ডাকসুর ফলাফল ‘অস্বাভাবিক’: রিজভী

  যুগান্তর রিপোর্ট ১৩ মার্চ ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ডাকসুর ফলাফল ‘অস্বাভাবিক’: রিজভী

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) নির্বাচনের ফলাফল ‘অস্বাভাবিক’ উল্লেখ করে বিএনপি বলেছে, এতে ক্ষমতাসীনরা ‘ইঞ্জিনিয়ারিং’ করেছে। বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেন, এ ফলাফল অস্বাভাবিক এবং অনেক অসামঞ্জস্য রয়েছে।

ছাত্র সংগঠনের নির্বাচনে সাধারণত ভিপি থেকে সদস্য পর্যন্ত একটা নির্দিষ্ট (ফিক্সড) প্যানেল ভোট থাকে। এ প্যানেল ভোট সবাই পায়। কিন্তু ডাকসু নির্বাচনে দেখা যাচ্ছে, ছাত্রলীগের যিনি ভিপি-জিএস এবং কোটা সংস্কার আন্দোলনের যিনি ভিপি-জিএস প্রার্থী ছিলেন তাদের প্যানেল ভোটের পার্থক্য অনেক। মঙ্গলবার রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব অভিযোগ করেন তিনি।

রিজভী আরও বলেন, সব মিলিয়ে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে কোনো কারিগরি হয়েছে বা সেই কারিগরির কোনো ব্লুপ্রিন্ট ফুলার রোডে ভাইস চ্যান্সেলরের বাসভবনে হয়েছে কিনা এটা বলা যাবে দু-একদিন পর।

ফলাফল বিশ্লেষণ করলে সব জানা যাবে। তবে এখন পর্যন্ত মনে হয়েছে এটা অস্বাভাবিকই বটে। তিনি বলেন, সোমবার ডাকসুর ইতিহাসের নজিরবিহীন ঘটনা ঘটল। মিডনাইট ভোটের সরকারের ফতোয়া শুনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি ‘ভূতের বেগার’ খেটে বিশ্ববিদ্যালয়ের সুমহান ঐতিহ্যকে ধুলোয় লুটিয়ে দিলেন। সরকার যেহেতু বিরোধীদের এক ইঞ্চি জায়গা ছাড়তেও নারাজ তাই আজ্ঞাবাহী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি ডাকসু নির্বাচন করলেন প্রহসন ও সন্ত্রাসী বার্তাবরণে।

তিনি বলেন, প্রধান নির্বাচন কমিশনারের (সিইসির) অতৃপ্ত আত্মাকে নিজের দেহে ধারণ করলেন ঢাবি ভিসি।

‘কারাগার স্থানান্তরের’ চক্রান্ত দেশবাসী মেনে নেবে না : রুহুল কবির রিজভী আরও বলেন, খালেদা জিয়াকে অন্য কারাগারে স্থানান্তর করার চক্রান্ত চলছে। এ ষড়যন্ত্র দেশবাসী মেনে নেবে না। আমরা মানব না। দেশনেত্রীকে অবিলম্বে মুক্তি দিতে হবে।

তিনি বলেন, আমরা জানতে পেরেছি, দেশনেত্রীর স্বাস্থ্যের গুরুতর অবনতি ঘটেছে। চার দিন তিনি অন্যের সাহায্য ছাড়া বিছানা থেকে নামতে পারেননি। হুইল চেয়ারে বসতেও তার কষ্ট হচ্ছে। তিনি ঠিকমতো বসতেও পারছেন না। যন্ত্রণায় তিনি দিনরাত্রি ভীষণ কষ্ট পাচ্ছেন। সম্পূর্ণ বিনা চিকিৎসায় পাঁচ মাস ধরে ছোট্ট একটি অন্ধকার প্রকোষ্ঠে ফেলে রেখে ৭৪ বছর বয়সী সাবেক প্রধানমন্ত্রীকে নারকীয় শাস্তি দেয়া হচ্ছে।

বিএনপি নেতা রিজভী বলেন, সরকারকে বলব এ ভয়ংকর চরম বিপজ্জনক চক্রান্ত থেকে সরে আসুন। দেশনেত্রীর কোনো ক্ষতি হলে এর সম্পূর্ণ দায় আপনাদের ওপরই বর্তাবে। জনগণ আপনাদের রেহাই দেবে না।

ইউনাইটেড হাসপাতালে খালেদা জিয়ার সুচিকিৎসার দাবি জানিয়ে তিনি বলেন, পিজির (বিএসএমএমইউ) চিকিৎসার ওপর তো প্রধানমন্ত্রী থেকে শুরু করে কোনো মন্ত্রীরই ভরসা নেই। এক বড় মন্ত্রীকে ভর্তির পর জীবনহানির আশঙ্কায় তাড়াহুড়ো করে সিঙ্গাপুরে নেয়া হয়েছে। সেই হাসপাতালে আমাদের দেশনেত্রীর কোনোভাবেই চিকিৎসা হতে পারে না। এ হাসপাতালের চিকিৎসার প্রতি মন্ত্রীদের মতো আমাদেরও অনাস্থা।

রিজভী বলেন, খালেদা জিয়ার জীবন মারাত্মক ঝুঁকির মধ্যে। তাকে এক্ষুণি ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তি করতে হবে।

সেখানকার বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের অধীনে তিনি চিকিৎসা নেবেন। এজন্য রাষ্ট্রীয় অর্থ দিতে হবে না। দেশনেত্রী ব্যক্তিগত অর্থেই চিকিৎসা নিতে চান। আমাদের আহবান, আজকের মধ্যে খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিয়ে তাকে বিশেষায়িত ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তির সুযোগ দিন। প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশে রিভজী বলেন, জনগণের নেত্রীকে মুক্তি দিয়ে জনগণের মাঝে ফিরে আসতে দিন। তাকে প্রাণে বাঁচতে দিন। তিনি এদেশেই চিকিৎসা নেবেন। দেশনেত্রীকে উপযুক্ত চিকিৎসা গ্রহণ করে সুস্থ হওয়ার সুযোগ দিন। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা অধ্যাপক সাহিদা রফিক, যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, কেন্দ্রীয় নেতা আবদুস সালাম আজাদ, আবদুল আউয়াল খান, শামসুজ্জামান সুরুজ প্রমুখ।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×