১৪ দলের বৈঠক শেষে নাসিম

জেলা-উপজেলায় বিজয়মঞ্চ করা হবে

জোটের প্রার্থীর পক্ষে প্রচারে সারা দেশে টিম করবে ১৪ দল * বিজয়ের মাস ডিসেম্বর এলেই বিএনপি-জামায়াত ভয় পায়

  যুগান্তর রিপোর্ট ১৮ নভেম্বর ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ের আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে শনিবার দুপুরে ১৪ দলের বৈঠক শেষে সংবাদ সম্মেলনে ১৪ দলের নেতৃবৃন্দ
বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ের আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে শনিবার দুপুরে ১৪ দলের বৈঠক শেষে সংবাদ সম্মেলনে ১৪ দলের নেতৃবৃন্দ। ছবি: যুগান্তর

১৬ ডিসেম্বর থেকে দেশের সব জেলা-উপজেলায় বিজয়মঞ্চ করা হবে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য, কেন্দ্রীয় ১৪ দলের মুখপাত্র স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম।

তিনি বলেন, এসব বিজয়মঞ্চ থেকে মুক্তিযুদ্ধের সময়কার গান, মুক্তিযুদ্ধের ওপর নির্মিত বিভিন্ন নাটকসহ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান প্রচার করা হবে। বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ের আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে শনিবার দুপুরে ১৪ দলের বৈঠক শেষে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

বিএনপির নির্বাচন পেছানোর দাবি প্রসঙ্গে নাসিম বলেন, তারা বিজয়ের মাস ডিসেম্বরে নির্বাচন চায় না। কারণ তারা (বিএনপি-জামায়াত) বিজয়ের মাস ডিসেম্বর এলেই ভয় পায়। তাদের মনে হয়ে যায় ’৭১-এর পরাজয়ের কথা।

বিএনপির চরিত্র এখনও পরিবর্তন হয়নি মন্তব্য করে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, পল্টনে তাদের দলীয় কার্যালয়ের সামনে যেভাবে পুলিশের ওপর হামলা করা হয়েছে তা অত্যন্ত দুঃখজনক। বিএনপির চরিত্র এখনও বদলায়নি। এ হামলা পূর্বপরিকল্পিত ছিল। তারা আগে থেকেই লাঠি নিয়ে হামলার জন্য প্রস্তুত ছিল। তারপরও তারা এ ঘটনা নিয়ে মিথ্যাচার করে যাচ্ছে।

সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে জোটের প্রার্থীদের প্রচারের জন্য ১৪ দলের পক্ষ থেকে টিম গঠন করা হবে জানিয়ে নাসিম বলেন, জোটের প্রার্থীর পক্ষে প্রচারের জন্য আমরা ১৪ দল থেকে টিম করব। দেশের বিভিন্ন আসনে গিয়ে সভা, সমাবেশের মাধ্যমে জোটের প্রার্থীর পক্ষে জনগণকে উদ্বুদ্ধ করতে প্রচার-প্রচারণা চালাব। নির্বাচনের আগে দেশের যতগুলো আসনে সম্ভব টিমগুলো প্রচার-প্রচারণা চালাবে।

এ সময় জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জাসদ) সভাপতি ও তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণের ঘোষণা দেয়ায় সব রাজনৈতিক দলকে ধন্যবাদ জানান। তিনি বলেন, যুদ্ধাপরাধীদের বিষয়ে মুখবন্ধের নীতিকে নিন্দা জানাচ্ছি। অপরাধীদের পক্ষে ওকালতি করবেন না বা হালাল করার চেষ্টা করবেন না। মীমাংসিত কোনো বিষয় নিয়ে বিভ্রান্তি ছড়াবেন না। বাংলাদেশকে আর হত্যাকারী-আগুনসন্ত্রাসীদের হাতে যেতে দেয়া যাবে না।

এর আগে গণআজাদী লীগের সভাপতি এস কে শিকদারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক ফজলে হোসেন বাদশা, সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ বড়–য়া, জাসদের সাধারণ সম্পাদক শিরীন আক্তার, আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণবিষয়ক সম্পাদক সুজিত রায় নন্দি, উপ-দফতর সম্পাদক বিপ্লব বড়–য়া, জাতীয় পার্টির (জেপি) সাধারণ সম্পাদক শেখ সহিদুল ইসলাম, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ডা. দিলীপ রায় প্রমুখ।

কেন্দ্রীয় ১৪ দলের প্রচার কমিটি গঠিত : আগামী সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে ২৪ সদস্যবিশিষ্ট প্রচার কমিটি গঠন করেছে কেন্দ্রীয় ১৪ দল। এতে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মোহাম্মদ নাসিমকে আহ্বায়ক করা হয়েছে। সদস্যরা হলেন : সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ বড়ুয়া, ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন, সাধারণ সম্পাদক ফজলে হোসেন বাদশা, জাসদ (একাংশ) সভাপতি হাসানুল হক ইনু, সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতার, সাম্যবাদী দলের পলিট ব্যুরোর সদস্য লুৎফর রহমান, জাসদ সভাপতি (অপরাংশ) শরীফ নূরুল আম্বিয়া, সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হক প্রধান, ন্যাপের কার্যকরী সভাপতি আমিনা বেগম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ইসমাইল হোসেন, জাতীয় পার্টির (মঞ্জু) চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন মঞ্জু, সাধারণ সম্পাদক শেখ শহীদুল ইসলাম, গণতন্ত্রী পার্টির সভাপতি ব্যারিস্টার আরশ আলী, সাধারণ সম্পাদক ডা. শাহাদাত হোসেন, বাংলাদেশ তরিকত ফেডারেশনের চেয়ারম্যান নজিবুল বশর মাইজভাণ্ডারী, প্রেসিডিয়াম সদস্য ড. সৈয়দ রেজাউল হক চাঁদপুরী, গণ-আজাদী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট এস কে শিকদার, মহাসচিব মুহাম্মদ আতা উল্লাহ খান, গণতান্ত্রিক মজদুর পার্টির সভাপতি জাকির হোসেন, বাংলাদেশ সমাজতান্ত্রিক দলের (বাসদ) আহ্বায়ক রেজাউর রশীদ খান, সদস্য হামিদুল কিবরিয়া চৌধুরী, কমিউনিস্ট কেন্দ্রের আহ্বায়ক ডা. ওয়াজেদুল ইসলাম খান ও যুগ্ম আহ্বায়ক ডা. অসিত বরণ রায়।

ঘটনাপ্রবাহ : একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন

আরও
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×