ইউএসবি-সি বাধ্যতামূলক ব্রাজিলেও
jugantor
ইউএসবি-সি বাধ্যতামূলক ব্রাজিলেও

  আইটি ডেস্ক  

০২ জুলাই ২০২২, ০০:০০:০০  |  প্রিন্ট সংস্করণ

ইউরোপের পর এবার স্মার্টফোনে ইউএসবি-সি চার্জিং পোর্ট বাধ্যতামূলক করার প্রস্তাবে নিজ নাগরিকদের পরামর্শ নিচ্ছে ব্রাজিল। সম্প্রতি নতুন একটি আইন করেছে ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন, যাতে ২০২৪ সালের মধ্যে বেশ কিছু ইলেকট্রনিক গ্যাজেটের চার্জিং পোর্ট হিসাবে ইউএসবি-সি পোর্ট রাখার বিষয়টি বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। অ্যাপলের আইফোনও আছে সে তালিকায়।

যুক্তরাষ্ট্রের ডেমোক্রেটিক দলের জনপ্রতিনিধিরাও একই রকমের আইন প্রণয়নের চেষ্টা করছেন। ‘আন্তর্জাতিক বাজারের গতিবিধি সম্পর্কে আমরা অবহিত আছি, আনাতেওর কারিগরি বিভাগ বিষয়টি বিচার-বিশ্লেষণ করে দেখেছে এবং ব্রাজিলের বাজারে একই ধরনের আইন প্রণয়নের প্রস্তাব দিয়েছে,’ এক ব্লগ পোস্টে বলেছে সংস্থাটি।

অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম নির্ভর ডিভাইসগুলোতে ইউএসবি-সি পোর্টের উপস্থিতি আছে আগে থেকেই। তবে ইউরোপের নতুন আইনে সবচেয়ে বড় বিপদে পড়েছে প্রযুক্তি জায়ান্ট অ্যাপল। আইফোনের বেলায় নিজস্ব লাইটনিং পোর্ট প্রযুক্তি ছেড়ে ইউএসবি-সি পোর্টের দিকে ঝুঁকতে হবে প্রতিষ্ঠানটিকে। তবে, অ্যাপল ইউএসবি-সি পোর্টবাহী আইফোন নিয়ে পরীক্ষা চালাচ্ছে এমন খবর বেশ কিছু দিন ধরেই শোনা যাচ্ছে। ইতোমধ্যেই নিজস্ব ট্যাবলেট ও ল্যাপটপে ইউএসবি-সি পোর্ট যোগ করা শুরু করেছে প্রতিষ্ঠানটি। আনাতেও বলছে, ই-বর্জ্য কমানো এবং ভোক্তাদের সুবিধার কথা ভেবেই ইউএসবি-সি পোর্টকে বাধ্যতামূলক করার প্রস্তাব দিয়েছে তারা। তবে, এ প্রস্তাবের নেতিবাচক দিক হিসাবে আইন প্রয়োগের বাড়তি খরচ এবং উদ্ভাবনী প্রক্রিয়ায় সম্ভাব্য প্রতিবন্ধকতার কথা বলছে সংস্থাটি।

ইউএসবি-সি বাধ্যতামূলক ব্রাজিলেও

 আইটি ডেস্ক 
০২ জুলাই ২০২২, ১২:০০ এএম  |  প্রিন্ট সংস্করণ

ইউরোপের পর এবার স্মার্টফোনে ইউএসবি-সি চার্জিং পোর্ট বাধ্যতামূলক করার প্রস্তাবে নিজ নাগরিকদের পরামর্শ নিচ্ছে ব্রাজিল। সম্প্রতি নতুন একটি আইন করেছে ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন, যাতে ২০২৪ সালের মধ্যে বেশ কিছু ইলেকট্রনিক গ্যাজেটের চার্জিং পোর্ট হিসাবে ইউএসবি-সি পোর্ট রাখার বিষয়টি বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। অ্যাপলের আইফোনও আছে সে তালিকায়।

যুক্তরাষ্ট্রের ডেমোক্রেটিক দলের জনপ্রতিনিধিরাও একই রকমের আইন প্রণয়নের চেষ্টা করছেন। ‘আন্তর্জাতিক বাজারের গতিবিধি সম্পর্কে আমরা অবহিত আছি, আনাতেওর কারিগরি বিভাগ বিষয়টি বিচার-বিশ্লেষণ করে দেখেছে এবং ব্রাজিলের বাজারে একই ধরনের আইন প্রণয়নের প্রস্তাব দিয়েছে,’ এক ব্লগ পোস্টে বলেছে সংস্থাটি।

অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম নির্ভর ডিভাইসগুলোতে ইউএসবি-সি পোর্টের উপস্থিতি আছে আগে থেকেই। তবে ইউরোপের নতুন আইনে সবচেয়ে বড় বিপদে পড়েছে প্রযুক্তি জায়ান্ট অ্যাপল। আইফোনের বেলায় নিজস্ব লাইটনিং পোর্ট প্রযুক্তি ছেড়ে ইউএসবি-সি পোর্টের দিকে ঝুঁকতে হবে প্রতিষ্ঠানটিকে। তবে, অ্যাপল ইউএসবি-সি পোর্টবাহী আইফোন নিয়ে পরীক্ষা চালাচ্ছে এমন খবর বেশ কিছু দিন ধরেই শোনা যাচ্ছে। ইতোমধ্যেই নিজস্ব ট্যাবলেট ও ল্যাপটপে ইউএসবি-সি পোর্ট যোগ করা শুরু করেছে প্রতিষ্ঠানটি। আনাতেও বলছে, ই-বর্জ্য কমানো এবং ভোক্তাদের সুবিধার কথা ভেবেই ইউএসবি-সি পোর্টকে বাধ্যতামূলক করার প্রস্তাব দিয়েছে তারা। তবে, এ প্রস্তাবের নেতিবাচক দিক হিসাবে আইন প্রয়োগের বাড়তি খরচ এবং উদ্ভাবনী প্রক্রিয়ায় সম্ভাব্য প্রতিবন্ধকতার কথা বলছে সংস্থাটি।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন