ভার্চুয়াল জমি বিক্রির রেকর্ড মেটাভার্সে
jugantor
ভার্চুয়াল জমি বিক্রির রেকর্ড মেটাভার্সে

  আইটি ডেস্ক  

০৪ ডিসেম্বর ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

ভার্চুয়াল জমি বিক্রির রেকর্ড মেটাভার্সে

মাসিক সাবস্ক্রিপশন ফি দিয়ে গেম খেলে ভার্চুয়াল জগতে জায়গা-জমি কেনাকাটার বিষয়টি একসময় অবাক করার বিষয় ছিল। নেটিজেনদের অনেকেই এরই মধ্যে রোবলক্স ও মাইন্ডক্রাফেট বাড়ির মালিক হয়েছেন। খেলতে খেলতে এদের কেউ কেউ জায়গা-জমি করেছে জাগেক্সে। তবে দিন দিন তা লাভজনক হয়ে উঠছে। এরই মধ্যে ২৪ লাখ ৩০ হাজার মার্কিন ডলারের রেকর্ড মূল্যে ভার্চুয়াল জমি বিক্রি করে দৃষ্টান্ত স্থাপন হলো মেটাভার্সে।

মেটাভার্স গ্রুপের এ ক্রয়টি ভার্চুয়াল জগতে জমি বা সম্পত্তি বিক্রির আগের রেকর্ডের দ্বিগুণেরও বেশি। মেটাভার্সে ফোকাস করার জন্য মেটা (পূর্বের ফেসবুক), মাইক্রোসফ্ট এবং নাইকের সাম্প্রতিক ঘোষণা অনুসরণ করেছে। এ জমিটি একটি কম্পিউটার-সিমুলেটেড স্থান যেখানে লোকেরা অবতার হিসাবে কাজকর্মের পাশাপাশি খেলতে এবং ইন্টারঅ্যাক্ট করতে পারে, যা ফেসবুকের নেক্সট সংস্করণে তারা করতে যাচ্ছে। আর এর মাধ্যমে মেটাভার্স গ্রুপ নিজেদের ‘বিশ্বের প্রথম ভার্চুয়াল রিয়েল এস্টেট কোম্পানি’ হিসাবে বর্ণনা করে মেটাভার্সের মধ্যে রিয়েল স্টেট প্রতিষ্ঠানগুলোকে জমি-কেনকাটায় গুরুত্ব দিচ্ছে।

এ নিয়ে মেটাভার্স গ্রুপের সিইও অ্যান্ড্র– কিগুয়েল এক বিবৃতিতে বলেছেন, আমরা এখন পর্যন্ত সর্ববৃহৎ পাবলিক মেটাভার্স জমি অধিগ্রহণ করে ইতিহাস তৈরি করতে পেরে আনন্দিত। ‘এই সম্পদগুলো ইতোমধ্যে মেটাভার্স গ্রুপে অনুষ্ঠিত মেটাভার্স রিয়েল এস্টেটের বিদ্যমান পোর্টফোলিওকে পরিপূরক করবে’।

ভার্চুয়াল জমি বিক্রির রেকর্ড মেটাভার্সে

 আইটি ডেস্ক 
০৪ ডিসেম্বর ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ
ভার্চুয়াল জমি বিক্রির রেকর্ড মেটাভার্সে
প্রতীকী ছবি

মাসিক সাবস্ক্রিপশন ফি দিয়ে গেম খেলে ভার্চুয়াল জগতে জায়গা-জমি কেনাকাটার বিষয়টি একসময় অবাক করার বিষয় ছিল। নেটিজেনদের অনেকেই এরই মধ্যে রোবলক্স ও মাইন্ডক্রাফেট বাড়ির মালিক হয়েছেন। খেলতে খেলতে এদের কেউ কেউ জায়গা-জমি করেছে জাগেক্সে। তবে দিন দিন তা লাভজনক হয়ে উঠছে। এরই মধ্যে ২৪ লাখ ৩০ হাজার মার্কিন ডলারের রেকর্ড মূল্যে ভার্চুয়াল জমি বিক্রি করে দৃষ্টান্ত স্থাপন হলো মেটাভার্সে।

মেটাভার্স গ্রুপের এ ক্রয়টি ভার্চুয়াল জগতে জমি বা সম্পত্তি বিক্রির আগের রেকর্ডের দ্বিগুণেরও বেশি। মেটাভার্সে ফোকাস করার জন্য মেটা (পূর্বের ফেসবুক), মাইক্রোসফ্ট এবং নাইকের সাম্প্রতিক ঘোষণা অনুসরণ করেছে। এ জমিটি একটি কম্পিউটার-সিমুলেটেড স্থান যেখানে লোকেরা অবতার হিসাবে কাজকর্মের পাশাপাশি খেলতে এবং ইন্টারঅ্যাক্ট করতে পারে, যা ফেসবুকের নেক্সট সংস্করণে তারা করতে যাচ্ছে। আর এর মাধ্যমে মেটাভার্স গ্রুপ নিজেদের ‘বিশ্বের প্রথম ভার্চুয়াল রিয়েল এস্টেট কোম্পানি’ হিসাবে বর্ণনা করে মেটাভার্সের মধ্যে রিয়েল স্টেট প্রতিষ্ঠানগুলোকে জমি-কেনকাটায় গুরুত্ব দিচ্ছে।

এ নিয়ে মেটাভার্স গ্রুপের সিইও অ্যান্ড্র– কিগুয়েল এক বিবৃতিতে বলেছেন, আমরা এখন পর্যন্ত সর্ববৃহৎ পাবলিক মেটাভার্স জমি অধিগ্রহণ করে ইতিহাস তৈরি করতে পেরে আনন্দিত। ‘এই সম্পদগুলো ইতোমধ্যে মেটাভার্স গ্রুপে অনুষ্ঠিত মেটাভার্স রিয়েল এস্টেটের বিদ্যমান পোর্টফোলিওকে পরিপূরক করবে’।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন