বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব: আজ আখেরি মোনাজাত

  গাজীপুর ও ঢাকা (উত্তর) প্রতিনিধি ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব: আজ আখেরি মোনাজাত
ছবি-যুগান্তর

টঙ্গীর তুরাগ তীরে তাবলিগ জামাতের সা’দপন্থীদের বিশ্ব ইজতেমার আখেরি মোনাজাত আজ মঙ্গলবার সকাল ১০টায়। আখেরি মোনাজাত পরিচালনা করবেন দিল্লির নিজামউদ্দিন মারকাজের অন্যতম মুরব্বি হযরত মাওলানা শামীম।

এর মধ্য দিয়ে ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের দ্বিতীয় বৃহত্তম এবারের ৫ দিনের বিশ্ব ইজতেমা শেষ হচ্ছে। গতকাল সোমবার আখেরি মোনাজাত হওয়ার কথা থাকলেও সা’দপন্থীদের দাবির প্রেক্ষিতে একদিন বাড়ানো হয়। সোমবার বাদ ফজর থেকেই ইজতেমা ময়দানে শুরু হয় ধর্মীয় বয়ান।

বাদ ফজর বয়ান করেন দিল্লির হযরত মাওলানা মুরসালিন। বাংলায় তরজমা করে শোনান বাংলাদেশের মাওলানা আবদুল্লাহ মনসুর। জোহর থেকে মাগরিব পর্য তাবলিগ জামাতের শীর্ষ পর্যায়ের মুরব্বি দিল্লির হযরত মাওলানা শাহজাত, বাংলাদেশের মাওলানা সৈয়দ ওয়াসিফুল ইসলাম ও মাওলানা শওকত হোসাইন বয়ান করেন।

দ্বিতীয় এই ইজতেমা রোববার থেকে শুরু হয়েছে। ঘন কুয়াশা, কনকনে শীতের মধ্যেই তাবলিগ জামাতের শীর্ষ মুরব্বিদের গুরুত্বপূর্ণ বয়ান ও মুসল্লিদের নফল নামাজ, তাসবিহ তাহলিল, জিকির আজকারের মধ্যদিয়ে সোমবার বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় দিন অতিবাহিত হয়েছে।

বিশ্ব তাবলিগ জামাতের আমির দিল্লির হযরত মাওলানা সা’দ এর নির্দেশক্রমে তাবলিগ জামাতের ৩২ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল ইজতেমা ময়দানে রয়েছেন। সোমবার দুপুরে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানিয়েছেন ইজতেমার এ পর্বের মুরব্বি মাওলানা আশরাফ আলী।

প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন দিল্লির নিজামউদ্দিন মারকাজের অন্যতম মুরব্বি হযরত মাওলানা শামীম। তিনিই মাওলানা সা’দের পরামর্শে আজকের মোনাজাত পরিচালনা করবেন। ব্রিফিংয়ে সা’দপন্থীদের মুরব্বি মাওলানা আশরাফ আলী বলেন, যতদিন পর্যন্ত আদর্শগত পার্থক্য থাকবে ততদিন পর্যন্ত একসঙ্গে ইজতেমা করার প্রশ্নই আসে না।

তিনি বলেন, ইজতেমায় মাওলানা সা’দের অংশগ্রহণের বিষয়ে নিশ্চিত হতে চাই। তিনি ছাড়া বিশ্ব ইজতেমায় পরিপূর্ণতা আসে না। আদর্শগত ভিন্নতার কারণে ভিন্নভাবে ইজতেমা হচ্ছে।

ইজতেমার শ্রোতাও ভিন্ন, বক্তা ভিন্ন, আলোচনা হচ্ছে ভিন্নভাবে আর আদর্শও ভিন্ন। ফলে এটাকে সব দিক থেকে এক ইজতেমা বলার উপায় নেই। এবারের ইজতেমা আয়োজনে স্বরাষ্ট্র ও ধর্মপ্রতিমন্ত্রীর আন্তরিক প্রচেষ্টার কথা তিনি স্বীকার করেন।

বলেন, তারা যদি ভুল বুঝতে পারে যে তাদের এ ধরনের সংঘাতে যাওয়া ক্ষতি হচ্ছে, মুসলমানের ক্ষতি হচ্ছে তাহলে আগে যেমন মাওলানা সা’দ সাহেবের নিজাম উদ্দিনের পরিচালনায় একসঙ্গে ইজতেমা হতো এর পরেও সেভাবে হবে। ব্রিফিংয়ে মাওলানা আশরাফ আলী ছাড়াও বিদেশি মেহমানদের জিম্মাদার রেজা আরিফ, মুরব্বি আবদুল্লাহ শাকিল, সাজেদুর রহমান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

