বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস পালন

জাতির পিতার স্বপ্ন বাস্তবায়নের প্রত্যয়

  যুগান্তর রিপোর্ট ১১ জানুয়ারি ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

জাতির পিতার স্বপ্ন বাস্তবায়নের প্রত্যয়

যথাযথ মর্যাদায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস পালিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার আওয়ামী লীগসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠন দিবসটি যথাযোগ্য মর্যাদায় পালন করে।

দিবসটিতে আলোচনা সভা, মিলাদ ও দোয়া মাহফিল এবং বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। এসব কর্মসূচিতে জাতির পিতার আদর্শকে বুকে ধারণ করে তার স্বপ্ন বাস্তবায়নের প্রত্যয় ব্যক্ত করা হয়।

সকালে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়, বঙ্গবন্ধু ভবন ও সারা দেশে সংগঠনটির কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলনের মধ্য দিয়ে দিনের কর্মসূচি শুরু হয়। সকাল ৭টায় ধানমণ্ডি ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধু ভবনের সামনে জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রথমে সরকারপ্রধান হিসেবে তিনি পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। এ সময় তিনি সেখানে কিছুক্ষণ নীরবে দাঁড়িয়ে থাকেন। পরে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতাদের নিয়ে তিনি বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে দলের পক্ষ থেকে আরেকবার পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। তার সঙ্গে ছিলেন দলের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য আমির হোসেন আমু ও তোফায়েল আহমেদ, প্রেসিডিয়াম সদস্য বেগম মতিয়া চৌধুরী ও ড. আবদুর রাজ্জাক, দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ ও ডা. দীপু মনি, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ, সাংগঠনিক সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, আবু সাইদ আল মাহমুদ স্বপন, একেএম এনামুল হক শামীম প্রমুখ।

প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠনগুলো আলাদাভাবে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানায়। শ্রদ্ধা নিবেদন করে আওয়ামী যুবলীগ, ছাত্রলীগ, শ্রমিক লীগ, মহিলা আওয়ামী লীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, যুব মহিলা লীগ, কৃষক লীগ, ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের উত্তর ও দক্ষিণ শাখাসহ বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক এবং রাজনৈতিক সংগঠন। পুষ্পার্ঘ্যে ফুলে ফুলে আচ্ছাদিত হয়ে যায় জাতির পিতার প্রতিকৃতির বেদি।

বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে ওবায়দুল কাদের বলেন, যারা জাতির জনকের আদর্শকে অনুসরণ করেনি নির্বাচনে মানুষ তাদের প্রত্যাখ্যান করেছে। শেখ হাসিনার নেতৃত্ব এবং তার উন্নয়ন দর্শনে আস্থা রেখেছে জনগণ। আর সে জন্যই এবারের নির্বাচনে আওয়ামী লীগ বিপুল সমর্থন পেয়েছে। জাতির পিতার আদর্শকে বুকে ধারণ করে আওয়ামী লীগ গণমানুষের

কাতারে গিয়ে কাজ করবে। তিনি আরও বলেন, বঙ্গবন্ধুর সততা ও সাহসের দৃষ্টান্তকে আমরা ধারণ করব। এ ছাড়া আমাদের শপথ হবে আমরা মাটির কাছে থাকব, মানুষের কাছে থাকব। মানুষের কাজে থাকব।

ঐতিহাসিক স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে বৃহস্পতিবার বিকালে রাজধানীর কৃষিবিদ মিলনায়তনে আলোচনা সভার আয়োজন করে আওয়ামী লীগ। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

দিনটি উপলক্ষে জাতীয় প্রেস ক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে বঙ্গমাতা পরিষদ এক আলোচনা সভার আয়োজন করে। আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ও বঙ্গমাতা পরিষদের প্রেসিডিয়াম সদস্য মোজাফ্ফর হোসেন পল্টুর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও কেন্দ্রীয় ১৪ দলের মুখপাত্র মোহাম্মদ নাসিম প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন।

২৯০ দিন পাকিস্তানের কারাগারে বন্দি থাকার পর জাতির পিতা ১৯৭২ সালের ১০ জানুয়ারি লন্ডন ও নয়াদিল্লি হয়ে স্বাধীন বাংলাদেশে ফিরে আসেন। এরপর থেকে ১০ জানুয়ারি বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস হিসেবে পালিত হয়ে আসছে।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×