারে প্যাট্রিক বলেন, ‘এখনই আমরা সবচেয়ে খারাপ অবস্থায় আছি। আগামী বছরের প্রতি প্রান্তিকে ক্রমান্বয়ে অবস্থার উন্নতি হতে থাকবে। কিন্তু অন্তত ২০২৩-এর আগে চাহিদা ও সরবরাহের সামঞ্জস্য পাচ্ছি না আমরা।’ ইনটেল প্রধান চিপ সংকট থেকে উত্তরণে আরও সময় লাগবে বললেও, এ ক্ষেত্রে বাজারে ইনটেলের শীর্ষ প্রতিদ্বন্দ্বী এএমডি বেশ আশাবাদী বলে জানিয়েছে। অদূরভবিষ্যতে সরবরাহ ব্যবস্থায় ‘টানটান অবস্থা’ চললেও উৎপাদন ক্ষমতা বৃদ্ধির কারণে ‘২০২২ সালে পরিস্থিতির উন্নতি হবে’ বলে চলতি বছরের ‘কোড কনফারেন্সে’ মন্তব্য করেছিলেন এএমডির প্রধান নির্বাহী ড. লিসাসু। অন্য দিকে, ২০২২ সালে জিপিইউ উৎপাদন ও সরবরাহ ব্যবস্থা প্রসঙ্গে প্রায় একই আশার কথা জানিয়ে এনভিডিয়া বলেছে, ‘আগামী বছর অবস্থার উন্নতি হবে। তাৎক্ষণিকভাবে নয়, বরং নতুন কারখানাগুলোর বদৌলতে ধীরে ধীরে বর্তমান পরিস্থিতির উন্নতি হবে।’

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন