পরিচ্ছন্ন নগরী গড়াসহ ৩১ প্রতিশ্রুতি খালেকের

  খুলনা ব্যুরো ১৫ মে ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

খুলনা সিটি কর্পোরেশন এলাকাকে জলাবদ্ধতামুক্ত ও আধুনিক পরিচ্ছন্ন নগরী গড়াসহ ৩১ দফা প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী তালুকদার আবদুল খালেক। ২৫ এপ্রিল ঘোষিত নির্বাচনী ইশতেহারে এসব প্রতিশ্রুতি দেন তিনি। তার ইশতেহারে ২০১৩ সালে রেখে যাওয়া অনেক অসমাপ্ত কাজ সমাপ্ত করারও অঙ্গীকার রয়েছে।

৩১ দফা প্রতিশ্রুতির মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল- সিটি গভর্নমেন্ট ব্যবস্থা প্রবর্তনে উদ্যোগ গ্রহণ, সিটি কর্পোরেশন পরিচালনায় পরিকল্পনা গ্রহণে পরামর্শক কমিটি গঠন, পানি ও পয়ঃনিষ্কাশন ব্যবস্থার উন্নয়নে খুলনা ওয়াসার সঙ্গে সমন্বয় করে সুপেয় পানি সংকট নিরসনের ব্যবস্থা করা। এছাড়া স্বাস্থ্যসেবার মানোন্নয়ন, হোল্ডিং ট্যাক্স না বাড়িয়ে সেবার মান বৃদ্ধি, কবরস্থান ও শ্মশান ঘাটের উন্নয়ন, মাদকমুক্ত নগরী গড়ে তোলা, নাগরিক সেবা বৃদ্ধির জন্য নতুন আয়ের উৎস সৃষ্টি করা, বড় ধরনের সভা-সমাবেশের জন্য সিটি সেন্টার গড়ে তোলা, বিনামূল্যে তথ্য-প্রযুক্তি ব্যবহারের সুযোগ সৃষ্টি, গুরুত্ব বিবেচনা করে নগরীর বিভিন্ন সড়ক উন্নয়ন, পার্ক-উদ্যান নির্মাণ ও বনায়ন সৃষ্টি করা, ময়ূর নদীসহ নগরীর ২২টি খাল খনন ও সংস্কার, নগরীর সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডের উন্নয়নের জন্য হল ও নাট্যমঞ্চ তৈরি করা, মুক্তিযোদ্ধা ও বিশিষ্ট ব্যক্তিদের নামে রাস্তার নামকরণ, ওয়ার্ডভিত্তিক ক্রীড়া উন্নয়নে উদ্যোগ গ্রহণ, সোলার পার্ক আধুনিকায়ন করে আন্তর্জাতিক মানে উন্নীত করা এবং নগরীর বিভিন্ন বধ্যভূমির স্মৃতি সংরক্ষণে যথাযথ পদক্ষেপ নেয়ার প্রতিশ্রুতি দেন তালুকদার আবদুল খালেক।

পাশাপাশি কেসিসিকে দুর্নীতিমুক্ত করা এবং যোগ্যতা ও মেধার ভিত্তিতে চাকরিতে নিয়োগ দেয়া, যাতায়াত ও ট্রাফিক ব্যবস্থার উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ স্থানে সিসি ক্যামেরা স্থাপন, নগরীতে সড়ক বাতির উন্নয়নসহ আধুনিক ট্রাফিক ব্যবস্থা গড়ে তোলা, ইজিবাইক বা ব্যাটারিচালিত রিকশার লাইসেন্স প্রদান ও হকারদের পুনর্বাসন করা, শিক্ষা ব্যবস্থার উন্নয়নে আরও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলা, নারী উন্নয়ন ও অধিকার প্রতিষ্ঠায় সহযোগিতা প্রদান ও নগরীতে সুইমিংপুল স্থাপন করারও অঙ্গীকার করেন তিনি।

খালেকের ইশতেহারে আরও বলা হয়, বয়স্ক ও প্রতিবন্ধীদের সহায়তা প্রদানে পরিকল্পনা গ্রহণ করে হতদরিদ্র, ছিন্নমূল, ভবঘুরে ভিখারিদের পুনর্বাসনে বিশেষ প্রকল্প গ্রহণ করা হবে। সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় কেসিসি কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করবে। নগরীর সৌন্দর্য বর্ধনে সড়ক অবকাঠামো দৃষ্টিনন্দন করে গড়ে তোলার পাশাপাশি বিভিন্ন সড়কদ্বীপ, রোড, ডিভাইডার ও গুরুত্বপূর্ণ স্থানে পরিবেশবান্ধব সবুজ বেষ্টনীর মাধ্যমে নতুন করে সাজানো হবে। ৩টি নতুন থানা পরিকল্পিতভাবে গড়ে তোলা, আধুনিক কসাইখানা নির্মাণ, খালিশপুর ও রূপসা শিল্পাঞ্চলের উন্নয়ন এবং বন্ধ হওয়া কল-কারখানা চালু ও নতুন শিল্প প্রতিষ্ঠান স্থাপনের পাশাপাশি খালিশপুর ও রূপসা শিল্পাঞ্চলকে কর্মচঞ্চল এলাকা হিসেবে গড়ে তোলা হবে। এ ছাড়া কেসিসিতে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করা এবং সিটি কর্পোরেশনের এলাকা সম্প্রসারণ করে নগরীকে আধুনিক ও পরিকল্পিত ‘তিলোত্তমা নগরী’ হিসেবে গড়ে তোলা হবে।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter