মহাকাশযান ‘অপরচুনিটি’ মঙ্গলে অকেজো!

  যুগান্তর ডেস্ক ২৬ জানুয়ারি ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

নাসার রোভার মহাকাশযান ‘অপরচুনিটি’
নাসার রোভার মহাকাশযান ‘অপরচুনিটি’

মঙ্গলের মাটিতে নামা নাসার রোভার মহাকাশযান ‘অপরচুনিটি’ পা দিল ১৫ বছরে। ৯ মাস ধরে অপরচুনিটির কোনো সাড়া নেই। পাসাডেনায় নাসার গ্রাউন্ড কন্ট্রোল রুম বা মঙ্গলের কক্ষপথে থাকা কোনো মহাকাশযানের পাঠানো কমান্ডই সাড়া পাচ্ছে না। মহাকাশযানটি কোনো সিগন্যালও পাঠাচ্ছে না।

গত বছরের জুনে ভয়ঙ্কর ধূলিঝড় হয়েছিল মঙ্গলের ‘পারসিভ্যারেন্স ভ্যালি’ বা উপত্যকায়। এ ঘটনার পরই অপরচুনিটি মূলত অকেজো হয়ে পড়ে। নাসার এই রোভারটি মঙ্গলের মাটিতে নেমেছিল ২০০৪ সালের ২৪ জানুয়ারি।

লালগ্রহের ‘মেরিডিয়ানি প্লেনাম’ নামক স্থানে নামে নাসার ওই রোভার। পরের দিনই সিগন্যাল পাঠায় যানটি। মনে করা হয়েছিল, মঙ্গলে ১ কিলোমিটারের বেশি চষে বেড়াতে পারবে না অপরচুনিটি। কিন্তু সব হিসাবনিকাশ পাল্টে দিয়ে ১৫ বছরে মঙ্গলে ৪৫ কিলোমিটারের বেশি চষে বেড়িয়েছে যানটি।

ভাবা হয়েছিল, খুব বেশি হলে মঙ্গলে ৯০ দিন সক্রিয় থাকবেন না এই মহাকাশযান। কিন্তু সেটি মঙ্গলের মাটিতে কাটিয়ে দিয়েছে ৫ হাজার দিন।

গত বছরের ১০ জুন গ্রাউন্ড কন্ট্রোল রুম থেকে শেষ বারের মতো যোগাযোগ করা সম্ভব হয়েছিল অপরচুনিটির সঙ্গে। ওই দিন পারসিভ্যারেন্স ভ্যালিতে ভয়ঙ্কর ধূলিঝড় হয়েছিল।

নাসার জেট প্রোপালসান ল্যাবরেটরিতে (জেপিএল) অপরচুনিটি প্রোজেক্ট ম্যানেজার জন কালাস বলেছেন, মঙ্গলের মাটিতে অপরচুনিটির পদার্পণের ১৫তম বার্ষিকী আমরা খুব একটা উপভোগ করতে পারছি না। কারণ যানটি থেকে কোনো সাড়াশব্দ পাওয়া যাচ্ছে না।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×