পল্লী বিদ্যুতের অবহেলায় ঝরল পিতা-পুত্রের প্রাণ

  স্টাফ রিপোর্টার, নোয়াখালী ও কোম্পানীগঞ্জ প্রতিনিধি ১৬ জানুয়ারি ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

পল্লী বিদ্যুতের অবহেলায় ঝরল পিতা-পুত্রের প্রাণ

পল্লী বিদ্যুতের টানা তারে ত্রুটি থাকায় অকালেই ঝরে গেল দুটি তাজা প্রাণ। এরা হলেন- কৃষক সালাহ উদ্দিন (৪৮) ও তার স্কুল পড়–য়া ছেলে সৌরভ হোসেন (১২)।

সোমবার সন্ধ্যার দিকে জেলার কবিরহাট উপজেলার নরোত্তমপুর ইউনিয়নে বিদ্যুতায়িত হয়ে পিতা-পুত্রের এই মর্মান্তিক মৃত্যু হয়। তার টানার সময় ত্রুটি থাকা ছাড়াও দুর্ঘটনার পরও বিদ্যুৎ অফিসের অবহেলার কথা শোনা গেল স্থানীয়দের মুখে মুখে।

বিদ্যুৎ সংযোগ বন্ধের অনুরোধ জানিয়ে কবিরহাট অফিস ও জেলা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির জিএম শংকর লাল দত্তকে একাধিকবার ফোন করা হলেও ঘটনাস্থলে আসতেই তাদের লেগে গেছে ৪ ঘণ্টার বেশি।

ফলে কয়েক ঘণ্টা লাশ দুটি জড়াজড়ি করা অবস্থায় পুকুরে ভাসছিল। এ নিয়ে স্থানীয়দের মধ্যে ক্ষোভ সৃষ্টি হয়েছে। পরে খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস রাত সাড়ে ৮টার দিকে লাশ দুটি উদ্ধার করে মর্গে পাঠায়।

স্থানীয়রা জানায়, বিকালে ফলাহারী গ্রামের বজল মাস্টারের বাড়ি সংলগ্ন বোরো খেতে সেচপাম্পে পানি দিচ্ছিলেন সালাহ উদ্দিন। ছেলে সৌরভ সহযোগিতা করছিলেন পিতাকে। সেচ দেয়া শেষে সন্ধ্যায় তারা বাড়ি ফিরছিল।

সৌরভ পায়ের কাদা ধোয়ার জন্য পাশের পুকুরে পড়ে যায়। তীরে বৈদ্যুতিক খুঁটির উপরের অংশ থেকে মাটির সঙ্গে টানা তার ধরে পা ধোয়ার সময় হঠাৎ তারটি বিদ্যুতায়িত হলে সৌরভ পানিতে পড়ে যায়।

এ সময় পুকুরের পানিও বিদ্যুতায়িত হয়ে যায়। ছেলেকে উদ্ধারে বাবা সালাহ উদ্দিন এগিয়ে গেলে দু’জনেই বিদ্যুতায়িত হয়ে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন। স্থানীয়রা জানান, খুঁটির উপরের অংশ থেকে নিচে মাটিতে পোতা ছোট্ট খুঁটির সঙ্গে টানা তারটি মূল লাইনের সঙ্গে সংযুক্ত হওয়ার কথা নয়। লাইন টানার সময় নির্মাণ ত্রুটির কারণে এমনটা হয়ে থাকতে পারে। খবর পেয়ে আশপাশের লোকজন, পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা ঘটনাস্থলে ছুটে এলেও ভয়ে লাশ উদ্ধারে কেউ পুকুরে নামেনি।

ফলে কয়েক ঘণ্টা লাশ দুটি পুকুরের পানিতে ভাসছিল। পরে রাত সোয়া ৮টার দিকে জেলা শহর থেকে দমকল কর্মীরা এসে লাশ উদ্ধার করেন। তারও পর রাত পৌনে ৯টার দিকে কবিরহাট বিদ্যুৎ অফিসের লোক ঘটনাস্থলে আসেন।

লাইন নির্মাণে ত্রুটি ছিল না দাবি করে নোয়াখালী পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির মহাব্যবস্থাপক শংকর লাল দত্ত জানান, মোবাইলে খবর পাওয়ামাত্র কবিরহাট অফিসের লোকজনকে ঘটনাস্থলে যাওয়ার জন্য বলা হয়েছে। তিনি টানা তার ধরে ঝুলার কারণে ওই তার গিয়ে বিদ্যুতের মূল তারের সঙ্গে লাগার কারণে এ দুর্ঘটনা ঘটে থাকতে পারে।

বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হবে। তদন্তে কারও গাফিলতি পেলে দায়ী ব্যক্তির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। মঙ্গলবার স্থানীয় করমবক্স মাধ্যমিক উচ্চবিদ্যালয়ের প্রাঙ্গণে জানাজা শেষে পিতা-পুত্রকে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়।

কবিরহাট থানার ওসি মির্জা মো. হাসান যুগান্তরকে জানান, নরোত্তমপুর ইউনিয়নে পল্লী বিদ্যুতের তার ছিঁড়ে পুকুরের পানিতে পড়ে বিদ্যুতায়িত হয়ে পিতা ও পুত্র মারা যায়। এ ব্যাপারে থানায় অপমৃত্যুর জিডি করে স্বজনদের কাছে লাশ হস্তান্তর করা হয়েছে।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×