আওয়ামী লীগের সম্মেলন অক্টোবরে

ওবায়দুল কাদের

  যুগান্তর রিপোর্ট ১৩ জানুয়ারি ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

আওয়ামী লীগ

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, আগামী অক্টোবরে দলের সম্মেলন হবে, এর আগে কোনো সম্মেলন হবে না।

তিনি জানান, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে দেশে ও বিদেশে কোনো বিতর্ক নেই। নির্বাচন নিয়ে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সংলাপের দাবি হাস্যকর বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

শনিবার রাজধানীর মানিক মিয়া এভিনিউতে বিআরটিএ’র ভ্রাম্যমাণ আদালতের কার্যক্রম পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকের প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের এসব কথা বলেন।

জাতীয় নির্বাচনের কারণে দীর্ঘদিন পর শনিবার প্রথম রাস্তায় নামেন ওবায়দুল কাদের। এ সময় তিনি সড়কে গাড়ির কাগজপত্র পরীক্ষা করেন। বাসের যাত্রীদের সঙ্গেও কথা বলেন। তিনি জানতে চান- বাস ভাড়া বেশি নিচ্ছে কিনা, সিএনজি অটোরিকশা মিটারে চলছে কিনা। এ সময় অনেক যাত্রী বাস থেকেই ছবি তোলা শুরু করেন। এমনকি কয়েকজন যাত্রী বাসের জানালা দিয়ে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রীর সঙ্গে করমর্দন করেন। আবার কোনো কোনো যাত্রীকে বিভিন্ন অভিযোগ করতেও দেখা যায়।

পরে ঐক্যফ্রন্টের জাতীয় সংলাপের বিষয়ে সাংবাদিকের এক প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, সংলাপ এখন মামাবাড়ির আবদার। সরকার গঠনের আগেই শেখ হাসিনা বিশ্বনেতাদের কাছ থেকে আন্তর্জাতিকভাবে অভিনন্দন পেয়েছেন। এ নির্বাচন নিয়ে কোনো প্রশ্ন ওঠেনি, দেশেও নির্বাচন নিয়ে কোনো বিতর্ক নেই। তিনি বলেন, নেতাকর্মীদের চাঙ্গা রাখতেই বিএনপির নেতারা মিথ্যা তথ্য দিচ্ছেন। নির্বাচন নিয়ে সংলাপের দাবি হাস্যকর। আওয়ামী লীগের সম্মেলনের বিষয়ে তিনি বলেন, কাউন্সিল আগে কিভাবে হবে? কাউন্সিল অক্টোবর মাসেই হবে।

নির্বাচন নিয়ে বিএনপি ও বাম গণতান্ত্রিক জোটের অভিযোগ প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, নির্বাচন নিয়ে দেশে, বিদেশে কোনো বিতর্ক নেই। বিএনপির অভিযোগ ধোপে টিকবে না। উন্নত গণতান্ত্রিক দেশগুলো দ্রুততম সময়ে প্রধানমন্ত্রীকে সমর্থন জানিয়েছে। কাজেই সংলাপের দাবি অবান্তর, এর কোনো যৌক্তিকতা নেই। তিনি বলেন, চারদিকে আপনারা জনগণের মতামত নিতে পারেন, জনগণ এই নির্বাচনে স্বতঃস্ফূর্তভাবে ভোট দিয়েছে। জনগণের কোনো প্রশ্ন নেই, প্রশ্ন আছে শুধু বিরোধী রাজনৈতিক দলের। তাদের কাছে প্রশ্ন থাকবেই। বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের চাঙ্গা রাখতে হলে গরম কথা বলতে হবে।

এদিকে সড়কে শৃঙ্খলা ও সড়ক দুর্ঘটনা রোধে পথচারীদের সচেতনতার কথা উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, যাত্রীরাও মাঝে মাঝে বেপরোয়া চালকের মতো বেপরোয়া হয়ে যায়। সড়ক দুর্ঘটনা শুধু চালকের জন্যই হচ্ছে, তা নয়? যাত্রীদের ভুলের জন্য দুর্ঘটনা হয়। তারা রাস্তা না দেখেই এপার থেকে ওপার যাতায়াত করে। এ বিষয়ে সাংবাদিকদেরও সচেতন হতে হবে, ক্যাম্পেইন করতে হবে, যাতে সচেতনতা বৃদ্ধি পায়। বিআরটিএর অভিযান প্রসঙ্গে তিনি বলেন, নির্বাচন থাকায় বিআরটিএর অভিযান স্থগিত ছিল। যে কারণে অনিয়ম বেড়ে গেছে। আজকে (শনিবার) ২ ঘণ্টার মধ্যেই ৯৮ হাজার টাকা জরিমানা, ৮টি গাড়ি জব্দ এবং তিনজনের জেল ও ৪২টি মামলা করা হয়েছে। এই অভিযান নিয়মিত চলবে। বিআরটিএকে এ অভিযান আরও জোরদার করতে বলা হয়েছে। তিনি আরও বলেন, এক রাতে তো আর পরিবর্তন হবে না। সামগ্রিকভাবে আমাদের মানসিকতা পরিবর্তন জরুরি।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×