প্রোগ্রামিংয়ের চর্চা জন্মের পর থেকে হওয়া উচিত

প্রকাশ : ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

  সাইফুল আহমাদ

রাজধানীর ধানমণ্ডিতে ইউল্যাব আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে বক্তব্য দিচ্ছেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার

দেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোকে প্রোগ্রামিংয়ের ওপর জোর দেয়ার আহ্বান জানিয়ে ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, প্রোগ্রামিংয়ের চর্চাটা জন্মের পর থেকে হওয়া উচিত।

৮ সেপ্টেম্বর, শনিবার সন্ধ্যায় রাজধানীর ধানমণ্ডিতে ইউনিভার্সিটি অব লিবারেল আর্টস বাংলাদেশ (ইউল্যাব) আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার এ কথা বলেন।

মন্ত্রী আরও বলেন ‘বেশির ভাগ ক্ষেত্রে উচ্চস্তরের কম্পিউটার বিজ্ঞান বা সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ারিং পড়তে চান, তারা এই প্রোগ্রামিংয়ের পার্টটা একটু অ্যাভয়েড করেন।

আমার মতে, তারা একটি স্টেজে আসার পরে তাদের মধ্যে এটি গ্রহণ করার একটি প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি হয়। তাদের নিজেদের বোঝার জন্য প্রবলেম হয়। এ কাজটি যদি প্রাথমিক স্তর থেকে করে আসতে পারি, তাহলে যখন সে বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়তে আসবে, তখন তার কাছে বিষয়টি সহজ হয়ে যাবে।’

প্রোগ্রামিং শিক্ষায় সর্বশেষ প্রযুক্তি ব্যবহারের ওপর গুরুত্বারোপ করে মন্ত্রী আরও বলেন, একজন প্রোগ্রামারকে যদি বিদেশে পাঠানো যায়, তাহলে তিনি বছরে সোয়া লাখ ডলার আয় করতে পারবেন।

অন্যদিকে একজন কায়িক শ্রমিকের ক্ষেত্রে মাসিক হিসাবটা হবে হাজারে। তাই সোয়া লাখ ডলারের টার্গেট করাটাই সহজ কাজ। বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর উদ্দেশে মন্ত্রী বলেন, ‘তাদের (শিক্ষার্থীদের) আপনারা পণ্ডিত বানাচ্ছেন। আমার কিন্তু কাজের লোক দরকার পণ্ডিত লোকের চেয়ে। তার পাণ্ডিত্য যেমন থাকতে হবে, তাকে কাজও জানতে হবে।’

অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) চেয়ারম্যান অধ্যাপক আবদুল মান্নান, বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেসের (বেসিস) সভাপতি আলমাস কবিরসহ আরও অনেকেই।