শুরুর আগেই খরচ বাড়ছে এমএনপির

প্রকাশ : ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

  যুগান্তর ডেস্ক   

বর্তমান মোবাইল নম্বর ঠিক রেখে অপারেটর বদলের সুযোগ বা এমএনপি সেবা চালুর বিষয়টি এখনও কাগজে-কলমেই রয়ে গেছে। তবে এর আগেই গ্রাহকের খরচ ২০ টাকা বাড়ানোর আয়োজন চূড়ান্ত করা হয়েছে। আগে সেবা নেয়ার জন্য প্রতিগ্রাহকের জন্য ৩০ টাকা চার্জ ধরা হয়েছিল। নীতিমালায় অন্তর্ভুক্ত এ ধারা সম্প্রতি তুলে দিয়ে চার্জের বিষয়টি উন্মুক্ত করা হয়েছে। জানা গেছে, নতুন চার্জ ৫০ টাকা হবে বলে নির্ধারণ করা হয়েছে। তবে বাংলাদেশে টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের মাধ্যমে সরকারের কাছ থেকে অনুমোদন নেয়ার আনুষ্ঠানিকতা বাকি রয়েছে। নিজের বর্তমান নম্বর ঠিক রেখে আলোচিত এ সেবা চালুর কথা শোনা যাচ্ছে প্রায় এক দশক ধরে। গত বছর এটি চালুর চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়া হলেও অপারেটরগুলোর আপত্তির এখন পর্যন্ত তা চালুর পর্যায়ে রয়ে গেছে। বারবার তারিখ বদল হচ্ছে। ১ আগস্ট প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের সঙ্গে টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন ও অপারেটরদের বৈঠকে এ সেবা চালুর নতুন তারিখ ১ অক্টোবর করা হয়। একই সভায় চার্জ বাড়ানোর বিষয়েও সিদ্ধান্ত হয়। ওই সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ইতিমধ্যে বিটিআরসি মন্ত্রণালয়ের কাছ থেকে নীতিমালায় পরিবর্তনের বিষয়ে অনুমোদন নিয়েছে। গত বছর নভেম্বরে বিটিআরসি ইনফোজিলিয়ন বিডি-টেলিটেক নামে একটি কোম্পানিকে এ সেবা চালুর লাইসেন্স দেয়। তখন ১৮০ দিনের মধ্যে চালুর শর্ত ছিল। কোম্পানিটি মার্চের মধ্যে সেবা চালুর প্রতিশ্রুতি দিলেও তা হয়নি। সেবাটি চালু হলে গ্রাহকরা নির্ধারিত ফি দিয়ে নম্বর ঠিক রেখে অপারেটর পরিবর্তনের আবেদন করতে পারবেন। আবেদন করার ৭২ ঘণ্টার মধ্যে তার অপারেটর বদলে যাবে। তবে পুনরায় অপারেটর পরিবর্তন করতে হলে তাকে ৯০ দিন অপেক্ষা করতে হবে। এর আগে ২০১৬ সালের সেপ্টেম্বরে একবার নিলাম আহ্বান করেও শেষ পর্যন্ত নিরাপত্তার কথা বলে তা বাতিল করা হয়। এরও আগে ২০০৮ সালে প্রথম উদ্যোগ নেয়া হয় নিলামের। এরপর ২০১৪ সালে বিটিআরসি এ সংক্রান্ত নীতিমালা করে। ওই সময়ও নানা অজুহাত তৈরি করে উদ্যোগটি পিছিয়ে দিতে অনেকটা বাধ্য করে অপারেটরগুলো। -আইটি ডেস্ক