কৃষি মন্ত্রণালয়ে ৬ পদে নিয়োগ

  এমএ রহমান ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

জনবল নিয়োগ দেবে বাংলাদেশ সরকারের কৃষি মন্ত্রণালয়। মন্ত্রণালয়ের প্রশাসন-১ শাখার অধীনে ৬টি শূন্য পদের বিপরীতে ৪৬ জনকে নিয়োগ দেয়া হবে। এ লক্ষে আগ্রহীদের কাছ আবেদন চেয়ে সম্প্রতি বিভিন্ন জাতীয় দৈনিকে বিজ্ঞপ্তি দেয়া হয়েছে। আগ্রহ ও যোগ্যতা থাকলে আপনিও আবেদন করতে পারেন এসব পদে। তার আগে বিজ্ঞপ্তিতে চোখ বুলিয়ে নিন একবার। মিলিয়ে নিন যোগ্যতার মাপকাঠি। আর প্রস্তুতিটা শুরু করুন এখন থেকেই।

কোন পদে কতজনকে নিয়োগ : কৃষি মন্ত্রণালয়ের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে ৬টি শূন্য পদে মোট ৪৬ জনকে নিয়োগ দেয়া হবে। এর মধ্যে সরজমিনে তদন্তকারী পদে ৩ জন, সাঁট-লিপিকার কাম কম্পিউটার অপারেটর পদে ১২ জন, ক্যাশিয়ার পদে ১ জন, অফিস সহকারী কাম-কম্পিউটার মুদ্রাক্ষরিক পদে ৯ জন, ক্যাশ সরকার পদে ১ জন, অফিস সহায়ক পদে ২০ জনকে নিয়োগ দেয়া হবে।

আবেদনের যোগ্যতা : কৃষি মন্ত্রণালয়ের বিজ্ঞপ্তিতে ভিন্ন ভিন্ন পদে ভিন্ন ভিন্ন যোগ্যতা চাওয়া হয়েছে। এর মধ্যে সরজমিনে তদন্তকারী পদে আবেদনের যোগ্যতা কোনো স্বীকৃত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে কৃষি, কৃষি অর্থনীতি, গণিত, অর্থনীতি, পরিসংখ্যান বা বাণিজ্যে দ্বিতীয় শ্রেণীতে স্নাতক ডিগ্রি। সাঁট-লিপিকার কাম কম্পিউটার অপারেটর পদে ১২ জনকে নেয়া হবে। সাঁট-লিপিকার কাম কম্পিউটার অপারেটর পদে আবেদনের যোগ্যতা স্নাতক পাস। তবে তাদের কম্পিউটার টাইপিং গতি প্রতি মিনিটে বাংলায় ২৫ ও ইংরেজিতে ৩০ শব্দ থাকতে হবে। ক্যাশিয়ার পদে আবেদনের যোগ্যতা কোনো স্বীকৃত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বাণিজ্যে স্নাতক ডিগ্রি থাকতে হবে।

অফিস সহকারী কাম-কম্পিউটার মুদ্রাক্ষরিক পদে ৯ জনকে নেয়া হবে। যোগ্যতা স্বীকৃত বোর্ড থেকে উচ্চমাধ্যমিক বা সমমানের ডিগ্রি থাকতে হবে। টাইপিং সিড বাংলা ও ইংরেজি ২০ শব্দ। কম্পিউটার চালনায় দক্ষ হতে হবে।

ক্যাশ সরকার পদে আবেদনের যোগ্যতা বাণিজ্য বিভাগে উচ্চ মাধ্যমিক পাস। কম্পিউটার চালনায় দক্ষতা থাকতে হবে। ওয়ার্ড প্রসেসিংয়ে দক্ষতা থাকতে হবে। অফিস সহায়ক পদে ২০ জনকে নিয়োগ দেয়া হবে। যোগ্যতা এসএসসসি পাস হতে হবে।

আবেদনের বয়স : কৃষি মন্ত্রণালয়ের এসব পদে আবেদনের জন্য আগ্রহীর বয়স ৩১ জানুয়ারির ২০১৯ তারিখে ১৮ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে হতে হবে। তবে মুক্তিযোদ্ধা, প্রতিবন্ধী প্রার্থীদের ক্ষেত্রে বয়স ৩২ বছর পর্যন্ত শিথিলযোগ্য। এক্ষেত্রে কোনো এফিডেভিড গ্রহণযোগ্য নয়।

কারা আবেদন করতে পারবে : বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী পদগুলোতে নির্দিষ্ট কয়েকটি জেলার বাইরে কেউ আবেদন করতে পারবেন না। জেলা কোটা দেখতে বিস্তারিত বিজ্ঞপ্তিতে দেখুন।

আবেদনের সময়সীমা : এর মধ্যে শুরু হয়ে গেছে আবেদন প্রক্রিয়া। অনলাইনে আবেদন করা যাবে ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ পর্যন্ত।

আবেদন প্রক্রিয়া : এ পদগুলোতে আবেদনের জন্য http://moa.teletalk.com.bd এ ঠিকানায় প্রবেশ করে অনলাইনে ফরম পূরণ করে আবেদন করতে হবে। অনলাইনে আবেদনপত্র যথাযথভাবে পূরণপূর্বক নির্দেশমতে ছবি এবং স্বাক্ষর আপলোডের পর আবেদনপত্র সাবমিশন সম্পন্ন হলে কম্পিউটারে ছবিসহ Application চৎবারবি দেখা যাবে। নির্ভুলভাবে আবেদনপত্র সাবমিট করা হলে প্রার্থী একটি ইউজার আইডিসহ ছবি এবং স্বাক্ষরযুক্ত একটি অ্যাপ্লিকেন্টস কপি পাবেন। অ্যাপ্লিকেন্টস কপি ডাউনলোড ও প্রিন্ট করে সংরক্ষণ করতে হবে। ইউজার আইডি নম্বরটি ব্যবহার করে ৭২ ঘণ্টার মধ্যে টেলিটকের মাধ্যমে পরীক্ষা ফি জমা দিতে হবে।

টেলিটকে এসএমএস পাঠাতে প্রথমে moa <স্পেস> UserID লিখে ১৬২২২ নম্বরে সেন্ড করতে হবে। পরে মোবাইল ব্যালেন্স থেকে ফি কেটে ফিরতি এসএমএসে UserID ও Password জানিয়ে দেয়া হবে। পরবর্তী ধাপের জন্য এটি সংরক্ষণ করতে হবে, যা দিয়ে পরীক্ষার প্রবেশপত্র ডাউনলোড করতে হবে।

বাছাই : প্রার্থীদের আবেদন যাচাই-বাছাইয়ের পরে লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে হবে। এ পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হলে চূড়ান্তভাবে নির্বাচিত হবেন। এ পরীক্ষার সময় পরে জানান হবে।

বেতন ভাতা : চূড়ান্তভাবে নির্বাচিতরা জাতীয় বেতন স্কেল ২০১৫ অনুযায়ী বেতন-ভাতা পাবেন।

আরও পড়ুন
--
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×