নির্বাচন সম্পন্ন হওয়াটাই মূল লক্ষ্য কূটনীতিকদের: শমসের মবিন

প্রকাশ : ২৭ নভেম্বর ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

  যুগান্তর রিপোর্ট

শমসের মবিন চৌধুরী। ছবি: সংগৃহীত

বিভিন্ন দেশের কূটনীতিকদের সঙ্গে বৈঠক করলেন যুক্তফ্রন্টের চেয়ারম্যান ও বিকল্পধারার সভাপতি অধ্যাপক ডা. একিউএম বদরুদ্দোজা চৌধুরী।

সোমবার দুপুরে তার বারিধারার বাসভবনে চীন, ইউরোপীয় ইউনিয়ন, সুইডেন, ফ্রান্স, কানাডা, অস্ট্রেলিয়ার রাষ্ট্রদূত ও যুক্তরাষ্ট্রের মিশন প্রধানের সঙ্গে দুই দফা বৈঠক করেন সাবেক এই রাষ্ট্রপতি। পরে ব্রিফিংয়ে বিকল্পধারার প্রেসিডিয়াম সদস্য সাবেক পররাষ্ট্র সচিব শমসের মবিন চৌধুরী সাংবাদিকদের বলেন, কূটনীতিকরা সৌজন্য সাক্ষাতে এসেছিলেন। তাদের সঙ্গে চলমান বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। তারা নির্বাচন নিয়ে কোনো মতামত দেননি।

তবে বলেছেন, নির্বাচন হোক, সেটাই তাদের মূল লক্ষ্য। বৈঠকে বি চৌধুরীর সঙ্গে ছিলেন দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য শমসের মবিন চৌধুরী, এমএম শাহীন, এইচএম গোলাম রেজা, যুগ্ম মহাসচিব মাহি বি চৌধুরী। প্রথম দফা বৈঠকে অংশ নেন চীনের কূটনীতিকরা। চার সদস্যের এই প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেন ঢাকায় চীনের রাষ্ট্রদূত ঝাং জু। পরে আসেন ইউরোপীয় ইউনিয়ন, সুইডেন, ফ্রান্স, কানাডা, অস্ট্রেলিয়ার রাষ্ট্রদূত ও যুক্তরাষ্ট্রের মিশনপ্রধান। বৈঠক শেষে কোনো কথা না বলেই বের হয়ে যান কূটনীতিকরা।

পরে শমসের মবিন চৌধুরী সাংবাদিকদের বলেন, সবার অংশগ্রহণে নির্বাচন হতে যাচ্ছে দেখে চীন আনন্দিত। ফলাফল কী হবে, সে সিদ্ধান্ত নেবে বাংলাদেশের জনগণ। এ ব্যাপারে চীনের কোনো বিশেষ মতামত নেই। তাদের একটা নীতি রয়েছে, তারা কোনো দেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপ করে না।

শমসের মবিন বলেন, অন্য কূটনীতিকদের সঙ্গে নির্বাচন নিয়ে দীর্ঘ আলাপ হয়েছে। তারা জানতে চেয়েছেন বিদেশি পর্যবেক্ষকদের নিয়ে বিকল্পধারার অবস্থান কী। বি. চৌধুরী তাদের জানিয়েছেন, শুরু থেকেই বিকল্পধারা বলে এসেছে যে, দেশি-বিদেশি নির্বাচন পর্যবেক্ষকদের সম্পূর্ণ স্বাধীনভাবে কাজ করার সুযোগ দেয়া উচিত। তবে একইসঙ্গে তিনি আশা প্রকাশ করে বলেছেন, একটি রাজনৈতিক সংস্কৃতি তৈরি হোক যাতে ভবিষ্যতে বিদেশি পর্যবেক্ষকের আর প্রয়োজন হবে না। এ সময় বি. চৌধুরী কূটনীতিকদের বলেছেন, এই নির্বাচনে পর্যবেক্ষকরা এলে যেন আগেই আসেন। নির্বাচনের দু-একদিন আগে এসে পর্যবেক্ষকরা কতটা কী দেখতে পারবেন, জানি না। এ প্রসঙ্গে শমসের মবিন বলেন, বৈঠকে যুক্তরাষ্ট্রের মিশনপ্রধান বলেছেন, তারা প্রায় ২০ হাজার বাংলাদেশি পর্যবেক্ষককে প্রশিক্ষণ দিচ্ছেন। এছাড়া যুক্তরাষ্ট্রের কয়েকটি প্রতিষ্ঠান থেকে হয়তো কিছু পর্যবেক্ষক আসবেন। কূটনীতিকরা বলেছেন, তারা আশা করছেন নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠু হবে।

শমসের মবিন চৌধুরী সাংবাদিকদের বলেন, নির্বাচনের পরিবেশ নিয়ে বিকল্পধারা এখনও সন্তুষ্ট নয়। বৈঠকে বদরুদ্দোজা চৌধুরীও নির্বাচনের পরিবেশ নিয়ে বিকল্পধারা সন্তুষ্ট নয় বলে জানিয়েছেন। কিছু আলোচনা বাকি আছে। শমসের মবিন বলেন, তাদের অনেক প্রশ্ন ছিল, তারা করেছেন। উত্তরগুলো পেয়ে কূটনীতিকরা সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন। বিকল্পধারায় কিছু নতুনত্ব দেখতে পাওয়ার কথাও জানিয়েছেন তারা।