অটোস্ট্যান্ডে আধিপত্যের জের

পাবনায় দু’গ্রুপের সংঘর্ষে যুবলীগ কর্মী নিহত

  পাবনা প্রতিনিধি ২৩ জানুয়ারি ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

পাবনায় দু’গ্রুপের সংঘর্ষে যুবলীগ কর্মী নিহত

পাবনা শহরের পৈলানপুরে অটোবাইক স্ট্যান্ডে আধিপত্যের জের ধরে দু’গ্রুপের সংঘর্ষে অরিন নামে এক যুবলীগ কর্মী নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন কমপক্ষে ১০ জন।

আহতদের মধ্যে গুরুতর অবস্থায় ৩ জনকে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। নিহত অরিন পৈলানপুর মহল্লার হাসান আলী ভুট্টুর ছেলে। তিনি অটোবাইক স্ট্যান্ডের মাস্টার পদে দায়িত্ব পালন করতেন বলে জানিয়েছে পুলিশ।

পাবনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওবাইদুল হক জানান, জেলা আওয়ামী লীগের উপ-প্রচার সম্পাদক হাজী শরিফ ও বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের সম্পাদক ও যুবলীগ নেতা আবদুল্লাহ আল মামুন গ্রুপের মধ্যে অটোবাইক স্ট্যান্ডের আধিপত্য নিয়ে দীর্ঘদিন বিরোধ চলছিল। এরই জেরে দুপুর দেড়টার দিকে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, দু’গ্রুপের সংঘর্ষে শহরের রূপকথা রোড এবং পৈলানপুর মোড় রণক্ষেত্রে পরিণত হয়। এ সময় চারদিকে চরম আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। মুহূর্তের মধ্যে এলাকার সব দোকানপাট বন্ধ হয়ে যায়।

মানুষ নিরাপদ আশ্রয়ের জন্য দিদ্বিদিক ছোটাছুটি করে। এ সময় পৈলানপুরে ইছামতি নদীপারে হাজী শরিফের অফিস ইয়াকুব আলী স্মৃতি সংঘে ব্যাপক ভাংচুর করা হয়।

এ সময় হাজী শরিফ গ্রুপের যুবলীগ কর্মী অরিন গুরুতর আহত হলে তাকে প্রথমে পাবনা জেলারেল হাসপাতালে নেয়া হয়। বিকালে উন্নত চিকিৎসার জন্য সেখান থেকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

হাজী শরিফ অভিযোগ করেন, তার অফিসে রক্ষিত বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি ও আসবাবপত্র ভাংচুর এবং যুবলীগ কর্মী অরিনসহ ৫ কর্মী-সমর্থককে ব্যাপক মারধর করা হয়েছে। অন্যদিকে যুবলীগ নেতা আবদুল্লাহ আল মামুন বলেন, প্রথমে হাজী শরিফ গ্রুপের ছেলেরা তার সমর্থক যুবলীগ কর্মী আল আমিনকে ছুরিকাঘাতসহ ৫ জনকে মারধর করে।

পাবনা থানার ওসি (তদন্ত) আসাদুজ্জামান জানান, পুলিশ খবর পেয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। তিনি বলেন, পুলিশ ঘটনা তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেবে। এদিকে এ ঘটনায় কোনো পক্ষই থানায় মামলা করেনি। আহতদের পুলিশি ঝামেলা এড়াতে বেসরকারি হাসপাতাল বা ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়েছে।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×