বেড়েছে মোবাইল ব্যবহারকারী কমেছে ইন্টারনেট পেনিট্রেশন
jugantor
বেড়েছে মোবাইল ব্যবহারকারী কমেছে ইন্টারনেট পেনিট্রেশন

  আইটি ডেস্ক  

০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

বেড়েছে মোবাইল ব্যবহারকারী কমেছে ইন্টারনেট পেনিট্রেশন

চলতি বছরের অক্টোবরের শেষে দেশে মোট মোবাইল ব্যবহারকারীর সংখ্যা ১৮ কোটি ১৩ লাখে পৌঁছেছে। এ সময় মোবাইলে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১২ কোটি ৯১ লাখে।

বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশন রেগুলেটরি কমিশনের (বিটিআরসি) তথ্য অনুযায়ী, অক্টোবরে দেশের চার মোবাইল অপারেটরের গ্রাহক বেড়েছে ১০ লাখ। এ ছাড়া মোবাইল অপারেটরগুলোর মাধ্যমে চার লাখ নতুন ইন্টারনেট গ্রাহক যুক্ত হয়েছে। মাস ব্যবধানে মোট ইন্টারনেট ব্যবহারকারী ৪ লাখ বাড়লেও ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট গ্রাহক বাড়েনি।

নিয়ন্ত্রক সংস্থার তপ্তহ্য মতে, অক্টোবরে মোট টেলিডেনসিটি ছিল ১০৫ দশমিক ৮৭ শতাংশ। মাস ব্যবধানে দশমিক ২২ শতাংশ বেড়েছে। কিন্তু এ সময়ে ইন্টারনেট ডেনসিটি কমেছে দশমিক ১৩ শতাংশ। ফলে অক্টোবরে ইন্টারনেট পেনিট্রেশন ছিল ৭৪.৬৪ শতাংশ। এক মাসে ব্রডব্যান্ডে দশমিক ৩ শতাংশ এবং মোবাইলে দশমিক ১০ শতাংশ ইন্টারনেট পেনিট্রেশন কমেছে।

সেপ্টেম্বরে দেশে মোবাইল ইন্টারনেট ব্যবহারকারী ছিল ১১ কোটি ৮৭ লাখ। ওই সময় মোট মোবাইল গ্রাহকের সংখ্যা ছিল ১৮ কোটি ২ লাখ এবং মোবাইলে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা ছিল ১২ কোটি ৮৭ লাখ।

মোবাইল অপারেটরগুলোর মধ্যে রবি অক্টোবরে সর্বাধিক পাঁচ লাখ নতুন গ্রাহক পেয়েছে। অপারেটরটির গ্রাহকসংখ্যা এখন ৫ কোটি ৩৫ লাখ। গ্রামীণফোন এ সময় দ্বিতীয় সর্বোচ্চ তিন লাখ নতুন গ্রাহক টেনেছে। অপারেটরটির মোট গ্রাহকসংখ্যা এখন ৮ কোটি ৪১ লাখ। তৃতীয় বৃহত্তম মোবাইল অপারেটর বাংলালিংক পেয়েছে নতুন এক লাখ গ্রাহক। এর মাধ্যমে অপারেটরটির মোট গ্রাহকসংখ্যা দাঁড়াল ৩ কোটি ৭১ লাখে। রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন মোবাইল অপারেটর টেলিটক অক্টোবরে ৮০ হাজার নতুন গ্রাহক পেয়েছে। ফলে টেলিটকের মোট গ্রাহক এখন ৬৪ লাখ।

সেপ্টেম্বরে দেশে মোবাইল গ্রাহকের সংখ্যা ছিল ১৮ কোটি ২ লাখ এবং মোবাইলে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা ছিল ১২ কোটি ৮৭ লাখ।

বেড়েছে মোবাইল ব্যবহারকারী কমেছে ইন্টারনেট পেনিট্রেশন

 আইটি ডেস্ক 
০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ
বেড়েছে মোবাইল ব্যবহারকারী কমেছে ইন্টারনেট পেনিট্রেশন
ফাইল ছবি

চলতি বছরের অক্টোবরের শেষে দেশে মোট মোবাইল ব্যবহারকারীর সংখ্যা ১৮ কোটি ১৩ লাখে পৌঁছেছে। এ সময় মোবাইলে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১২ কোটি ৯১ লাখে।

বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশন রেগুলেটরি কমিশনের (বিটিআরসি) তথ্য অনুযায়ী, অক্টোবরে দেশের চার মোবাইল অপারেটরের গ্রাহক বেড়েছে ১০ লাখ। এ ছাড়া মোবাইল অপারেটরগুলোর মাধ্যমে চার লাখ নতুন ইন্টারনেট গ্রাহক যুক্ত হয়েছে। মাস ব্যবধানে মোট ইন্টারনেট ব্যবহারকারী ৪ লাখ বাড়লেও ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট গ্রাহক বাড়েনি।

নিয়ন্ত্রক সংস্থার তপ্তহ্য মতে, অক্টোবরে মোট টেলিডেনসিটি ছিল ১০৫ দশমিক ৮৭ শতাংশ। মাস ব্যবধানে দশমিক ২২ শতাংশ বেড়েছে। কিন্তু এ সময়ে ইন্টারনেট ডেনসিটি কমেছে দশমিক ১৩ শতাংশ। ফলে অক্টোবরে ইন্টারনেট পেনিট্রেশন ছিল ৭৪.৬৪ শতাংশ। এক মাসে ব্রডব্যান্ডে দশমিক ৩ শতাংশ এবং মোবাইলে দশমিক ১০ শতাংশ ইন্টারনেট পেনিট্রেশন কমেছে।

সেপ্টেম্বরে দেশে মোবাইল ইন্টারনেট ব্যবহারকারী ছিল ১১ কোটি ৮৭ লাখ। ওই সময় মোট মোবাইল গ্রাহকের সংখ্যা ছিল ১৮ কোটি ২ লাখ এবং মোবাইলে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা ছিল ১২ কোটি ৮৭ লাখ।

মোবাইল অপারেটরগুলোর মধ্যে রবি অক্টোবরে সর্বাধিক পাঁচ লাখ নতুন গ্রাহক পেয়েছে। অপারেটরটির গ্রাহকসংখ্যা এখন ৫ কোটি ৩৫ লাখ। গ্রামীণফোন এ সময় দ্বিতীয় সর্বোচ্চ তিন লাখ নতুন গ্রাহক টেনেছে। অপারেটরটির মোট গ্রাহকসংখ্যা এখন ৮ কোটি ৪১ লাখ। তৃতীয় বৃহত্তম মোবাইল অপারেটর বাংলালিংক পেয়েছে নতুন এক লাখ গ্রাহক। এর মাধ্যমে অপারেটরটির মোট গ্রাহকসংখ্যা দাঁড়াল ৩ কোটি ৭১ লাখে। রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন মোবাইল অপারেটর টেলিটক অক্টোবরে ৮০ হাজার নতুন গ্রাহক পেয়েছে। ফলে টেলিটকের মোট গ্রাহক এখন ৬৪ লাখ।

সেপ্টেম্বরে দেশে মোবাইল গ্রাহকের সংখ্যা ছিল ১৮ কোটি ২ লাখ এবং মোবাইলে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা ছিল ১২ কোটি ৮৭ লাখ।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন