টিমস ‘ওয়াকিটকি’ ফিচার সব প্ল্যাটফরমে
jugantor
টিমস ‘ওয়াকিটকি’ ফিচার সব প্ল্যাটফরমে

  আইটি ডেস্ক  

১৭ জানুয়ারি ২০২২, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

মাইক্রোসফটের ভিডিও কনফারেন্সিং সেবা টিমস অ্যাপে ‘ওয়াকিটকি’ ফিচার সব প্ল্যাটফরমের জন্য উন্মুক্ত করে দিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। এ ফিচারটি ব্যবহার করে ওয়াইফাই বা সেলুলার সংযোগ থাকা অবস্থায় নিজের স্মার্টফোন ‘ওয়াকিটকি’ রেডিও হিসাবে ব্যবহার করতে পারবেন টিমস অ্যাপের ব্যবহারকারী। দুই বছর আগে ফিচারটির ঘোষণা দিয়েছিল সফটওয়্যার জায়ান্ট প্রতিষ্ঠানটি। এরপর অ্যান্ড্রয়েড বাদে দীর্ঘদিন ফিচারটি ‘প্রিভিউ’ পর্যায়ে আটকে ছিল বলে জানিয়েছে প্রযুক্তিবিষয়ক সাইট ভার্জ।

অ্যান্ড্রয়েড প্ল্যাটফরমে ফিচারটি চালু হয়েছে ২০২০ সালের সেপ্টেম্বরে। এখন আইওএসসহ জেব্রা মোবাইল ডিভাইসেও চলবে ওই ফিচারটি। মাইক্রোসফট কোভিড-১৯ মহামারির প্রথম সারির যোদ্ধাদের কাছেই ফিচারটি বাজারজাত করার চেষ্টা করেছে বলে জানিয়েছে ভার্জ। সফটওয়্যার নির্মাতা প্রতিষ্ঠানটি এই ফিচারটি নিয়ে ‘জেব্রা টেকনোলজিস’-এর সঙ্গেও কাজ করেছে।

এই দুই প্রতিষ্ঠানের পারস্পরিক সহযোগিতার কারণেই দ্রুত যোগাযোগের জন্য ফিচারটি একটি ‘ডেডিকেটেড পুশ-টু-টক’ বাটনের মাধ্যমে কাজ করবে।

মহামারি মোকাবিলায় যারা প্রথম সারিতে কাজ করছেন, তাদের মধ্যে এ ধরনের ডিভাইসের বহুল ব্যবহার রয়েছে। তবে যোগাযোগকেন্দ্রিক অন্যান্য অ্যাপে ফিচারটি এখনো বিরল। ছোট অডিও রেকর্ড করে পাঠানো যায় হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে। অন্যদিকে ডিসকর্ডের আদলে নতুন ফিচার চালু করেছে স্ল্যাক।

টিমস ‘ওয়াকিটকি’ ফিচার সব প্ল্যাটফরমে

 আইটি ডেস্ক 
১৭ জানুয়ারি ২০২২, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

মাইক্রোসফটের ভিডিও কনফারেন্সিং সেবা টিমস অ্যাপে ‘ওয়াকিটকি’ ফিচার সব প্ল্যাটফরমের জন্য উন্মুক্ত করে দিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। এ ফিচারটি ব্যবহার করে ওয়াইফাই বা সেলুলার সংযোগ থাকা অবস্থায় নিজের স্মার্টফোন ‘ওয়াকিটকি’ রেডিও হিসাবে ব্যবহার করতে পারবেন টিমস অ্যাপের ব্যবহারকারী। দুই বছর আগে ফিচারটির ঘোষণা দিয়েছিল সফটওয়্যার জায়ান্ট প্রতিষ্ঠানটি। এরপর অ্যান্ড্রয়েড বাদে দীর্ঘদিন ফিচারটি ‘প্রিভিউ’ পর্যায়ে আটকে ছিল বলে জানিয়েছে প্রযুক্তিবিষয়ক সাইট ভার্জ।

অ্যান্ড্রয়েড প্ল্যাটফরমে ফিচারটি চালু হয়েছে ২০২০ সালের সেপ্টেম্বরে। এখন আইওএসসহ জেব্রা মোবাইল ডিভাইসেও চলবে ওই ফিচারটি। মাইক্রোসফট কোভিড-১৯ মহামারির প্রথম সারির যোদ্ধাদের কাছেই ফিচারটি বাজারজাত করার চেষ্টা করেছে বলে জানিয়েছে ভার্জ। সফটওয়্যার নির্মাতা প্রতিষ্ঠানটি এই ফিচারটি নিয়ে ‘জেব্রা টেকনোলজিস’-এর সঙ্গেও কাজ করেছে।

এই দুই প্রতিষ্ঠানের পারস্পরিক সহযোগিতার কারণেই দ্রুত যোগাযোগের জন্য ফিচারটি একটি ‘ডেডিকেটেড পুশ-টু-টক’ বাটনের মাধ্যমে কাজ করবে।

মহামারি মোকাবিলায় যারা প্রথম সারিতে কাজ করছেন, তাদের মধ্যে এ ধরনের ডিভাইসের বহুল ব্যবহার রয়েছে। তবে যোগাযোগকেন্দ্রিক অন্যান্য অ্যাপে ফিচারটি এখনো বিরল। ছোট অডিও রেকর্ড করে পাঠানো যায় হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে। অন্যদিকে ডিসকর্ডের আদলে নতুন ফিচার চালু করেছে স্ল্যাক।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন