পেশাগত উৎকর্ষতা চাইলে ৫টি জিনিস থেকে বিরত থাকুন

  চাকরির খোঁজ প্রতিবেদক ১৮ মে ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ক্যারিয়ার বা পেশাগত জীবন আমাদের সবার কাছে খুবই রোমাঞ্চকর একটি ব্যাপার। জীবনের প্রথম চাকরি নিয়ে কমবেশি সবাই আমরা বেশ উত্তেজিত থাকি। কাজের পরিবেশ কেমন হবে তা নিয়েও আমাদের থাকে বিস্তর স্বপ্ন। কিন্তু পেশাগত জীবনে অনেক নেতিবাচক দিক আছে, যেদিকে আমরা খুব একটা নজর দিই না। কিন্তু পরবর্তী সময়ে এগুলোই আমাদের সামনে বড় সমস্যা হিসেবে দেখা দেয়। টাইম্স অব ইন্ডিয়ার একটি প্রতিবেদনে এমন ৫টি বিষয়ের কথা উল্লেখ করা হয়েছে যা আপনার পেশাগত উৎকর্ষতায় বাধা হয়ে দাঁড়ায়।

সীমা লংঘন নয় : আমাদের সবাই কর্মক্ষেত্রে দক্ষতার পরিচয় দিতে চাই। সাফল্যের জন্য নিজেদের সীমাও অনেক সময় অতিক্রম করার তাড়না থাকে। কিন্তু অফিসে এমন ভালো কাজ আপনার জন্য সমস্যা তৈরি করতে পারে। আপনার দক্ষতা ও সাফল্যে আপনার সহকর্মীরা আপনার প্রতি ঈর্ষান্বিত হতে পারে। অন্যদিকে আপনি যত কাজ করবেন আপনাকে তত কাজ করতে দেয়া হবে। সময়সীমার আগে যদি কাজ শেষ করে ফেলতে পারেন তাহলে আপনার দক্ষতার জন্য পদোন্নতি হোক বা না হোক, নতুন কাজের চাপ আপনার ঘাড়ে দেয়া হবে। আপনি করতে পারেন আর সে কারণেই আপনাকে বাড়তি কাজ দেয়া হবে।

কাজ করুন প্রতিষ্ঠানের স্বার্থে : শুনতে খারাপ লাগলেও এটাই বাস্তবতা যে, আপনি যেমন আর যত কাজই করুন না কেন দিন শেষে প্রতিষ্ঠানের স্বার্থই আসল কথা। প্রতিষ্ঠানের স্বার্থের জন্যই আপনাকে কাজ করতে হবে। আপনার কাজের মাধ্যমেই প্রতিষ্ঠান উন্নতি করবে। তবে ক্যারিয়ারে আপনার উন্নতি হল কী হল না তা নিয়ে প্রতিষ্ঠানের খুব একটা মাথাব্যথা নেই। দিনের পর দিন যদি অফিসে অতিরিক্ত সময় ধরে কাজ করেন তাও প্রতিষ্ঠান ভুলে যাবে যদি একদিন খানিকটা সময় কম কাজ করেন।

টাকাকে সব সময় প্রাধান্য নয় : অনেকদিন কাজ করার মতো নিজের কাছেই মনে হতে পারে যে, আপনি শুধু টাকা উপার্জনের জন্যই চাকরি করছেন। অনেকেই শুধু প্রথম চাকরিতে যোগদানের সময় চাকরির বেতন বিবেচনা করে। কোন খাতে, কোন প্রতিষ্ঠানে, কোন অবস্থানে কাজ করে ক্যারিয়ার শুরু করলে ভালো হবে তার থেকে ‘নগদ নারায়ন’ অর্থের অংকের দিকেই মনোযোগ দেন অনেকেই। আর এ কারণেই ক্যারিয়ারে কাক্সিক্ষত লক্ষ্যমাত্রা অর্জিত হয় না অনেকের।

অফিসে রাজনীতি নয় : আপনি যতই এড়িয়ে চলবার চেষ্টা করেন না কেন অফিসে পলিটিক্স বা রাজনীতি থাকবেই। কখনও এই পলিটিক্সের ‘বলী’ করা হবে আপনাকেই। বিশেষ করে আপনি যখন উন্নতি করবেন তখন অনেকেই আপনার বিরুদ্ধে রাজনীতি-ষড়যন্ত্র করে আপনাকে নিচের দিকে নামিয়ে আনার চেষ্টা করবে। এই কারণে আপনাকেও এই খেলার কৌশলগুলো শিখে নিজেকে বাঁচিয়ে চলতে হবে।

একদিনে সপ্তাহ : সপ্তাহে ৭ দিন থাকলেও আপনার জন্য তা হয়ে যেতে পারে ১ দিন। আপনি যদি কাজ পাগল ব্যক্তি হন তাহলে কখন সকাল থেকে রাত হল তা অনেক সময় বুঝতেই পারবেন না। যে দিনটি আপনি খেয়াল করবেন তা হল আপনার ছুটির দিন। সপ্তাহে পাওয়া এই একটি মাত্র ছুটির দিনেই আপনার জীবন আটকে থাকবে। বাকি ৬ দিন রোবটের জীবনযাপন করার পর ১ দিন মানবীয় জীবন থাকবে আপনার। এই দিনটির মূল্য দিতে শিখুন। পরিবারকে সময় দিন। নিজেকে সময় দিন। অফিসের কাজ ছুটির দিনে নয়।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter