গুহায় ৪০ হাজার বছর আগের চিত্রকর্ম!

প্রকাশ : ০৯ নভেম্বর ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

  যুগান্তর ডেস্ক

সম্প্রতি ইন্দোনেশিয়ার গুহায় আঁকা একটি চিত্রকর্মকে বিশ্বের প্রাচীনতম ‘গুহা চিত্রকর্ম’ হিসেবে আখ্যায়িত করা হচ্ছে। চিত্রকর্মটিতে একটি প্রাণীকে চিত্রিত করা হয়েছে।

নতুন এক গবেষণার তথ্য অনুযায়ী, চিত্রকর্মটি কমপক্ষে ৪০ হাজার বছর আগের। এমনকি এটির প্রকৃত বয়স ৫২ হাজার বছরও ছাড়িয়ে যেতে পারে বলে মনে করছেন গবেষকরা। খবর এএফপির।

ইউরেনিয়াম সিরিজ বিশ্লেষণ প্রযুক্তি ব্যবহার করে চিত্রকর্মটির আনুমানিক বয়স নির্ধারণ করেছেন গবেষকরা। এ গবেষণা করেছেন অস্ট্রেলিয়ার গ্রিফিথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সহযোগী অধ্যাপক ম্যাক্সিম আউবার্ট ও তার দল। ম্যাক্সিম আউবার্ট বলেন, ‘এ চিত্রকর্মের বয়স নির্ধারণ করার পর এটা স্পষ্ট যে, তৎকালীন সময়ে গুহা চিত্রকর্ম শুধু ইউরোপে সীমাবদ্ধ থাকেনি, এশিয়ায়ও এর বিকাশ ঘটেছিল। আর এ চিত্রকর্মটি বিশ্বের প্রাচীনতম ‘গুহা চিত্রকর্ম’ ও সবচেয়ে বড় পশু চিত্রাঙ্কন। ইন্দোনেশিয়ার বোর্নিওর পাহাড়ি জঙ্গলে পাওয়া এ চিত্রকর্মে সম্ভবত একটি স্থানীয় বন্য পশুকে চিত্রিত করা হয়েছে। এর আগেও এ অঞ্চলটিতে বিগত কয়েক দশক ধরে এ ধরনের বিভিন্ন চিত্রকর্মের সন্ধান মেলে।

এর মধ্যে প্রায় ৩৭ হাজার বছর আগের হাতের ছাপ দিয়ে তৈরি একটি চিত্রকর্মও রয়েছে। ২০১৪ সালে ইন্দোনেশিয়ার বোর্নিওর সুলাভেসি দ্বীপের পাহাড়ি জঙ্গলের এক দুর্গম পাহাড়ের গুহায় কিছু গুহা চিত্রকর্মের সন্ধান পায় একদল গবেষক। তখন প্রাথমিকভাবে এগুলোর বয়স ৩৫ হাজার বলে অনুমান করা হয়।

কিন্তু আউবার্ট ও তার দল এদের মধ্যে একটি চিত্রকর্ম আরও পুরনো বলে চিহ্নিত করেন। এরপরই বিস্তর গবেষণার পর জানা যায়, এটি ৪০ হাজার থেকে ৫২ হাজার বছরের পুরনো। তারপর এটিকে বিশ্বের প্রাচীনতম গুহা চিত্রকর্ম হিসেবে আখ্যায়িত করেন বিজ্ঞানীরা।