রূপগঞ্জে পায়ের রগ কেটে ছাত্রলীগ নেতাকে হত্যা

প্রকাশ : ১৫ মার্চ ২০১৯, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

  রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি

রূপগঞ্জে রাজনৈতিক প্রতিহিংসার জেরে প্রতিপক্ষের হামলায় ছাত্রলীগ নেতা খুন হয়েছেন। অভিযোগ, প্রতিপক্ষ স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) সদস্য শরীফ মিয়ার নেতৃত্বে সন্ত্রাসীরা ছাত্রলীগ নেতা সোহেল মিয়ার (২৭) পায়ের রগ কেটে ও পিটিয়ে হত্যা করেছে।

বুধবার রাতে উপজেলার ভোলাব ইউনিয়নের টাওড়া এলাকায় এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। টাওড়ার মজিবুর রহমানের ছেলে সোহেল ভোলাব ইউনিয়ন ছাত্রলীগের প্রচার সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন।

রাত ৯টার দিকে টাওড়াবাজার থেকে বাড়িতে ফেরার পথে সোহেল হামলার শিকার হন। এ সময় তার সঙ্গে বন্ধু সিরাজ মিয়া ছিলেন। আদর্শ বিদ্যাপীঠ নামের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সামনে আসামাত্র শরীফের নেতৃত্বে লোকমান, কামাল, সাদত আলীসহ ৬-৭ জন মিলে সোহেলের দুই পায়ের রগ কেটে দেয়।

এছাড়া পিটিয়ে মারাত্মক আহত করে তাকে রাস্তার পাশে ফেলে রাখে। এ সময় সোহেলের বাবা মজিবুর রহমান দৌড়ে গিয়ে দেখতে পান শরীফ, লোকমান, কামাল, সাদতসহ কয়েকজন পালিয়ে যাচ্ছে। এরপর সোহেলকে মুমূর্ষু অবস্থায় প্রথমে নরসিংদী সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকার পঙ্গু হাসপাতালে নেয়ার পথে সোহেল মারা যায়। মজিবুর জানান, ভোলাব ইউনিয়ন ১নং ওয়ার্ড সদস্য শরীফ মিয়া বিএনপি সমর্থক। রাজনৈতিক প্রতিহিংসার জেরে সোহেলসহ তার লোকজনের ওপর একাধিকবার হামলা চালিয়েছে শরীফের লোকজন। তার দাবি, রাজনৈতিক প্রতিহিংসার জেরে বিএনপির কর্মীরা রগ কেটে ও পিটিয়ে সোহেলকে হত্যা করেছে।

এদিকে হত্যাকাণ্ডের ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় চরম উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নেয়। এলাকাবাসীর মাঝে আতঙ্ক বিরাজ করছে।

রূপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহমুদুল হাসান বলেন, সোহেলের বন্ধু সিরাজসহ চারজনকে সন্দেহজনকভাবে আটক করা হয়েছে। মামলার প্রস্তুতি চলছে। হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িতদের চিহ্নিত করে দ্রুত আইনের আওতায় আনা হবে।