যান চলাচল বন্ধ থাকবে : আখেরি মোনাজাতের সুবিধার্থে আজ ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে যান চলাচলের জন্য বিশেষ ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। মোনাজাতের সময় উত্তরার আবদুল্লাহপুর থেকে ভোগড়া বাইপাস এবং মীরের বাজার থেকে স্টেশন রোড পর্যন্ত উভয়মুখী মহাসড়কে সব ধরনের যান চলাচল বন্ধ থাকবে।

গাজীপুর মহানগর পুলিশ কমিশনার ওয়াই এম বেলালুর রহমান বলেন, ইজতেমায় আগত মুসল্লিদের যাতে কোনো সমস্যা না হয় সে বিষয়ে প্রশাসনের কড়া নজর রয়েছে। ইজতেমা শেষে মুরব্বিদের সিদ্ধান্ত মেনে সবাই ইজেমাস্থল ত্যাগ করবেন।

বিদেশি মেহমান : এ পর্বে জর্ডান, লিবিয়া, আফ্রিকা, লেবানন, আফগানিস্তান, ফিলিস্তিন, যুক্তরাষ্ট্র, তুরস্ক, ইরাক, সৌদি আরব, ভারত, পাকিস্তান, ইংল্যান্ডসহ বিশ্বের প্রায় ৩০টি দেশ থেকে ৩৩৪ জন মুসল্লি অংশ নিয়েছেন।

গাজীপুরের জেলা প্রশাসক ড. দেওয়ান মুহাম্মদ হুমায়ূন কবীর জানান, ইজতেমা শেষে সব মালামাল পুলিশ ও প্রশাসনের হেফাজতে থাকবে। পরে দুই পক্ষের সঙ্গে আলোচনা করে ইজতেমার মালামালসমূহ ইজতেমা কর্তৃপক্ষকে বুঝিয়ে দেয়া হবে।

গতকাল ধর্ম প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট শেখ মো. আবদুল্লাহ সোমবার দুপুরে ইজতেমা ময়দান পরিদর্শন করেন। ইজতেমার খোঁজখবর নেন। পরে এক ব্রিফিংয়ে ধর্মপ্রতিমন্ত্রী আবদুল্লাহ আগামীতে ভেদাভেদ ভুলে ঐক্যবদ্ধভাবে বিশ্ব ইজতেমা হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

বলেন, আগামীতে যেন আরও সুন্দরভাবে এই ইজতেমা হয় সেই কামনা করছি। সরকারের পক্ষ থেকে যতটুকু সহযোগিতা করা দরকার তা করা হবে। এ সময় গাজীপুরের পুলিশ কমিশনার ওয়াই এম বেলালুর রহমান, উপ-কমিশনার (ট্রাফিক) কেএম আরিফুর রহমান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এক ব্রিফিংয়ে পুলিশ কমিশনার বলেন, ‘ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে ইজতেমার কার্যক্রম চলছে। মঙ্গলবার আখেরি মোনাজাতের জন্য নিরাপত্তা ও ট্রাফিক ব্যবস্থা আগের মতোই নেয়া হয়েছে।’

এক মুসল্লির মৃত্যু : ইজতেমায় দ্বিতীয় পর্বে অংশগ্রহণকারী ইসমাইল হোসেন মাস্টার (৬৮) নামে আরও একজন বৃদ্ধ মুসল্লি রোববার রাত ১টায় ইন্তেকাল করেছেন। তিনি বগুড়ার দুপচাঁচিয়া থানার দেবখণ্ড গ্রামের লেবু খানের ছেলে। এর আগে গত ১৫ ফেব্রুয়ারি মাওলানা জুবায়েরপন্থীদের প্রথম পর্বে বিশ্ব ইজতেমা শুরু হয়। পরের দিন আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে তা শেষ হয়।

রেল সার্ভিস : টঙ্গীর রেলওয়ে স্টেশনের কর্মকর্তা হালিমুজ্জামান বলেছেন, আজকের আখেরি মোনাজাতের পর সুষ্ঠুভাবে মুসল্লিদের যাতায়াতের জন্য বাংলাদেশ রেলওয়ে পর্যাপ্ত ব্যবস্থা নিয়েছে। এজন্য ২২টি বিশেষ ট্রেনের ব্যবস্থা করা ছাড়াও আন্তঃনগর ট্রেনগুলো টঙ্গী রেলওয়ে স্টেশনে যাত্রাবিরতির করবে। ইজতেমার মুসল্লিদের কথা বিবেচনায় রেখে টঙ্গী রেলওয়ে জংশনে পর্যাপ্ত বিশ্রামাগার, অতিরিক্ত টয়লেটের ব্যবস্থা করা হয়েছে। এছাড়া নিরাপত্তাকর্মীর ব্যবস্থা ছাড়াও বিশুদ্ধ পানির সুব্যবস্থা করা হয়েছে।

ঘটনাপ্রবাহ : বিশ্ব ইজতেমা ২০১৯

আরও
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×